‘বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করে উন্নয়নের চাকাকে থামিয়ে দেওয়া হয়েছিল’
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » লিড নিউজ

‘বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করে উন্নয়নের চাকাকে থামিয়ে দেওয়া হয়েছিল’

চক্রান্তকারীরা বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করে বাংলাদেশের উন্নয়নের চাকাকে থামিয়ে দিয়েছিল। তবে বর্তমানে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ আবারও এগিয়ে যাচ্ছে বলে মনে করেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযু্ক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

আজ সোমবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ে বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল(বিসিসি) অডিটোরিয়ামে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস-২০১৬ উপলক্ষে আলোচনা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

৭৫ এর পর ২১ বছর উন্নয়নের চাকা থেমে ছিল মন্তব্য করে তিনি বলেন, চক্রান্তকারীরা বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করেই ক্ষান্ত হয়নি। তারা তরুণ প্রজন্মকে বঙ্গবন্ধুর ইতিহাস জানা থেকে বিরত রেখেছে। ষড়যন্ত্রকারীরা ভেবেছিল, বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করা মানেই বাংলাদেশকে হত্যা করা। কিন্তু, শেখ হাসিনার সুযোগ্য নেতৃত্বে দেশ আবারো এগিয়ে যাচ্ছে।

অর্থনৈতিক উন্নয়নে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে মন্তব্য করে পলক বলেন, অর্থনৈতিক অগ্রগতির দিক থেকে চীন ও ভারতের পরেই বাংলাদেশের অবস্থান। ৭ বছরের ব্যবধানে দেশ যদি এত এগিয়ে যেতে পারে, তাহলে আর ৫ থেকে ৭ টা বছর আওয়ামীলীগকে ক্ষমতায় রাখতে পারলে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়া সম্ভব হবে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব ও বীর মুক্তিযোদ্ধা নাসির উদ্দিন ইউসুফ বাচ্চু। তিনি বলেন,  বর্তমানে সবচেয়ে বড় শক্তি হলো তথ্য ও প্রযুক্তি। তাই এ ব্যাপারে সবাইকে সচেতন হতে হবে এবং এর সঠিক ব্যবহার জানতে হবে।

ধর্মনিরপেক্ষতার বিষয়ে এই সাংস্কৃতিক ব্যক্তি বলেন,  ধর্মনিরপেক্ষতা নিয়ে আমরা বার বার চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হয়েছি। রাষ্ট্র বলছে আমরা ধর্মনিরপেক্ষ আর সমাজের একটি অংশ এটি মানছে না।

তিনি বলেন, দেশে ১৬ কোটি মানুষের মধ্যে ১৩ কোটি মানুষেরই মোবাইল সংযোগ রয়েছে। এটিও একটি সাংস্কৃতিক উপাদান।
তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সচিব শ্যাম সুন্দর শিকদার অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব  করেন। আলোচনা শেষে এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

অর্থসূচক/এমএইচ

এই বিভাগের আরো সংবাদ