স্বাধীনতা পদক পেলেন মুহিতসহ ১৫ বিশিষ্ট ব্যক্তি
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » লিড নিউজ

স্বাধীনতা পদক পেলেন মুহিতসহ ১৫ বিশিষ্ট ব্যক্তি

বিভিন্ন ক্ষেত্রে গৌরবময় ও অসামান্য অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিতসহ ১৫ জন বিশিষ্ট ব্যক্তি সর্বোচ্চ রাষ্ট্রীয় পুরস্কার স্বাধীনতা পদক ২০১৬ পেয়েছেন। প্রতিষ্ঠান হিসেবে এ বছর পদকটি পেয়েছে বাংলাদেশ নৌ বাহিনী।

আজ বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টায় ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে এক অনুষ্ঠানে বিশিষ্ট ব্যক্তিদের হাতে সম্মাননা স্মারক তুলে দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

১৯৭১ সালে যুক্তরাষ্ট্রে পাকিস্তান দূতাবাসে কাজ করার সময় স্বপক্ষ ত্যাগ করে স্বাধীন বাংলাদেশ সরকারের পক্ষে  করা ও মুক্তিযুদ্ধকালে বিদেশে জনমত গঠনের জন্য স্বাধীনতা পরষ্কার পেয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

Shawdhina Awardবিজ্ঞান ও প্রযুক্তির ক্ষেত্রে তোষা ও স্থানীয় জাতের পাটের জেনোম সিকুয়েন্স আবিষ্কারের জন্য মরণোত্তর পুরস্কার পেয়েছেন কৃষি গবেষক মরহুম অধ্যাপক মাকসুদুল আলম। চিকিৎসা বিজ্ঞানের ক্ষেত্রে বিশিষ্ট শিশু বিশেষজ্ঞ ডা. মোহাম্মদ রাফি খান (এমআর খান)।

কবি নির্মলেন্দু গুণ এবং রবীন্দ্র সঙ্গীত শিল্পী ও গবেষক রেজোয়ানা চৌধুরী বন্যা, সাহিত্য ও সংস্কৃতি ক্ষেত্রে কাজের অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে স্বাধীনতা পদক পেয়েছেন।

এছাড়াও সরকার মুক্তিযুদ্ধকালে অসামান্য অবদান এবং দেশের সমুদ্রসীমার স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব সুরক্ষায় নিরলস প্রয়াস চালানোর জন্য বাংলাদেশ নৌবাহিনীকে স্বাধীনতা পদক ২০১৬ প্রদান করা হয়।

এছাড়া মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক ও মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে স্বাধীনতা পুরপাট ও বস্ত্রমন্ত্রী এম ইমাজ উদ্দিন প্রামাণিক, সফল রাজনীতিবিদ, মুক্তিযোদ্ধা ও বিশিষ্ট সমাজকর্মী হিসেবে মরহুম মৌলভী আসমত আলী খান, দেশের স্বাধীনতা লাভের পর বাংলাদেশ বিমান বাহিনী গঠন প্রক্রিয়ায় বিশেষ ভূমিকা পালনকারী এফ-৬ সুপার সনিক বিমানের পাইলট স্কোয়াড্রন লিডার (অব.) বদরুল আলম (বীরোত্তম)।

ভাষা আন্দোলনের ক্ষেত্রে অবদান রাখায় পদক পান আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে অমর একুশে ফেব্রুয়ারির (২১ ফেব্রুয়ারি) স্বীকৃতি লাভের ক্ষেত্রে অগ্রণী ভূমিকার জন্য মরহুম রফিকুল ইসলাম ও আবদুস সালাম।

অন্যান্য পদকপ্রাপ্তরা হচ্ছেন : ১৯৭১ সালে রাজশাহী পুলিশ লাইনে পাকিস্তানি দখলদার বাহিনীর হামলার প্রতিরোধে পুলিশ বাহিনী গঠনকারী রাজশাহী জেলার পুলিশ সুপার শহীদ শাহ আবদুল মজিদ, মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক হিসেবে নেতৃত্ব দানকালে পাকিস্তানি দখলদার বাহিনীর হাতে শাহাদাত বরণকারী রাঙ্গামাটির জেলা প্রশাসক এম আবদুল আলী, ১৯৭১ সালে হাতে বাংলাদেশের সংবিধান লেখক ও লন্ডনে পাকিস্তান হাইকমিশনে দায়িত্ব পালনকালে বাংলাদেশ সরকারের পক্ষে স্বপক্ষ ত্যাগকারী মরহুম এ কে এম আবদুর রউফ, ১৯৭১ সালে দিল্লীতে পাকিস্তান হাইকমিশনে দায়িত্ব পালনকালে বাংলাদেশ সরকারের পক্ষে স্বপক্ষ ত্যাগকারী ও দিল্লীতে বাংলাদেশের প্রথম মিশন প্রতিষ্ঠাকারী কে এম শিহাব উদ্দিন এবং মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষে সাংস্কৃতিক কর্মকা- সংগঠনে বিশেষ ভূমিকা পালনকারী সৈয়দ হাসান ইমাম।

এই বিভাগের আরো সংবাদ