৭১৭ ইউপিতে ভোটগ্রহণ চলছে
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » লিড নিউজ

৭১৭ ইউপিতে ভোটগ্রহণ চলছে

voteদেশে প্রথমবারের মতো দলীয় প্রতীকে ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনের ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছে। মঙ্গলবার সকাল থেকে একযোগে দেশের ৩৪টি জেলার ৭১৭টি ইউনিয়ন পরিষদে (ইউপি) ভোটগ্রহণ চলছে।

সকাল ৮ থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত সংশ্লিষ্ট ইউপি এলাকায় টানা ভোটগ্রহণ চলবে। ভোট উপলক্ষে এদিন সংশ্লিষ্ট নির্বাচনী এলাকায় সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে।

স্থানীয় সরকারের সবচেয়ে জনপ্রিয় এই নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ১৪টি রাজনৈতিক দল অংশ নিলেও মূলত লড়াই হবে আওয়ামী লীগের নৌকা এবং বিএনপির ধানের শীষে। সাধারণ ও সংরক্ষিত সদস্য পদে ভোট হবে নির্দলীয় প্রতীকে।

এদিকে গতকাল সোমবার নির্বাচন কমিশনের (ইসি) মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী রকিব উদ্দীন আহমদ জানান, ইউনিয়ন পরিষদের প্রথম ধাপের নির্বাচনের সব প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে।

তিনি বলেন, ভোটের পরিবেশ নিয়ে কোনো শঙ্কা নেই। পরিস্থিতি পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। ভোটে কোনো অনিয়ম হলে সংশ্লিষ্ট এলাকার ওসি ও কেন্দ্রের দায়িত্বে থাকা পুলিশ কর্মকর্তা দায়ী থাকবেন বলে হুঁশিয়ারও করেন সিইসি।

তিনি আরও বলেন, কেন্দ্রে কেন্দ্রে থাকবে পুলিশ, বিজিবি, র‌্যাব, এপিবিএন, আনসার ব্যাটালিয়ন ও আনসার-ভিডিপির প্রহরা। টহলে থাকবে মোবাইল ও স্ট্রাইকিং ফোর্স। প্রতিটি ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্রে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ২০ জন সদস্য থাকবেন।

এসময় সুষ্ঠু ও অবাধ নির্বাচনের জন্য রাজনৈতিক দল, প্রার্থী ও তাদের সমর্থকসহ সবার সহযোগিতা কামনা করেন সিইসি।

শান্তিপূর্ণ পরিবেশে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন উপহার দিতে নির্বাচন কমিশন (ইসি) ইতোমধ্যে ব্যাপক প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে। কমিশনের পক্ষ থেকে নির্বাচনী এলাকায় মাঠে টহল শুরু করেছে বিজিবি, র্যাব, পুলিশ, কোস্টগার্ড ও আনসারসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর এক লাখ ৮০ হাজার সদস্য । একই সঙ্গে ৩৪ জেলার ১০১টি উপজেলায় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের পাশাপাশি জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটরাও অপরাধ তদারকিতে মাঠে রয়েছেন।

উল্লেখ্য, স্থানীয় সরকার নির্বাচনে এবারই প্রথম চেয়ারম্যান পদে দলীয় প্রতীকে ভোট অনুষ্ঠিত হচ্ছে। গত ১১ ফেব্রুয়ারি প্রথম ধাপে ৭৫২ ইউপিতে ভোটগ্রহণের তফসিল ঘোষণা করে ইসি। সীমানা জটিলতা, ভোটার পূর্ণবিন্যাস জটিলতার কারণে ৭৩২ ইউপিতে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনে তিন পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন মোট ৩৬ হাজার ৪৫৬ জন প্রার্থী। এর মধ্যে ৩ হাজার ৩৪ জন সংরক্ষিত পদে। সংরক্ষিত সদস্য পদে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন ৫৪ প্রার্থী। চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ৭ হাজার ৫৭৫ প্রার্থী। এর মধ্যে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন ৫৫ জন। যার বেশিরভাগই আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী। সাধারণ সদস্য পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ২৫ হাজার ৮৪৬ জন প্রার্থী। ইতোমধ্যে সদস্য পদে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন ১৭৯ প্রার্থী।

এদিকে প্রথম ধাপের ইউপি নির্বাচনে ইসির নিবন্ধিত মোট ১৪টি দল অংশ নিচ্ছে। এর মধ্যে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের ৭৩২ জন এবং বিএনপির ৬১৩ জন। মোট ১ কোটি ১৯ লাখ ভোটার রয়েছে ইউপিগুলোতে। বিপরীতে মোট ভোট কেন্দ্রের সংখ্যা ৭ হাজার ৭৮টি।

অর্থসূচক/মাইদুল/

এই বিভাগের আরো সংবাদ