স্বাধীনতা পদক পাচ্ছেন কবি নির্মলেন্দু গুণ
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » বিবিধ

স্বাধীনতা পদক পাচ্ছেন কবি নির্মলেন্দু গুণ

শত বছরের শত সংগ্রাম শেষে,

রবীন্দ্রনাথের মতো দৃপ্ত পায়ে হেঁটে

অতঃপর কবি এসে জনতার মঞ্চে দাঁড়ালেন।

তখন পলকে দারুণ ঝলকে তরীতে উঠিল জল

হৃদয়ে লাগিল দোলা, জন সমুদ্রে জাগিল জোয়ার

সকল দুয়ার খোলা। কে রোধে তাঁহার বজ্রকণ্ঠ বাণী?

গণসূর্যের মঞ্চ কাঁপিয়ে কবি শোনালেন তাঁর অমর-কবিতা খানি:

‘এবারের সংগ্রাম আমাদের মুক্তির সংগ্রাম

এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম।’

‘স্বাধীনতা’ শব্দকে বিশ্লেষণ করে লেখা হয়েছে অনেক কবিতা। সুরে সুরে তৈরি হয়েছে অনেক গান। বাংলাদেশের জন্ম নিয়ে লেখা হয়েছে কবিতা ও গান। এর মধ্যে শামসুর রহমানের ‘স্বাধীনতা তুমি’ কিংবা নির্মলেন্দু গুণের ‘স্বাধীনতা- এই শব্দটি কীভাবে আমাদের হলো’ কবিতার জুড়ি মেলা ভার।

তারা দুজনই পেয়েছেন বাংলা একাডেমি পুরস্কার ও একুশে পদক। এছাড়া শামসুর রহমানের ঝুলিতে স্বাধীনতা পদক থাকলেও দীর্ঘদিন এই পদক বঞ্চিত ছিলেন নির্মলেন্দু গুণ। অবশেষে তাকে দেওয়া হচ্ছে স্বাধীনতা পদক।

সরকার এবার নির্মলেন্দু গুণকে স্বাধীনতা পদক দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে জানিয়েছেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম। তিনি বলেন, ২০১৬ সালের স্বাধীনতা পদকের প্রাথমিক তালিকায় ১৪ ব্যক্তি ও এক প্রতিষ্ঠানকে মনোনয়ন দেওয়া হয়েছিল। ওই তালিকায় নির্মলেন্দু গুণের নাম যুক্ত করা হয়েছে।

এ বিষয়ে সরকারের সংস্কৃতি মন্ত্রণালয় এবং মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের পক্ষ থেকে ইতোমধ্যে যোগাযোগ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন কবি নির্মলেন্দু গুণ। তিনি বলেন, আমি ফেইসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েছিলাম। প্রধানমন্ত্রী আমার দাবিকে গুরুত্ব দিয়ে এর বাস্তবায়ন করতে যাচ্ছেন। প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ। তিনি ব্যক্তিগতভাবে উদ্যোগ নিয়েছেন বলেই এটা হয়েছে।

Nirmolendu Goon

কবি নির্মলেন্দু গুণ।

প্রসঙ্গত, অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত, পাটের জিন নকশা উন্মোচনকারী প্রয়াত বিজ্ঞানী মাকসুদুল আলম, রবীন্দ্র সংগীত শিল্পী রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যাসহ ১৪ বিশিষ্ট ব্যক্তি এবং বাংলাদেশ নৌবাহিনীকে এবারের স্বাধীনতা পদকের জন্য মনোনীয় করে গত ৭ মার্চ বিজ্ঞপ্তি জারি করেছিল মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।

এরপর গত ১০ মার্চ ক্ষোভ প্রকাশ করে নিজের ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েছিলেন নির্মলেন্দু গুণ। এর ৯ দিনের মাথায় এই কবিকে স্বাধীনতা পদকের জন্য মনোনয়নের বিষয়ে জানিয়েছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।

আগামী ২৪ মার্চ ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে সর্বোচ্চ রাষ্ট্রীয় পুরস্কারে ভূষিত করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

১৯৪৫ সালের ২১ জুন নেত্রকোনায় জন্মগ্রহণ করেন নির্মলেন্দু গুণ। তার ছেলেবেলা কাটে নেত্রকোণার বারহাট্টা উপজেলায়। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা ও সাহিত্য বিভাগের শিক্ষার্থী ছিলেন তিনি। স্বাধীনতার আগে থেকেই সমাজতান্ত্রিক রাজনীতিতে জড়িত ছিলেন নির্মলেন্দু গুণ। কবিতা লেখার পাশাপাশি সাংবাদিকতাও করেছেন তিনি।

বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে অনেক কবিতা লিখেছেন নির্মলেন্দু গুণ। এর মধ্যে ‘শেখ মুজিব ১৯৭১’,  ‘সেই রাত্রির কল্পকাহিনী’, ‘স্বাধীনতা- এই শব্দটি কীভাবে আমাদের হলো’, ‘আমি যেন কবিতায় শেখ মুজিবের কথা বলি’ অন্যতম।

অর্থসূচক/বিএন/এমই/

এই বিভাগের আরো সংবাদ