ইডেন জয়ের স্বপ্ন নিয়ে নামছে বাংলাদেশ
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » ক্রিকেট
টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ

ইডেন জয়ের স্বপ্ন নিয়ে নামছে বাংলাদেশ

বাংলাদেশ ক্রিকেটে জাদুর পরশ বুলিয়ে দিয়েছেন হাথুরুসিংহে। শ্রীলঙ্কার এই সাবেক খেলোয়াড় বাংলাদেশের কোচ হয়ে আসার পর পাল্টে গেছে ক্রিকেটের ধরণ। ব্যাটসম্যানদের মারকুটে ভঙ্গিই বদলে দিয়েছে দলের চেহারা। হঠাৎ ক্রিকেট বিশ্বের অন্যতম শক্তি হয়ে উঠেছে হারতে থাকা বাংলাদেশ। জয়ের ধারায় ফেরার সঙ্গে সঙ্গে ওডিআই র‌্যাংকিংয়েও এগিয়েছে টাইগারবাহিনী।

একইভাবে বলা যায়, ২০১৪ সালের শেষ দিকে মাশরাফি-বিন মুর্তজা নেতৃত্বে আসার পর বদলে গেছে দলের চেহারা। টানা পরাজয়ের শিকল থেকে দলকে বের করেছেন তিনি। তামিম-সাকিব-মুশফিক-মাহমুদুল্লাহ-সাব্বির-সৌম্যকে পুঁজি করে বদলে দিয়েছেন ব্যাটিং ফরম্যাট। সেইসঙ্গে ফর্মে আছেন রুবেল-আল আমিন। আর এর সঙ্গে যোগ হয়েছে তাসকিন-মুস্তাফিজের মতো প্রতিভাবান ফাস্ট বোলার।

সব মিলিয়ে এখন বিশ্বের শক্তিশালী দেশগুলোর জন্য হুমকির নাম বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। বদলে যাওয়া বাংলাদেশের চেহারায় মুগ্ধ বিশ্ব ক্রিকেটের সাবেক খেলোয়াড়রা। মাশরাফির নেতৃত্বের প্রশংসায় পঞ্চমুখ বিশেষজ্ঞরা।

Mashrafe & Shakib

টাইগার অধিনায়ক মাশরাফি-বিন মুর্তজা এবং সহ-অধিনায়ক সাকিব আল হাসান।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে আজ বুধবার বাংলাদেশের মুখোমুখি হবে পাকিস্তান। কলকাতার ইডেন গার্ডেন্সে স্থানীয় সময় বেলা ৩টায় ম্যাচটি শুরু হবে। ২০১৪ সালের পর এখন পর্যন্ত বাংলাদেশের বিপক্ষে কোনো সফলতা পায়নি উপমহাদেশের এই ক্রিকেট পরাশক্তি। গত এক বছরে বিশ্বকাপে বদলে যাওয়া টাইগারদের বিপক্ষে ৩টি ওডিআই এবং ২টি টি-টোয়েন্টি খেলে কোনোটিতেই জয় পায়নি পাকিস্তান। সদ্য সমাপ্ত এশিয়া কাপেও শহীদ আফ্রিদির দলের বিপক্ষে রোমাঞ্চকর জয় পেয়েছে মাশরাফিবাহিনী।

এর আগে দেশের মাটিতে আয়োজিত ওডিআই সিরিজে পাকিস্তানকে ধবলধোলাই করেছিল টাইগাররা। একইসময়ে একমাত্র টি-টোয়েন্টিতেও জয় পেয়েছিল বাংলাদেশ।

গত এক বছরের সব সুখের স্মৃতি নিয়ে আজ কলকাতার ইডেন গার্ডেনে খেলতে নামছে তামিম-সৌম্যরা। দারুণ ফর্মে আছেন দেশের সেরা উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান তামিম ইকবাল। এর পাশাপাশি ব্যাটিংয়ের অন্যতম ভরসাস্থলে রূপ নিয়েছেন সাব্বির রহমান। ২০১৫ সালের বিশ্বকাপতো নতুন এক মাহমুদুল্লাহর জন্ম দিয়েছে। তার ব্যাটের উপর ভরসা করেই নিয়মিত জয় পাচ্ছে বাংলাদেশ।

ব্যাটসম্যানদের রাজত্বে বোলারদের সফলতাও কম নয়। টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে সব সময়ের দুর্বল বলে চিহ্নিত বাংলাদেশের বোলাররা যেন যথেষ্ট কিপটা হয়ে যাচ্ছেন। একইসঙ্গে নিয়মিত উইকেট শিকার করছেন তারা। স্পিন নির্ভর বাংলাদেশে হঠাৎ ফাস্ট বোলারদের রাজত্ব শুরু হয়েছে। রুবেল হোসেন ও আল-আমিন হোসেনের বলের ধার আগের চেয়েও বেড়েছে। সেইসঙ্গে যুক্ত হয়েছে তাসকিনের গতি ও মুস্তাফিজের কাটার।

ফাস্ট বোলার রুবেল হোসেন দলের সঙ্গে না থাকলেও টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে মাশরাফির স্কোয়াযে আছেন অপর তিন ফাস্ট বোলার আল-আমিন হোসেন, তাসকিন আহমেদ ও মুস্তাফিজুর রহমান। দেশ সেরা ওপেনার তামিমের সঙ্গে আজও মাঠে নামতে পারেন সৌম্য সরকার। এরপর সাব্বির রহমান, মুশফিকুর রহিম, সাকিব আল-হাসান, মাহমুদুল্লাহ রিয়াদকেও দেখা যাবে একাদশে।

দেশের অন্যতম সেরা অলরাউন্ডার নাসির হোসেনও দলের সঙ্গে ভারতে আছেন, দলের প্রয়োজনে যেকোনো সময় মাঠে নামতে প্রস্তুত তিনি। এছাড়া উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ মিঠুন ও ইমরুল কায়েস, উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান নুরুল হাসান, মুক্তার আলী, শুভাগত হোম, আরাফাত সানি ও কামরুল ইসলাম রাব্বি।

সব মিলেয়ে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সুপার টেনে নিজেদের প্রথম ম্যাচে জয়ের কথা ভাবছেন অধিনায়ক মাশরাফি ও ক্রিকেট সংশ্লিষ্টরা। দেশের ১৬ কোটি মানুষও একই স্বপ্ন দেখছেন। প্রার্থনায় আছে ৩২ কোটি হাত।

অর্থসূচক/এমই/

এই বিভাগের আরো সংবাদ