যমুনা অয়েলের ৪ কর্মকর্তা-কর্মচারির বিরুদ্ধে মামলা
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » চট্টগ্রাম ও বন্দর

যমুনা অয়েলের ৪ কর্মকর্তা-কর্মচারির বিরুদ্ধে মামলা

যমুনা অয়েলের শ্রমিক কল্যাণ তহবিলের ২৭ কোটি ২০ লাখ টাকা শেয়ারবাজারে বিনিয়োগ করায় প্রতিষ্ঠানটির ৪ কর্মকর্তা-কর্মচারির বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।

যমুনা অয়েলের শ্রমিক কল্যাণ তহবিলের ২৭ কোটি ২০ লাখ টাকা শেয়ারবাজারে বিনিয়োগ করায় প্রতিষ্ঠানটির ৪ কর্মকর্তা-কর্মচারির বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। ছবি সংগৃহীত

যমুনা অয়েলের শ্রমিক কল্যাণ তহবিলের ২৭ কোটি ২০ লাখ টাকা শেয়ারবাজারে বিনিয়োগ করায় প্রতিষ্ঠানটির ৪ কর্মকর্তা-কর্মচারির বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। ছবি সংগৃহীত

আজ মঙ্গলবার বিকেলে চট্টগ্রাম বিভাগীয় দ্বিতীয় শ্রম আদালতের বিচারক কাজী শাহিদা নিগারের আদালতে এই মামলা দায়ের করেন যমুনা অয়েলের চাঁদপুর ডিপোর নিরাপত্তারক্ষী জেবল হোসেন।

একইদিনে আদালত মামলার আরজিতে আনা অভিযোগ আমলে নিয়ে আসামিদের হাজির হওয়ার জন্য সমন জারি করেছেন।

অভিযুক্তরা হলেন, যমুনা অয়েল কোম্পানির উপ মহাব্যবস্থাপক (মানবসম্পদ) হাবিবুল মুহিত, সহকারি মহাব্যবস্থাপক মাসুদুল ইসলাম, সিনিয়র সহকারি কাজী ফিরোজ উদ্দিন এবং অফিস সহকারি সেকান্দার।

অভিযুক্ত হাবিবুল মুহিত যমুনা অয়েল কোম্পানি লিমিটেডের শ্রমিকদের অংশগ্রহণ ও কল্যাণ তহবিলের ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান, মাসুদুল ইসলাম সদস্য সচিব এবং বাকি দু’জন সদস্য।

বাদিপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট অমল কুমার চক্রবর্তী বলেন, নিয়মানুসারে কোনও সংগঠন চাইলে তাদের শ্রমিক কল্যাণ তহবিলের টাকার একটি অংশ সরকারি ডিপিএস, সঞ্চয়পত্র এসব খাতে বিনিয়োগ করতে পারে। তবে শেয়ারবাজারে বিনিয়োগের কোনও নিয়ম বা আইন নেই। কিন্তু অভিযুক্তরা পরস্পর যোগসাজশে অন্যদের কাছে গোপন করে কল্যাণ তহবিলের ২৭ কোটি ২০ লাখ টাকা শেয়ারবাজারে বিনিয়োগ করেন। শেয়ারবাজারে দরপতনের কারণে শ্রমিক কল্যাণ তহবিলের সেই টাকা প্রায় নেই বললেই চলে। এজন্য আমার মক্কেল এই ৪ কর্মকর্তা-কর্মচারির বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন।

মামলায় অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে বাংলাদেশ শ্রম আইন, ২০০৬ এর ২৩৫ (২), ২৪০ (১১), ২৪২ (১) ও ২৪৮ ধারা লঙ্ঘনের অভিযোগ আনা হয়েছে।

অর্থসূচক/দেবব্রত রায়/ডিএইচ

এই বিভাগের আরো সংবাদ