রপ্তানিতে নেতিবাচক প্রভাবের শঙ্কায় বিজিএমইএ
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » লিড নিউজ
যুক্তরাজ্যে কার্গো বিমান চলাচলে নিষেধাজ্ঞা

রপ্তানিতে নেতিবাচক প্রভাবের শঙ্কায় বিজিএমইএ

কার্গো বিমান চলাচল নিষেধাজ্ঞার ফলে যুক্তরাজ্যের বাজারে পণ্য রপ্তানিতে নিশ্চিতভাবে নেতিবাচক প্রভাব পড়বে বলে জানালেন বিজিএমইএ সভাপতি মো. সিদ্দিকুর রহমান।

আজ বৃহস্পতিবার এক জরুরি সংবাদ সম্মেলনে দেশীয় তৈরি পোশাক কারখানা মালিকদের সংগঠনের এই নেতা এমন শঙ্কার কথা জানান।

Mr-Md.-Siddiqur-Rahman1-508x400বিজিএমইএ সভাপতি বলেন, যুক্তরাজ্য আমাদের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি বাজার। এ বাজারে কোনো রকম নেতিবাচক প্রভাব পড়ুক তা কাম্য নয়। যখনই আমরা নতুন নতুন বাজারে অনুপ্রবেশ করছি, তখনই একটি তৈরি হওয়া বাজার পেছনের দিকে হাটঁবে তা কখনই কাম্য নয়।

উদ্বেগ প্রকাশ করে সিদ্দিকুর রহমান জানান, বিভিন্ন কারণে সমুদ্রপথে জাহাজীকরণ সম্ভব না হলে আমরা বিমানযোগে পণ্য পাঠিয়ে থাকি। এতোদিন শাহজালাল বিমানবন্দর দিয়ে যুক্তরাজ্যে সরাসরি পণ্য পাঠাতে পারলেও এখন আমাদের সিঙ্গাপুর, হংকং, থাইল্যান্ড ও দুবাই হয়ে পাঠাতে হবে। এতে খরচ বাড়বে। অন্যদিকে সময়ও বেশি লাগবে। অর্থাৎ বিশ্ববাজারে আমাদের প্রতিযোগী সক্ষমতা কমে যাবে।

সরকারের প্রতি দাবি জানিয়ে বিজিএমইএ সভাপতি বলেন, যেহেতু যুক্তরাজ্যের সঙ্গে বাংলাদেশের ব্যবসায়িক সম্পর্ক প্রতিনিয়ত বাড়ছে, তাই বিষয়টিকে গুরুত্ব সহকারে গ্রহণ করে সরকারি পর্যায়ে আলোচনা করে দ্রুত সমাধান হওয়া জরুরি। যুক্তরাজ্য কোন কারণ দেখিয়ে এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে, তা জানতে হবে এবং প্রয়োজনে একটি ক্র্যাশ প্রোগ্রাম গ্রহণ করে সমাধান করতে হবে।

প্রসঙ্গত, পশ্চিমা দেশগুলোর পক্ষে ২০টি দেশের নিরাপত্তা ঝুঁকিতে থাকা ৩৮টি বিমানবন্দরের তালিকা তৈরি করেছে যুক্তরাজ্যের বিমান নিরাপত্তা বিষয়ক দপ্তর। এ তালিকায় রয়েঝে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের নামও।

Sm22XhUsGvdlগত মঙ্গলবার যুক্তরাজ্য সরকারের ওয়েবসাইটে ডিপার্টমেন্ট অব ট্রান্সপোর্টের দেওয়া এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সম্প্রতি ঢাকা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের নিরাপত্তা পরিস্থিতি পর্যালোচনায় দেখা গেছে আন্তর্জাতিক মানদণ্ড নিশ্চিতের প্রয়োজনীয় কিছু বিষয় সেখানে পূরণ করা হয়নি।

আর এসবের প্রেক্ষিতে, সাময়িক পদক্ষেপের অংশ হিসেবে ঢাকা থেকে যুক্তরাজ্যে সরাসরি কার্গো ফ্লাইট ঢুকতে দেওয়া হবে না। পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত এ সিদ্ধান্ত বলবত থাকবে বলে বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

বাংলাদেশ থেকে পণ্য পরিবহনকারী যেসব উড়োজাহাজ অন্য দেশ হয়ে যুক্তরাজ্যে প্রবেশ করবে সেগুলোতে আবারও তল্লাশি চালাতে বলেছে দেশটির সরকার।

বিমান পরিবহনের সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিতে বাংলাদেশ সরকারের সঙ্গে যুক্তরাজ্য সরকার কাজ করছে বলেও বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

অর্থসূচক/এমএইচ/এমই/এসএম

এই বিভাগের আরো সংবাদ