চট্টগ্রাম আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা শুরু শুক্রবার
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » চট্টগ্রাম ও বন্দর

চট্টগ্রাম আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা শুরু শুক্রবার

চট্টগ্রামে নগরীর রেলওয়ে পলোগ্রাউন্ড মাঠে আগামী শুক্রবার থেকে শুরু হচ্ছে মাসব্যাপী চট্টগ্রাম আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা। ২৪তম এই বাণিজ্য মেলার আয়োজন করেছে চট্টগ্রাম চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি।

CTG Trade Fairআজ বুধবার দুপুর সাড়ে ১২টায় আগ্রাবাদ ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারের বঙ্গবন্ধু মিলনায়তনে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, মেলার উদ্বোধনী দিনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ। মেলার উদ্বোধন করবেন গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন।

সংবাদ সম্মেলনে চেম্বারের সভাপতি মাহবুবুল আলম বলেন, বাংলাদেশে বেসরকারিভাবে সবচেয়ে বড় এই বাণিজ্য মেলার আয়োজন করে চট্টগ্রাম চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি। মেলার মূল লক্ষ্য দেশীয় পণ্যকে সবার সামনে তুলে ধরা এবং আন্তর্জাতিক পর্যায়ে পরিচিত করা। আন্তর্জাতিক বাজারে আমাদের পণ্যকে আরও কিভাবে সুপ্রতিষ্ঠিত করা যায় আমরা সেই লক্ষে এগিয়ে যাচ্ছি।

লিখিত বক্তব্যে মেলা কমিটির কো-চেয়ারম্যান সৈয়দ জামাল আহমেদ বলেন, দেশের শিল্পের প্রসার ও মান উন্নয়নে চেম্বার মেলার আয়োজন করে আসছে। বাংলাদেশে এসএমই খাতের বিকাশের লক্ষ্যেই মূলত মেলার আয়োজন।

তিনি বলেন, প্রতিবারের ন্যায় মেলায় বাড়তি নিরাপত্তা বলয় থাকবে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা সবসময় মেলায় নিয়োজিত থাকবেন। তাদের জন্য মেলা চলাকালীন সময় পর্যন্ত স্থায়ী ক্যাম্প তৈরি করা হয়েছে। যারা ৩ শিফটে বিভক্ত হয়ে সার্বক্ষণিক দায়িত্ব পালন করবেন। পাশাপাশি মেলায় ব্যাংক বুথও স্থাপন করা হয়েছে।

বিগত ১২ বছরের মতো এবারও মেলার পার্টনার কান্ট্রি হিসেবে অংশগ্রহণ করছে থাইল্যান্ড। থাইল্যান্ড ছাড়াও  মেলায় বিদেশী দেশগুলোর মধ্যে ভারত, চীন ও ইরান অংশগ্রহণ করছে। এই চারটি দেশ প্রায় ২৩ হাজার বর্গফুট জায়গা নিয়ে বিভিন্ন স্টলের মাধ্যমে তারা তাদের পণ্য সাজাবে।

চার লাখ বর্গফুটের অধিক জায়গা জুড়ে অনুষ্ঠিত মেলায় এবার ১২টি প্রিমিয়ার গোল্ড প্যাভিলিয়ন , ৩টি মেগা প্যাভিলিয়ন, ৮টি প্রিমিয়ার প্যাভিলিয়ন, ২০টি স্ট্যান্ডার্ড প্যাভিলিয়ন, ১৬৬ টি প্রিমিয়ার মেগা প্যাভিলিয়ন, ২২টি মেগা বুথ, ১০টি প্রিমিয়ার গোল্ড বুথ, ১৪টি স্ট্যান্ডার্ড বুথ, তিনটি রেস্টুরেন্টসহ মোট ৩৮টি প্যাভিলিয়ন বসবে। তিনটি আলাদা জোনে বিভক্ত হয়ে মোট ৪৫০টিরও অধিক প্রতিষ্ঠান মেলায় অংশ নেবে।

এছাড়া সামাজিক দায়বদ্ধতার অংশ হিসাবে রেড ক্রিসেন্ট, সন্ধানী ও বিশ্ব সাহিত্য কেন্দ্রের জন্য একটি স্টল বরাদ্দ রাখা হয়েছে। এছাড়া মেলায় আগত দর্শনার্থীদের সুবিধার্থে একটি তথ্য কেন্দ্রসহ জরুরি প্রয়োজনে রেজিস্টার্ড ডাক্তার দ্বারা প্রাথমিক চিকিৎসা প্রদানের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।

মাসব্যাপী এই মেলা সকাল ১০ টা থেকে রাত ১০ টা পর্যন্ত খোলা থাকবে। মেলায় টিকেটের মূল্য রাখা হয়েছে ১০ টাকা।

সৈয়দ জামাল আহমেদ বলেন, মেলার সমাপনী অধিবেশনে ১ম, ২য় ও ৩য় বিবেচিত বুথ ও প্যাভিলিয়নকে  বিশেষ পদক ও মেলায় অংশগ্রহণকারী প্রতিষ্ঠানকে সনদপত্র প্রদান করা হবে। এছাড়া মেলার যাবতীয় তথ্য www.chittagongchamber.com এই ওয়েবসাইটে পাওয়া যাবে।

সংবাদ সম্মলনে চেম্বারের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এই বিভাগের আরো সংবাদ