সেবার মান বাড়াতে ৪ প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে রেলওয়ের চুক্তি
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » লিড নিউজ

সেবার মান বাড়াতে ৪ প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে রেলওয়ের চুক্তি

রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের কুমিল্লার লাকসাম থেকে আখাউড়া পর্যন্ত ডাবল রেললাইন নির্মাণ কাজের সার্বক্ষণিক সুপার ভিশনের জন্য কোরিয়া, জাপান এবং ভারতের ৪টি প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে কনসালট্যান্সি সার্ভিসের চুক্তি করেছে বাংলাদেশ রেলওয়ে।

আজ রোববার দুপুরে রেল ভবনে এই চুক্তি সই হয়। এই চুক্তির আওতায় ১৮৪.৬০ কিলোমিটার ডাবল লাইন নির্মাণ প্রকল্প রয়েছে।

বাংলাদেশ রেলওয়ের পক্ষে মহাব্যবস্থাপক ও প্রকল্প পরিচালক সাগর কৃষ্ণ চক্রবর্তী এবং জাপান, কোরিয়া, ভারত ও বাংলাদেশ যৌথ কোম্পানি দোহা ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি লিমিটেড এর পক্ষে ভাইস প্রেসিডেন্ট সন হি জুং চুক্তিপত্রে সই করেন।

এই চুক্তি আওতায় ডাবল লাইন ৭২ কিলোমিটার লুপ লাইন রয়েছে। এছাড়া ১৩টি বড় সেতুসহ মোট ৪৬টি সেতু ও কালভার্ট নির্মাণ এবং ওই রুটে কম্পিউটারাইজ সিগন্যালিং ব্যবস্থা; আখাউড়া ও লাকসাম রেল স্টেশনসহ ১১টি বি-ক্লাস রেল স্টেশনও নির্মাণ করা হবে। চুক্তি অনুযায়ী, ৬০ মাসের মধ্যে এই প্রকল্পের সম্পূর্ণ কাজ শেষ করতে হবে।

প্রকল্প নির্মাণসহ মোট ব্যয় ধরা হয়েছে ৬ হাজার ৫০৪ কোটি ৫৪ লাখ ৫০ হাজার টাকা। শুধু কম্পিউটারাইজ সিগন্যালিং ব্যবস্থা বাস্তবায়নেই ব্যয় ধরা হয়েছে ২৩১ কোটি ৩৭ লাখ ১৪ হাজার ৩৯৩ টাকা।

এই চুক্তি আওতায় ডাবল লাইন ৭২ কিলোমিটার লুপ লাইন রয়েছে। এছাড়া ১৩টি বড় সেতুসহ মোট ৪৬টি সেতু ও কালভার্ট নির্মাণ এবং ওই রুটে কম্পিউটারাইজ সিগন্যালিং ব্যবস্থা; আখাউড়া ও লাকসাম রেল স্টেশনসহ ১১টি বি-ক্লাস রেল স্টেশনও নির্মাণ করা হবে। চুক্তি অনুযায়ী, ৬০ মাসের মধ্যে এই প্রকল্পের সম্পূর্ণ কাজ শেষ করতে হবে।

প্রকল্পটির বাস্তবায়ন হলে টঙ্গী থেকে চট্টগ্রাম পর্যন্ত ডাবল লাইনের কাজ সম্পন্ন হবে। ফলে এই রুটে ট্রেনের যাত্রাকালীন সময় আরও কমে যাবে। ইতোমধ্যে টঙ্গী ভৈরব থেকে ভৈরব বাজার ও আখাউড়া থেকে চট্টগ্রাম পর্যন্ত ডাবল লাইনের কাজ শেষ হয়েছে।

চুক্তিসই অনুষ্ঠানে রেলপথ মন্ত্রী মো. মুজিবুল হক বলেন, আগামী মে মাসের মাঝামাঝি সময়ে এই প্রকল্পের কাজ শুরু হবে বলে আশা করছি। প্রকল্পটি বাস্তবায়ন হলে যাত্রী পরিবহন ও পণ্য পরিবহন থেকে শুরু করে দেশের সার্বিক যোগাযোগ ব্যবস্থা উন্নত হবে।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন রেলওয়ের সচিব মো. ফিরোজ সালাউদ্দিন, রেলওয়ের মহাপরিচালক মো. আমজাদ হোসেন, অতিরিক্ত মহাপরিচালক (রোলিং স্টক) মো. খলিলুর রহমান প্রমুখ।

অর্থসূচক/এসএমএস/এমই/

এই বিভাগের আরো সংবাদ