‘ঘাস আতঙ্কে’ অস্ট্রেলিয়ার ভিক্টোরিয়া
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » টুকিটাকি

‘ঘাস আতঙ্কে’ অস্ট্রেলিয়ার ভিক্টোরিয়া

অস্ট্রেলিয়ার ভিক্টোরিয়া রাজ্যের ওয়াঙ্গারাট্টা শহরে ছড়িয়ে পড়েছে ‘ঘাস আতঙ্ক’। অস্বাভাবিক হারে ও দ্রুত গতিতে বেড়ে ওঠা টাম্বলওয়েড নামের এসব ঘাসে ছেয়ে গেছে শহরের বিস্তীর্ণ অঞ্চল।

ওয়াঙ্গারাট্টা শহরের এক বাড়িতে বেড়ে ওঠা দ্রুত বর্ধনশীল টাম্বলওয়েড পরিষ্কার করছেন এক ব্যক্তি। ছবি: দ্য গার্ডিয়ান

ওয়াঙ্গারাট্টা শহরের এক বাড়িতে বেড়ে ওঠা দ্রুত বর্ধনশীল টাম্বলওয়েড পরিষ্কার করছেন এক ব্যক্তি। ছবি: দ্য গার্ডিয়ান

স্থানীয় গণমাধ্যমের বরাত দিয়ে সম্প্রতি বিবিসিসহ একাধিক সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়, ঘাস বাড়তে বাড়তে ছেয়ে ফেলছে  আবাসস্থল, বাগান ও গ্যারেজ। এতে ভীষণ অসুবিধায় পড়েছেন স্থানীয় বাসিন্দারা।

তারা বলছেন, বাড়িতে ও আশেপাশে অস্বাভাবিক হারে বেড়ে ওঠা ঘাসগুলো সারাদিন ধরে কেটে রাতে ঘুমাতে যান। সকালে ঘুম থেকে উঠতে না উঠতেই সেই ঘাস বেড়ে ছাদের ওপর পর্যন্ত পৌঁছে যায়। ঘাসগুলোয় আগুন না ধরায় অল্প সময়ের মধ্যে তা সম্পূর্ণ নির্মূল করা বেশ কঠিন হয়ে পড়েছে।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন,  এর ল্যাটিন নাম ‘প্যানিকাম ইফুসাম’। এগুলো দ্রুত বর্ধনশীল। অস্ট্রেলিয়া প্রতিটি রাজ্যে এগুলো দেখা যায়। দ্রুত বর্ধনশীল হলেও এক পর্যায়ে ঘাসগুলো শুকিয়ে মরে যায়। এর কোনও বিষক্রিয়া নেই। তবে কেউ খেলে সামান্য ক্ষতির মুখে পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

তারা বলছেন, সাধারণত অতি শুষ্কতার জন্য ঘাসগুলো বেশি বেড়ে উঠছে। এ ঘাস গবাদি পশুর জন্য ভীষণ ক্ষতিকর। এটি খেলে ইয়েলো বিগ হেড রোগ হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

ভুক্তভোগীদের দাবি, ঘাসগুলোর তত্ত্বাবধানের  দায়িত্ব স্থানীয় কৃষকদের ওপর থাকলেও তাদের গাফিলতির কারণে এ পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে।

অর্থসূচক/ডিএইচ

এই বিভাগের আরো সংবাদ