২০ বছরে প্রথম তেলের দর বাড়ালো ভেনেজুয়েলা
মঙ্গলবার, ১০ই ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » আন্তর্জাতিক

২০ বছরে প্রথম তেলের দর বাড়ালো ভেনেজুয়েলা

অর্থনীতি চাঙ্গা করতে এবার মাঠে নেমেছে ভেনেজুয়েলা। ২০ বছরের ইতিহাসে এই প্রথম জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানো হয়েছে দেশটিতে। যদিও প্রেসিডেন্ট নিকোলা মাদুরো বলছেন, এ দাম বিশ্বের মধ্য এখনও সবচেয়ে কম।

মুদ্রার অবনমনসহ যখন নানা সমস্যায় জর্জরিত দেশটি, ঠিক তখনই এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হলো।oil

অবশ্য দুইদিন আগে চাহিদার সঙ্গে সরবরাহের মধ্য সামঞ্জস্যতা তৈরি করতে তেলের  উৎপাদন জানুয়ারির পর্যায়ে সীমিত রাখতে রাশিয়া, কাতার ও সৌদি আরবের সঙ্গে একমত হয় দেশটি।

বিবিসির খবরে বলা হয়, লিটারে তেলের দর ০.০১  থেকে ০.৬০ মার্কিন ডলার বাড়িয়েছে ভেনেজুয়েলা। যা আগের দামের চেয়ে ৬০০০ শতাংশ বেশি। এ হিসেবে এক লিটার তেলে খরচ পড়ছে ০.১০ ডলার। আজ বৃহস্পতিবার থেকে নতুন এই দর কার্যকর হচ্ছে।

সরকার বলছে, ভেনেজুয়েলার মোট আয়ের ৯৫ শতাংশ তেল থেকে আসে। দরবৃদ্ধির এ সিদ্ধান্তে দেশটির অর্থনৈতিক সংকট দূর হবে। সেইসঙ্গে বছরে ৮০ কোটি মার্কিন ডলার বাঁচবে।

তেলের দর বাড়ানো অত্যন্ত প্রয়োজনীয় হয়ে পড়েছিল জানিয়ে মাদুরো বলেন, এ প্রয়োজনীয়তা থেকেই আমি এ সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

নতুনভাবে ধার্যকৃত এই দাম কিছুই না বলে মনে করেন মাদুরো। তার মতে, এই দাম বিশ্বে এখনও সর্বনিম্ন।

এর আগে সাবেক প্রেসিডেন্ট হুগো শ্যাভেজ ক্ষমতায় থাকাকালে ১৯৮৯ সালে খাদ্য ও পেট্রোলের দাম বাড়ানো হয়। এ ঘটনায় রাস্তায় নেমেছিল মানুষ। প্রাণ হারাতে হয়েছিল অনেককে। পুরো পরিস্থিতি একটা সহিংসতায় রূপ নিয়েছিল। কিন্তু গত কয়েক বছর কিছুটা আরামে থাকলেও দেড় বছরে আন্তর্জাতিক বাজারে তেলের দাম ৭০ শতাংশ নেমে যাওয়ায় আবারও অনামিশা নেমে আসে দেশটির অর্থনীতিতে।

এদিকে তেলের দাম কমে যাওয়া এ খাতের বিনিয়োগকারীরা ঘোর অন্ধকারে নেমেছে। দেউলিয়া হওয়ার মুখে পড়েছে তারা। এখন ভেনেজুয়েলার আগের সম্ভাবনায় ফেরার অপেক্ষায় তারা।

অর্থসূচক/শাহীন

এই বিভাগের আরো সংবাদ