ডরিন পাওয়ারের আইপিওতে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » পুঁজিবাজার

ডরিন পাওয়ারের আইপিওতে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার

ডরিন পাওয়ার জেনারেশন অ্যান্ড সিস্টেমস লিমিটেডের প্রাথমিক গণ প্রস্তাবের (আইপিও) কার্যক্রমের ওপর হাইকোর্টের নিষেধাজ্ঞা ৪ সপ্তাহের জন্য স্থগিত করেছে সুপ্রিমকোর্টের আপিল বিভাগ।

রোববার কোম্পানির আবেদনের প্রেক্ষিতে এই আদেশ দেয় আদালত।

doreen power

ডরিন পাওয়ার জেনারেশনস অ্যান্ড সিস্টেমস লিমিটেডের লোগো

সুপ্রিমকোর্টের আপিল বিভাগের এই আদেশের ফলে কোম্পানিটির আইপিওর চাঁদা গ্রহণ প্রক্রিয়ায় বাধা নেই বলে মনে করছেন আইনজীবীরা।

বাদী পক্ষের আইনজীবী তৌফিকুল ইসলাম বলেন, সুপ্রীমকোর্ট ৪ সপ্তাহের জন্য আইপিও চাঁদা গ্রহণের ওপর নিষেধাজ্ঞা স্থগিত করেছে। এই সময়ে কোম্পানিটির আইপিও কার্যক্রমে বাধা নেই।

কোম্পানি ও ইস্যু ম্যানেজার সূত্রে জানা যায়, আইপিওর সব শর্ত মেনেই ডরিন পাওয়ার নিয়ন্ত্রক সংস্থার অনুমতি নিয়েছে। তবে কিছু বিনিয়োগকারীর আবেদনের ফলে হাইকোর্ট তা স্থগিত করে। এই রায়ের বিরুদ্ধে আপিল বিভাগে কোম্পানির পক্ষ থেকে আপিল করলে সুপ্রীমকোর্ট এই আদেশ দেয়।

তিনি বলেন, সুপ্রীম কোর্টের আদেশের কপি বিএসইসিতে জমা দেওয়া হবে। বিএসইসির অনুমোদন নিয়ে ফের আইপিও কার্যক্রম শুরু হবে।

প্রসঙ্গত, গত বছরের ৩০ নভেম্বর বিএসইসি’র ৫৬০তম সভায় ডরিন পাওয়ারের আইপিও অনুমোদন দেওয়া হয়। বলা হয়, কোম্পানিটি পুঁজিবাজারে ২ কোটি শেয়ার ছেড়ে ৫৮ কোটি টাকা সংগ্রহ করবে। ১০ টাকা অভিহিত মূল্যের সঙ্গে ১৯ টাকা প্রিমিয়ামসহ ২৯ টাকা মূল্যে শেয়ার ইস্যু হবে।

এই অনুমোদনের পর ৮ থেকে ১৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত সময়ে আইপিওর চাঁদাগ্রহণের কথা ছিল কোম্পানিটির। তবে কয়েকজন বিনিয়োগকারীর আবেদনে ৯ ফেব্রুয়ারি আইপিওর চাঁদাগ্রহণের ওপর স্থগিতাদেশ দেয় হাইকোর্ট। পরবর্তীতে বিএসইসি ১১ ফেব্রুয়ারি এ কোম্পানির আইপিওর চাঁদা গ্রহণ বন্ধ করতে দুই স্টক এক্সচেঞ্জকে নির্দেশ দেয়।

কোম্পানিটির গত ৫ বছরের ওয়েটেড এভারেজ শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ৩ টাকা ১৯ পয়সা। ২০১৪ সালের ৩০ জুন শেষ হওয়া হিসাব বছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ৩৪ টাকা ৮৭ পয়সা।

কোম্পানিটি পুঁজিবাজার থেকে টাকা সংগ্রহ করে ২টি সহযোগী কোম্পানির পাওয়ার প্লান্ট স্থাপন, ব্যাংক ঋণ পরিশোধ এবং আইপিওর কাজে ব্যয় করবে।

উল্লেখ্য, কোম্পানিটির ইস্যু ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে রয়েছে অ্যালায়েন্স ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিস লিমিটেড এবং আইসিবি ক্যাপিটাল ম্যানেজমেন্ট লিমিটেড।

অর্থসূচক/মাহমুদ/শাহীন

এই বিভাগের আরো সংবাদ