ভারত থেকে ১২০টি কোচ আনছে রেলওয়ে
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » অর্থনীতি

ভারত থেকে ১২০টি কোচ আনছে রেলওয়ে

ভারত থেকে ১২০টি অত্যাধুনিক লিংকে হফম্যান বুশ (এলএইচবি) কোচ আমদানি করবে বাংলাদেশ রেলওয়ে। এতে ব্যয় হচ্ছে প্রায় ৪২৬ কোটি টাকা। ভারত রেল মন্ত্রণালয়ের এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার বরাত দিয়ে টাইমস অব ইন্ডিয়ার এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

এতে আরও জানানো হয়েছে, বাংলাদেশের সঙ্গে সম্প্রতি এলএইচবি কোচের সবচেয়ে বড় রপ্তানি চুক্তি করেছে ভারত রেলওয়ে। ওই চুক্তির আওতায় আগামী মার্চে প্রথম চালানে ৪০টি কোচ রপ্তানি করবে ভারত।

ভারত রেল মন্ত্রণালয়ের ওই কর্মকর্তা জানান, বাংলাদেশের সঙ্গে এলএইচবি কোচ রপ্তানি চুক্তি অনুযায়ী ১৭টি প্রথম শ্রেণি এসি কোচ, ১৭টি এসি চেয়ার কোচ, মালগাড়িসহ ৩৪টি নন-এসি চেয়ার কোচ, প্রার্থনা কক্ষসহ ৩৩টি নন-এসি চেয়ার কোচ ও ১৯টি পাওয়া কার কোচ রপ্তানি করবে ভারত।

তিনি জানান, আগামী মাসের শেষ নাগাদ চুক্তির প্রথম চালানে ৪০টি এলএইচবি কোচ বাংলাদেশে পাঠানো হবে। আগামী এক বছরের মধ্যে চুক্তি অনুযায়ী বাকি কোচগুলো বাংলাদেশে পাঠানো হবে। ২০১৭ সালের মার্চের মধ্যেই সব কোচ পাঠানো সম্ভব হবে।

ভারত থেকে ১২০টি অত্যাধুনিক লিংকে হফম্যান বুশ (এলএইচবি) কোচ আমদানি করবে বাংলাদেশ রেলওয়ে। এতে ব্যয় হচ্ছে প্রায় ৪২৬ কোটি টাকা।

ওই কর্মকর্তা জানান, বাংলাদেশের চাহিদা অনুযায়ী কোচগুলোয় কিছু পরিবর্তন আনা হচ্ছে। আধুনিকতম প্রযুক্তি ব্যবহারের পাশাপাশি কোচের ভেতর ও বাইরে নান্দনিক উত্কর্ষের কাজও করা হচ্ছে। বাংলাদেশ রেলওয়ের পছন্দ অনুযায়ী রং করা হবে কোচগুলো।

প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, ভারতের কাপুরথালার রেলকোচ কারখানায় বাংলাদেশের জন্য স্টেইনলেস স্টিলের এলএইচবি কোচ তৈরি হচ্ছে। এর আগে দক্ষিণ-পূর্ব এশীয় ও আফ্রিকার বিভিন্ন দেশে ওই কারখানায় নির্মিত কোচ রপ্তানি হয়েছে। সম্প্রতি রপ্তানি বাজারে বেশ দৃঢ় অবস্থান সৃষ্ট করেছে কারখানাটি। এর আগে ওই কারখানা থেকে মিটারগেজ লাইনের জন্য নির্মিত কোচ রপ্তানি হলেও এই প্রথমবার ব্রডগেজ লাইনের জন্য কোচ বানাচ্ছে কাপুরথালা রেলকোচ কারখানা।

জানা গেছে, ভারতের রেল মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন রাইটস (আরআইটিইএস) লিমিটেডের মাধ্যমে বাংলাদেশে রেলকোচ রপ্তানির এ চুক্তি হয়। বাংলাদেশের পক্ষে এ চুক্তি স্বাক্ষর করে বাংলাদেশ রেলওয়ে। গত বছরের ২১ জানুয়ারি হওয়া ওই চুক্তির ধারাবাহিকতায় একই বছরের ৩০ সেপ্টেম্বর ভারতের কাপুরথালার রেলকোচ নির্মাণ কারখানার সঙ্গে চুক্তি করে রাইটস। ওই চুক্তি মোতাবেকই কাপুরথালায় নির্মিত হচ্ছে এ এলএইচবি কোচগুলো। পরে গত মাসে বাংলাদেশ ও ভারতের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ কাপুরথালার কারখানাটি পরিদর্শন করেন। বাংলাদেশের প্রতিনিধি দলে ছিলেন রেল মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব মো. ফিরোজ সালাউদ্দিন।

প্রসঙ্গত, গত মঙ্গলবার উভয় দেশের মধ্যে নতুন রেলসংযোগ প্রকল্পের জন্য তহবিল বরাদ্দ দেয় ভারত। এরপরই ভারতের পক্ষ থেকে রেলকোচের প্রথম চালান ছাড়ের তথ্য জানানো হয়।

অর্থসূচক/এমই/

এই বিভাগের আরো সংবাদ