সমতায় সিরিজ শেষ
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » খেলাধুলা

সমতায় সিরিজ শেষ

ওয়ালটন চার ম্যাচ টি-২০ সিরিজের চতুর্থ ও শেষ ম্যাচে বাংলাদেশের বিপক্ষে ১৮ রানের জয় তুলে নিয়েছে জিম্বাবুয়ে। এ জয় দিয়ে ২-২ এ সমতায় সিরিজ শেষ করলো এল্টন চিগুম্বুরার দল। ফলে সিরিজ জয় দিয়ে নতুন বছরটা শুরু হলো না টাইগারদের।

আজ শুক্রবার শেখ আবু নাসের স্টেডিয়ামে টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে ১৮০ রান সংগ্রহ করে জিম্বাবুয়ে। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ১ ওভার বাকি থাকতেই ১৬২ রানে অলআউট হয় স্বাগতিকরা।

তামিম ইকবাল ও সৌম্য সরকার। ছবি সংগৃহীত

তামিম ইকবাল ও সৌম্য সরকার। ছবি সংগৃহীত

১৮১ রানের চ্যালেঞ্জিং লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে প্রথমেই খাদে পড়ে বাংলাদেশ। সেই খাদ থেকে আর ওঠে দাঁড়াতে পারেনি মাশরাফি বাহিনী। নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে টাইগাররা।  ১.২ ওভারে মাদজিভার বলে উইকেটের পেছনে দাঁড়ানো মুতুম্বামির হাতে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরেন মারকুটে উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান সৌম্য সরকার (১১)। একই ওভারের ৬ষ্ঠ বলে বোল্ড হয়ে প্যাভিলনে ফেরেন ড্যাশিং উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান তামিম ইকবাল (১)।

২.১ ওভারে চিসোরোর বলে ছোট মাসাকাদজার হাতে ক্যাচ দিয়ে যাওয়া-আসার মিছিলে যোগ দেন সাব্বির রহমান (১)। ওই ওভারেরই ৪র্থ বলে বোল্ড হয়ে ওই দলে যোগ দেন সাকিব আল হাসানও (৪)।

৬.৫ ওভারে সিকান্দার রাজার বলে লুক জংওয়ের হাতে ক্যাচ দিয়ে কিছুটা আশা জাগিয়ে সাজঘরে ফেরেন ব্যাটসম্যান ইমরুল কায়েস (১৮)। ১৩.২ ওভারে সেই সিকান্দার রাজার বলে এল্টন চিগুম্বুরার হাতে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরেন উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান নুরুল হাসান (১৫)।

এরপর ক্রিজে আসেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। তিনি কয়েকটি বাউন্ডারি হাঁকালে প্রথমবারের মতো মনে হয় এ ম্যাচ জেতা সম্ভব। কিন্তু ১৫.৫ ওভারে চিসোরোর বলে বোল্ড হয়ে সাজঘরে ফেরেন মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ (৫৪)।  এরইসঙ্গে বাংলাদেশের জয়ের আশা উবে যায়। তার আগে নিজের টি-২০ ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় অর্ধশতক তুলে নেন টাইগারদের এই মিডলঅর্ডার ব্যাটসম্যান।

১৭.১ ওভারে লুক জংওয়ের বলে সিবান্দার হাতে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরেন মাশরাফি বিন মুর্তজা (২২)। ১৮.৩ ওভারে মাদজিভার বলে বোল্ড হয়ে সাজঘরে ফেরেন আরাফাত সানি (১০)। একই ওভারের শেষ বলে মাসাকাদজার হাতে ক্যাচ দিয়ে প্যাভিলনে ফেরত আসেন আবু হায়দার রনি (১৪)। এরইসঙ্গে শেষ হয় বাংলাদেশের ইনিংস। শেষ পর্যন্ত ১৬২ রান তুলতে সক্ষম হয় টাইগাররা। ফলে ১৮ রানে পরাজয় ঘটে মাশরাফি বাহিনীর।

জিম্বাবুয়ের হয়ে মাদজিভা ৪টি, চিসোরো ৩টি, রাজা ২টি ও জংওয়ে ১টি করে উইকেট লাভ করেন।

এর আগে প্রথমে ব্যাট করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে ১৮০ রান সংগ্রহ করে সফরকারীরা। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৯৩ রান করেন মারকুটে ব্যাটসম্যান হ্যামিল্টন মাসাকাদজা। মাত্র ৫৮ বলে ৮ চার ও ৫ ছক্কায় এই ঝড়ো ইনিংস খেলেন তিনি। এছাড়া জিম্বাবুয়ের বিধ্বংসী ব্যাটসম্যান ম্যালকম ওয়ালারের ব্যাট থেকে আসে ৩৬। আর রিচমন্ড মুতুম্বামি করেন ৩২ রান।

বাংলাদেশের হয়ে রনি, সাকিব, তাসকিন ও মাশরাফি প্রত্যেকে নেন ১টি করে উইকেট।

এই বিভাগের আরো সংবাদ