প্রবৃদ্ধির জন্য অভ্যন্তরীণ চাহিদা বাড়ানো দরকার
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » ব্যাংক-বিমা

প্রবৃদ্ধির জন্য অভ্যন্তরীণ চাহিদা বাড়ানো দরকার

প্রবৃদ্ধির গতিময়তা ধরে রাখতে রপ্তানির পাশাপাশি অভ্যন্তরীণ চাহিদা বৃদ্ধিতে গুরুত্বারোপ করা প্রয়োজন বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর আতিউর রহমান। তিনি একে আরেকটি গ্রোথ ইঞ্জিন যুক্ত করা বলে অভিহিত করেছেন। বৃহস্পতিবার কেন্দ্রীয় ব্যাংক কার্যালয়ে চলতি অর্থবছরের দ্বিতীয় মুদ্রানীতি ঘোষণাকালে তিনি এ কথা বলেন।

Atiur_Monetary Policy_1

আজ বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ ব্যাংক কার্যালয়ে চলতি অর্থবছরের দ্বিতীয় মুদ্রানীতি ঘোষণা গভর্নর আতিউর রহমান। ছবি মহুবার রহমান

আতিউর বলেন, একই পর্যায়ের প্রবৃদ্ধির জন্য আমাদের আরো গতিময়তা দেখাতে হবে। উৎপাদন ও বিনিয়োগ বাড়ানো এবং রপ্তানি পণ্য সম্প্রসারণের মাধ্যমে আমাদের রপ্তানি খাতের আরো উন্নয়ন ঘটাতে হবে। তবে শুধু রপ্তানি বাড়ালেই হবে না। এর সঙ্গে আরেকটি ‘গ্রোথ ইঞ্জিন’ যুক্ত করতে হবে। সেটি হলো আমাদের অভ্যন্তরীণ চাহিদা।

এক প্রশ্নের জবাবে অভ্যন্তরীণ চাহিদার বৃদ্ধি ব্যাখ্যা করতে গিয়ে তিনি বলেন, সাধারণ মানুষের হাতে যতই টাকা বাড়বে, ততই তাদের ব্যয় করার সামর্থ্য বাড়বে। এতে চাহিদা বাড়বে, যা মূলত উৎপাদন বাড়িয়ে দিবে।

একই সাথে জাতীয় সঞ্চয়ের হার আরও বাড়াতে হবে উল্লেক করে গভর্নর বলেন, সঞ্চয়কে উৎপাদনশীল খাতে বেশি করে বিনিয়োগ করতে হবে। এ ক্ষেত্রে আর্থিক খাতকে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে হবে। উৎপাদনশীল খাতে বিনিয়োগের সময় ব্যাংকগুলোকে সব মানুষের কথা খেয়াল রাখতে হবে। শুধু ধনবানদের সুযোগ দিলে হবে না; সুবিধাবঞ্চিতদের জন্যও বাড়তি বিনিয়োগের সুযোগ করে দিতে হবে। এতে আর্থিক খাতের গভীরতা আরও বাড়াবে। একইসঙ্গে অর্থনীতি অন্তর্ভুক্তিমূলক হবে।

তিনি বলেন, ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প এবং কৃষির মতো দ্রুত প্রবৃদ্ধিবান্ধব খাতে সহজে ঋণ সুবিধা পৌঁছে দিতে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নজরদারি ও তদারকি অব্যাহত রয়েছে। এতে করে মুদ্রানীতিতে প্রবৃদ্ধি ও মূল্যস্ফীতি যে লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ হয়েছে তাতে পৌঁছানো সম্ভব হবে।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রধান অর্থনীতিবিদ বিরূপাক্ষ পাল, ডেপুটি গভর্নর আবুল কাশেম, আবু হেনা রাজী হাসান, এস কে সুর চৌধুরীসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এসএমএস/এসবি/ এসএম

এই বিভাগের আরো সংবাদ