প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় এসিডে দগ্ধ তরুণ
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » টুকিটাকি

প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় এসিডে দগ্ধ তরুণ

বিয়ের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় এসিডে প্রেমিকের মুখ ঝলসে দিয়েছেন প্রেমিকা। জন্মদিনের নিমন্ত্রণ করে তাকে বাসায় ডেকে এনে এ কাণ্ড ঘটান তরুণী।

বিয়ের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় এসিডে প্রেমিকের মুখ ঝলসে দিয়েছেন প্রেমিকা। ছবি সংগৃহীত

বিয়ের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় এসিডে প্রেমিকের মুখ ঝলসে দিয়েছেন প্রেমিকা। ছবি সংগৃহীত

মঙ্গলবার ভারতের শীর্ষস্থানীয় সংবাদ মাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়ার এক প্রতিবেদনে বলা হয়, গত রোববার রাতে ভারতের উত্তরপ্রদেশের বিজনোরে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার শিকার ওই তরুণের নাম সুরজ কুমার (২১)।

এ ঘটনায় মান্দাওয়ার পুলিশ স্টেশনে সুরজের পরিবারের পক্ষ থেকে সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে। ডায়েরি সূত্রে জানা গেছে, ওই তরুণীর নাম আফরিন।

সার্কেল অফিসার রামানন্দ কুশওয়া বলেন, ‘এটা প্রণয়-সংক্রান্ত বিষয়। সুরজের বাবা মহেন্দ্র সিংয়ের অভিযোগের ভিত্তেতে ৩২৬এ ধারায় ওই তরুণীর বিরুদ্ধে একটি মামলা নথিভূক্ত করেছে পুলিশ। পুলিশ বিষয়টি তদন্ত করে দেখছে।

চিকিৎসকরা জানান, সুরজের শরীরের ২০ ভাগ পুড়ে গেছে। তিনি এখন শঙ্কামুক্ত। তবে তার চেহারা বিকৃত হয়ে গেছে।

সুরজ কাঁদতে কাঁদতে বলেন, ‘আমি হিন্দু আর আফরিন মুসলমান। ভিন্ন ধর্মে বিশ্বাসী হওয়ায় আমরা বিয়ে করতে পারি না। আমি তাকে বলেছি, আমার বিয়ে ঠিক হয়ে আছে। এ কথা শুনেই সে রেগে উঠে।

সুরজ আরও বলেন, গত রোববার রাতে মেয়েটি তার ইনামপুরের বাড়িতে আমাকে জন্মদিনের অনুষ্ঠানের আমন্ত্রণ জানায়। আমি তার জন্মদিনের পার্টিতে উপস্থিত হই এবং রাতের খাবার খাই। খাবারের পর আমি নিজ বাড়ির উদ্দেশে যাত্রা করি। এসময় সে ফোন করে আমাকে আবার ডাকে। কোনও সন্দেহ ছাড়াই আমি তার বাড়িতে ফিরে আসি। কিন্তু যখন আমি তার বাড়িতে ফিরে আসি তখন সে আমার মুখে এসিড ঢেলে দেয়।  এ অবস্থায় দেখে আমার বন্ধু অর্জুন কুমার আমাকে হাসপাতালে নিয়ে যায়।

জানা গেছে, সুরজ কুমার ও আফরিন বিজনোর একটি ডিগ্রি কলেজে পড়াশোনা করতেন। সুরজ বি.কম এবং আফরিন বিএ পড়তেন। দেড় বছর আগে তারা প্রেমের সম্পর্কে আবদ্ধ হন। এক পর্যায়ে ধর্মীয় বিধিনিষেধ উপেক্ষা করে তারা বিয়ে করারও সিদ্ধান্ত নেয়। কিন্তু সুরজ তার পরিবারকে রাজি করাতে পারেননি। ফলে সে প্রেমের সম্পর্ক বিচ্ছিন্ন করে।

 

এই বিভাগের আরো সংবাদ