গণছুটির হুঁশিয়ারি কেন্দ্রীয় ব্যাংক কর্মকর্তাদের
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » ব্যাংক-বিমা

গণছুটির হুঁশিয়ারি কেন্দ্রীয় ব্যাংক কর্মকর্তাদের

আগামী ১৫ জানুয়ারির মধ্যে দাবি না মেনে নিলে ওই দিন থেকে গণছুটি ও পূর্ণ রকর্মবিরতির ঘোষণা দেওয়ার হুমকি দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তারা।

ধারাবাহিক কর্মসূচির অংশ হিসেবে আজ বুধবার বাংলাদেশ ব্যাংক চত্বরে এক মুলতবি সভার আয়োজন করে বাংলাদেশ ব্যাংক অফিসার্স ওয়েলফেয়ার কাউন্সিল। সভা থেকে এ কর্মসূচির ঘোষণা দেন কাউন্সিলের সভাপতি মো. ছিদ্দিকুর রহমান মোল্লা।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তারা তাদের প্রাপ্য অধিকারের পক্ষে নিয়মতান্ত্রিক কর্মসূচি পালন করে আসছে। কিন্তু সংশ্লিষ্ট পক্ষ থেকে দাবি মেনে নেওয়ার ব্যাপারে দৃশ্যমান কোনো পদক্ষেপ লক্ষ্য করা যাচ্ছে না। এ অবস্থায় আমরা কঠোর কর্মসূচি দিতে বাধ্য হচ্ছি।

সরকারের কিছু আমলারা পরিকল্পিতভাবে বাংলাদেশ ব্যাংকের পর্যাদা হানি করার অপচেষ্টা চালাচ্ছে। তারা বাংলাদেশ ব্যাংকে একটি তাবেদারি প্রতিষ্ঠানে পরিণত করতে চায়। এটি আমরা হতে দিতে পারি না।

কাউন্সিলের সেক্রেটারি মোহাম্মদ শাহরিয়ার সিদ্দিকী বলেন, ২০০৯ সালের সপ্তম বেতন কাঠামোয় বাংলাদেশ ব্যাংকের সহকারি পরিচালকরা বিসিএস ক্যাডার ও পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের সঙ্গে একই গ্রেডে ছিলেন। ৮ম বেতন কাঠামোর গেজেটে তাদেরকে এক ধাপ নিচে নামিয়ে দেওয়া হয়। আমরা মনে করি, এর মাধ্যমে সরকার বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তাদের হেয় করেছে। এটি আমাদের মর্যাদার লড়াই। এ লড়াইয়ে আমাদের জিততে হবে।
তিনি বলেন, সরকারের কিছু আমলারা পরিকল্পিতভাবে বাংলাদেশ ব্যাংকের পর্যাদা হানি করার অপচেষ্টা চালাচ্ছে। তারা বাংলাদেশ ব্যাংকে একটি তাবেদারি প্রতিষ্ঠানে পরিণত করতে চায়। এটি আমরা হতে দিতে পারি না।

এছাড়া অন্য কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে ৭ জানুয়ারি সকাল ১০টা হতে ১১টা পর্যন্ত দাবির স্বপক্ষে গেইট গেদারিং ও অবস্থান কর্মসূচি। ১০ জানুয়ারি ও ১১ জানুয়ারি সকাল ১০টা হতে সাড়ে ১১টা এবং ১২ হতে ১৪ জানুয়ারি পর্যন্ত সকাল ১০টা হতে ১২টা পর্যন্ত একই কর্মসূচি পালন করা হবে।

উল্লেখ, ৮ম জাতীয় বেতন স্কেলে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কর্মকর্তাদের অবনমনের প্রতিবাদ ও সহকারি পরিচালক পদকে ৯ম গ্রেড থেকে ৮ম গ্রেডে উন্নীত করাসহ কয়েকটি দাবিতে ধারাবাহিক কর্মসূচি পালন করছেন ব্যাংটির কর্মকর্তারা। অন্য দাবির মধ্যে রয়েছে, কেন্দ্রীয় ব্যাংকের জন্য একটি স্বতন্ত্র পে-স্কেল প্রদান ও ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক (এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর) পদটি ১ম গ্রেডে উন্নীত করা।

গত ২২ ডিসেম্বর থেকে কর্মকর্তারা মানববন্ধন, কর্মবিরতিসহ নানা কর্মসূচি পালন করে আসছেন। এর অংশ হিসেবে আজ বুধবার বাংলাদেশ ব্যাংক চত্বরে এক মুলতবি সভার আয়োজন করে বাংলাদেশ ব্যাংক অফিসার্স ওয়েলফেয়ার কাউন্সিল। সভায় কাউন্সিলের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ শাহরিয়ার সিদ্দিকীসহ বাংলাদেশ ব্যাংকের সর্বস্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারিরা অংশ নেন।

অর্থসূচক/শাফায়াত/শাহীন

এই বিভাগের আরো সংবাদ