পণ্য রপ্তানির নতুন বাজার খুঁজতে হবে: প্রধানমন্ত্রী
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » লিড নিউজ

পণ্য রপ্তানির নতুন বাজার খুঁজতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, পণ্যের বহুমুখীকরণ করতে হবে। আমাদের উৎপাদিত পণ্যের জন্য বিশ্বে বাজার খুঁজতে হবে। কোন দেশে কোন পণ্যের চাহিদা বেশি- তার বিবেচনায় উৎপাদন ও রপ্তানি পরিকল্পনার ওপর জোর দিতে হবে।

সেই সঙ্গে শিল্পের প্রক্রিয়াজাতকরণে বেসরকারি খাতকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান তিনি।

গতকালে শুক্রবার বিকেলে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ২১তম ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলার উদ্বোধন অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। বক্তব্যের শুরুতেই সবাইকে নতুন বছরের শুভেচ্ছা জানান তিনি।

গতবছরের বাণিজ্য মেলায় ৮৫ কোটি টাকার রপ্তানি আদেশ পেয়েছিলেন বাংলাদেশের ব্যবসায়ীরা। তার আগের বছর পেয়েছিল ৮০ কোটি টাকার রপ্তানি আদেশ।

রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরো আয়োজিত এবারের মেলায় বিশ্বের পাঁচ মহাদেশের ২২টি দেশের বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান অংশ নিচ্ছে। এর মধ্যে এবার প্রথম অংশ নিয়েছে- এমন দেশ রয়েছে ৭টি।

ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায় দেশি-বিদেশি ক্রেতা-বিক্রেতার মধ্যে পরিচয়ের সুযোগ সৃষ্টি হয়- মন্তব্য করে শেখ হাসিনা বলেন, এ আয়োজনে বাণিজ্য এবং উৎপাদিত পণ্যের মান বৃদ্ধিরও সুযোগ সৃষ্টি হয়। গতবছরের বাণিজ্য মেলায় ৮৫ কোটি টাকার রপ্তানি আদেশ পেয়েছিলেন বাংলাদেশের ব্যবসায়ীরা। তার আগের বছর পেয়েছিল ৮০ কোটি টাকার রপ্তানি আদেশ।

খাদ্য প্রক্রিয়াজাতকরণ শিল্পে গুরুত্বারোপ করে তিনি বলেন, আমরা মাছ প্রক্রিয়াজাত করে বিদেশে রপ্তানি করতে পারি। শুধু বিদেশে কেন, দেশেও প্রক্রিয়াজাত মাছের বাজার আছে।

প্রধানমন্ত্রী জানান, এখন বাংলাদেশের ৭২৯ ধরনের পণ্য বিশ্বের ১৯২টি দেশে রপ্তানি হচ্ছে। বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের সময়ে যেখানে বার্ষিক রপ্তানি আয় ছিল দশ বিলিয়ন ডলার। বর্তমানে তা ৩১ বিলিয়ন ডলারে দাঁড়িয়েছে।

তিনি বলেন, বিভিন্ন উন্নত দেশ অর্থনৈতিক মন্দার কারণে তাদের প্রবৃদ্ধি ধরে রাখতে না পারলেও বাংলাদেশ পেরেছে।

মাসব্যাপী এই মেলা প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত উন্মুক্ত থাকবে। প্রাপ্তবয়স্করা ৩০ টাকা এবং শিশু-কিশোররা ২০ টাকায় টিকিট কিনে মেলায় প্রবেশ করতে পারবেন।

এই বিভাগের আরো সংবাদ