পোশাক শ্রমিকের ন্যূনতম বেতন ১৫ হাজার টাকা করার দাবি
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » লিড নিউজ

পোশাক শ্রমিকের ন্যূনতম বেতন ১৫ হাজার টাকা করার দাবি

পোশাক শ্রমিকদের ন্যূনতম বেতন ১৫ হাজার টাকা করার দাবি জানিয়েছে গার্মেন্টস শ্রমিক ফ্রন্ট।

মঙ্গলবার রাজধানীর ঢাকা রিপোর্টাস ইউনিটির (ডিআরইউ) গোলটেবিল মিলনায়তনে এক মতবিনিময় সভায় গার্মেন্টস শ্রমিক ফ্রন্টের নেতারা এ দাবি জানায়।

ছবি সংগৃহীত

ছবি সংগৃহীত

গার্মেন্টস শ্রমিক ফ্রন্টের সহ-সভাপতি খালেকুজ্জামান লিপন বলেন, নতুন পে-স্কেল ঘোষণার পর থেকেই নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যের দাম বেড়ে গেছে। ফলে গার্মেন্টস শ্রমিকেরা অর্থনৈতিক দুর্দশার মধ্যে রয়েছে। দেশের অর্থনৈতিক অবস্থা ও মালিকদের সক্ষমতাসহ সামগ্রিক বিবেচনায় একজন পোশাক শ্রমিকের ন্যূনতম মজুরি কমপক্ষে ১৫ হাজার টাকা হওয়া উচিত।

সভায় জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ বলেন, গার্মেন্টস শ্রমিক ফ্রন্ট যতটা মজুরি হওয়া উচিত একজন শ্রমিকের তার চাইতেও কম চেয়েছে। তাই মালিকদের খুশি মনে তাদের এ দাবি মেনে নেওয়া উচিত।

তিনি বলেন, মালিকরা সবসময়ই বলে এবং মুখে হাসি নিয়ে বলে আমাদের সংকট যাচ্ছে। কিন্তু বছর শেষে দেখা যায় নিয়মিত মুনাফাই হচ্ছে। এর কারণ হচ্ছে, এক তারা সরকারের কাছ থেকে সুবিধা আদায় করছে আর একটি হচ্ছে শ্রমিকদের বেতন বৃদ্ধির বিষয়টি যেন দমিয়ে রাখা যায়।

জাতীয় নূন্যতম মজুরি কাঠামো আইন করে বাস্তবায়নেরও দাবি জানান তিনি।

সিপিবি সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম বলেন, বলা হচ্ছে বাংলাদেশ নিম্ন-মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হয়েছে। আমি বলি নিম্ন-মধ্যম আয়ের দেশ হলেই চলবে না বরং নিম্ন-মধ্যম আয়ের মানুষের দেশ হতে হবে। তাই শ্রমিকদের বেতন ১৫ হাজার টাকা করার দাবি যৌক্তিক।

বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দলের (বাসদ) সাধারণ সম্পাদক কমরেড খালেকুজ্জামান ভুইয়া বলেন, এই দেশের গার্মেন্টস শিল্প কখনোই অন্যদেশে যাবে না। কারণ এই দেশের মত সস্তা শ্রম পৃথিবীর আর কোথাও নেই। আমাদের স্বাধীনতা আন্দোলনে সব চেয়ে বেশি জীবন দিয়েছিল মেহনতি মানুষেরাই। তাই স্লোগান আনতে হবে বাংলার মজদুর এক হও তারপরে দুনিয়ার মজদুর স্লোগান।

সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্টের নেতা জাহিদুল হক মিলুসহ গার্মেন্টস শ্রমিক ফ্রন্টের অন্য নেতারা সভায় উপস্থিত ছিলেন।

অর্থসূচক/এমআই

এই বিভাগের আরো সংবাদ