নদী অববাহিকায় ঘন কুয়াশা পড়তে পারে
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » জাতীয়

নদী অববাহিকায় ঘন কুয়াশা পড়তে পারে

মধ্যরাত থেকে সকাল পর্যন্ত দেশের নদী অববাহিকার কোথাও কোথাও মাঝারি থেকে ঘন কুয়াশা পড়তে পারে। সারাদেশের আকাশ অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলাসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে।

আজ শনিবার সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে এ তথ্য জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

টাঙ্গাইল, ময়মনসিংহ, নেত্রকোনা, শ্রীমঙ্গল যশোর ও কুষ্টিয়া অঞ্চলসহ রাজশাহী ও রংপুর বিভাগের উপর দিয়ে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। সেসব অঞ্চলে শৈত্যপ্রবাহ অব্যাহত থাকতে পারে।

পূর্বাভাসে বলা হয়, সারাদেশের আকাশ অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলাসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। মধ্যরাত থেকে সকাল পর্যন্ত দেশের নদী অববাহিকার কোথাও কোথাও মাঝারি থেকে ঘন কুয়াশা পড়তে পারে। এছাড়া দেশের অন্যত্র হালকা থেকে মাঝারি ধরনের কুয়াশা পড়তে পারে।

এতে আরও বলা হয়েছে, টাঙ্গাইল, ময়মনসিংহ, নেত্রকোনা, শ্রীমঙ্গল যশোর ও কুষ্টিয়া অঞ্চলসহ রাজশাহী ও রংপুর বিভাগের উপর দিয়ে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। সেসব অঞ্চলে শৈত্যপ্রবাহ অব্যাহত থাকতে পারে।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, সারাদেশে রাত ও দিনের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

পরবর্তী ৭২ ঘণ্টার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, আগামী ৩ দিনে আবহাওয়ার সামান্য পরিবর্তন হতে পারে।

গতকাল শুক্রবার টেকনাফে ২৮ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়; যা গতকাল দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল। আজকের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে শ্রীমঙ্গলে; যা ৬ দশমিক ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। গতকাল দেশের কোথাও তেমন বৃষ্টিপাত হয়নি।

সিনপটিক অবস্থা সম্পর্কে আবহাওয়া অধিদপ্তরের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, উপমহাদেশীয় উচ্চচাপ বলয়ের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন এলাকা পর্যন্ত বিস্তৃত। স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে।

ঢাকায় বাতাসের গতি ও দিক সম্পর্কে বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, উত্তর/উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে ঘণ্টায় ৮-১২ কিলোমিটার গতিতে প্রবাহিত হচ্ছে। গতকাল ঢাকায় বাতাসের আপেক্ষিক আর্দ্রতা ছিল ৬৭ শতাংশ।

আজ শনিবার ঢাকায় সূর্যাস্ত হবে সন্ধ্যা ৫টা ১৯ মিনিটে এবং আগামীকাল রোববার সূর্যোদয় হবে ৬টা ৩৯ মিনিটে।

এই বিভাগের আরো সংবাদ