মাইগ্রেন সমস্যা দূর হবে সহজে
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » লাইফস্টাইল

মাইগ্রেন সমস্যা দূর হবে সহজে

আজকাল অনেকেই মাইগ্রেনজনিত মাথাব্যাথার সমস্যায় ভুগে থাকেন। সাধারণত অতিরিক্ত চাপ, হরমোনজনিত সমস্যা, উৎকটে গন্ধ, হঠাৎ করে খাদ্যাভ্যাস পরিবর্তন এবং ধূমপানের জন্য এই বেদনাদায়ক সমস্যার সৃষ্টি হয়। অথচ একটু সতর্ক হলেই মাইগ্রেনজনিত এই তীব্র মাথাব্যাথা থেকে রক্ষা পাওয়া সম্ভব।

আজকাল অনেকেই মাইগ্রেনজনিত মাথাব্যাথার সমস্যায় ভুগে থাকেন। ছবি সংগৃহীত

আজকাল অনেকেই মাইগ্রেনজনিত মাথাব্যাথার সমস্যায় ভুগে থাকেন। ছবি সংগৃহীত

এখানে মাইগ্রেনজনিত মাথাব্যাথা থেকে পরিত্রাণ পাওয়ার কয়েকটি সহজ উপায় উল্লেখ করা হলো-

১. নিয়মিত খাবার খান: ব্যস্ত শিডিউলের মাঝেও না খেয়ে থাকা উচিৎ নয়। যে বেলায়, যে খাবার খাওয়া প্রয়োজন; তাই খেতে হবে। ভীষণ ব্যস্ততার মাঝেও সকাল, দুপুর, বিকেল ও রাতের খাবারের জন্য সময় বের করে নিতে হবে। সকালের খাবার দুপুরে বা দুপুরের খাবার বিকেলে খেলে চলবে না। এতে করে মাইগ্রেনের সমস্যা আরও বাড়বে। অন্তত দিনের প্রথম বেলার খাবারটি অবশ্যই পেটপুরে খেতে হবে।

২. পরিশ্রম করুন: কাজের মধ্যে থাকার চেষ্টা করুন। কাজ না থাকলে শারীরিক ব্যায়াম করুন। এজন্য প্রয়োজনে প্রতিদিন একটি নির্ধারিত সময় বের করুন। শারীরিক কসরত মাইগ্রেনজনিত মাথাব্যাথার পরিমাণ উল্লেখযোগ্য হারে কমিয়ে দেয়।

৩. ক্যাফেইন এড়িয়ে চলুন: নানান পানীয় পানের ফলে মাইগ্রেনজনিত মাথাব্যাথার সমস্যার উদ্রেক ঘটে। বিশেষ করে উচ্চ ক্যাফেইনযুক্ত পানীয় পান মাইগ্রেন সমস্যার অন্যতম কারণ। তাই পারতপক্ষে ক্যাফেইনসমৃদ্ধ পানীয় এড়িয়ে চলতে হবে। এক্ষেত্রে ক্যাফেইনযুক্ত পানীয়র পরিবর্তে পানি, জুস খাওয়ার অভ্যাস গড়ে তোলা যেতে পারে।

৪. উজ্জ্বল আলো এড়িয়ে চলুন: উজ্জ্বল ও ফ্লাশিং আলো এড়িয়ে চলুন। বিশেষ করে একজন ব্যক্তি যখন অতিরিক্ত বা তাৎক্ষণিকভাবে কোনও আলোর প্রতি মনোনিবেশ করে তখন তার মাইগ্রেন সমস্যার উদ্রেক ঘটতে পারে। তাই এক্ষেত্রে সচেতন থাকা উচিৎ।

৫. পর্যাপ্ত ঘুমান: নিয়মিত ঘুমানোর চেষ্টা করুন এবং তা ধরে রাখুন। কখনোই যেন ঘুমে হেরফের না ঘটে। অপর্যাপ্ত ঘুম বা অসময়ে ঘুম মাইগ্রেনের সৃষ্টি করে। পারলে প্রতিদিন একইসময়ে ঘুমাতে যান এবং একইসময়ে উঠুন। মাইগ্রেনজনিত তীব্র মাথাব্যাথা থেকে মুক্ত থাকবেন।

এই বিভাগের আরো সংবাদ