২০১৫ সালে গরুর মাংস রপ্তানিতে আয় ৭ কোটি টাকা
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » লিড নিউজ

২০১৫ সালে গরুর মাংস রপ্তানিতে আয় ৭ কোটি টাকা

২০১৫ সালে গরুর মাংস রপ্তানিতে প্রায় ৭ কোটি ২ লাখ ৮৫ হাজার ৯২৪ দশমিক ৮০ টাকা আয় করেছে বাংলাদেশ। সম্প্রতি জাতীয় সংসদের প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে উপস্থাপিত এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

এতে জানানো হয়েছে, গত এক বছরে ২ লাখ ২২৪ দশমিক ৮০ কেজি বা ২০০ টনের বেশি গরুর মাংস রপ্তানি করেছে বাংলাদেশ। যা থেকে আয় হয়েছে প্রায় ৭ কোটি ২ লাখ ৮৫ হাজার ৯২৪ দশমিক ৮০ টাকা।

প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, গরুর মাংস ছাড়াও বাংলাদেশ থেকে নিয়মিত দই, বিফ বোন চিপস ও গরুর লোম রপ্তানি করা হয়। পণ্যগুলো রপ্তানির ক্ষেত্রে মান নিয়ন্ত্রণ সার্টিফিকেট প্রাপ্তি সাপেক্ষে প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তর থেকে ভেটেরিনারি হেলথ সার্টিফিকেট দেওয়া হয়।

জানা গেছে, মান নিয়ন্ত্রণ ল্যাবরেটরি থেকে মাংস রপ্তানির জন্য এনথ্রাক্স ও সালমোনেলা রোগমুক্ত, দই রপ্তানির জন্য সালমোনেলা রোগমুক্ত, বিফ বোন চিপস রপ্তানির জন্য এনথ্রাক্স ও সালমোনেলা রোগমুক্ত, বুলস্টিক রপ্তানির জন্য সালমোনেলা রোগমুক্ত এবং গরুর লেজের লোম রপ্তানির জন্য এনথ্রাক্স রোগমুক্ত সনদ দেওয়া হয়।

বাংলাদেশ থেকে রপ্তানির ক্ষেত্রে প্রতি কেজি গরুর মাংস ৪-৫ মার্কিন ডলার, দই প্রতি কেজি আড়াই ডলার, বিফ বোন চিপস প্রতি টন ৪৮০ মার্কিন ডলার, বুলস্টিক প্রতি কেজি ১ দশমিক ৬ মার্কিন ডলার এবং গরুর লেজের লোম প্রতি কেজি ২ দশমিক ৮ মার্কিন ডলারে রপ্তানি করা হয়।

প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয় থেকে হেলথ সার্টিফিকেট নিয়ে বেঙ্গল মিট প্রসেসিং লিমিটেড ২০১৪-১৫ অর্থবছরে কুয়েত ও দুবাইতে এক লাখ ৩২ হাজার ৫৩২ দশমিক ৮০ কেজি মাংস রপ্তানি করে। এর মধ্যে ১ লাখ ২৪ হাজার ৯৮৫ দশমিক ৮০ কেজি গরুর মাংস এবং ছিল ৭ হাজার ৫৪৭ কেজি ছাগলের মাংস ছিল। একই সময়ে জনতা ফুডস কোরিয়ায় ৫ হাজার ৭১২ কেজি ও মেজিস্টিক এন্টারপ্রাইজ মালদ্বীপে ৫৪ হাজার কেজি গরুর মাংস রপ্তানি করেছে। এছাড়া মেজিস্টিক এন্টারপ্রাইজ মালদ্বীপে ৮০০০ কেজি ছাগল, হাঁস ও মুরগির মাংস রপ্তানি করেছে।

প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, ২০১৪-১৫ অর্থবছরে পুতুল ইমপোর্ট এন্টারপ্রাইজ যুক্তরাষ্ট্রে ৬ হাজার ৪০০ কেজি দই রপ্তানি করেছে। এছাড়া নীলফামারীর এগ্রো রিসোর্স কোম্পানি লিমিটেড ও চট্টগ্রামের মেসার্স এইচ অ্যান্ড বি ট্রেডিং ২০১৪-১৫ অর্থবছরে ৫ হাজার ২৪৫ টন বিফ বোন চিপস রপ্তানি করে। প্রতি ডলার ৭৮ টাকা হিসাবে এর মূল্য দাঁড়ায় ১৯ কোটি ৬৩ লাখ ৭২ হাজার ৮০০ টাকা।

২০১৪-১৫ অর্থবছরে মেসার্স এইচ আর এন্টারপ্রাইজ, এস অ্যান্ড এস ইন্টারন্যাশনাল ও ক্যামেলিয়া ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেড যুক্তরাষ্ট্রে ১ হাজার ৭২৫ দশমিক ১৪ কেজি বুলস্টিক রপ্তানি করে, বাংলাদেশি টাকায় যার মূল্য ১ লাখ ১৫ হাজার ২৯৭ দশমিক ৪৭ টাকা। এছাড়া ২০১৩-১৪ ও চলতি ২০১৫ সালে চট্টগ্রামের সাইনোবাংলা চীনে এবং করোনা ট্রেডিং কোম্পানি থাইল্যান্ডে ১৫ হাজার ৫০০ কেজি গরুর লেজের চুল বিক্রিতে আয় করেছে ৩৩ লাখ ৮৫ হাজার ২০০ টাকা।

এই বিভাগের আরো সংবাদ