সৌদিতে পৌর নির্বাচনে ১৩ নারী প্রার্থীর জয়
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » আন্তর্জাতিক

সৌদিতে পৌর নির্বাচনে ১৩ নারী প্রার্থীর জয়

সৌদি আরবের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো কোনো নির্বাচনে নারী প্রার্থী অংশ নিয়েছেন। গত শনিবার অনুষ্ঠিত দেশটির পৌরসভা নির্বাচনে কাউন্সিলর আসনে জয় লাভ করেছেন কমপক্ষে ১৩ জন নারী প্রার্থী।

Saudi women election

প্রথমবার কোনো নির্বাচনে ভোটাধিকার পাওয়ায় উৎসাহ দেখা গেছে সৌদি নারীদের মাঝে।

এই প্রথমবার সৌদি আরবের নারীরা কোন পাবলিক অফিসের হয়ে নির্বাচনে অংশগ্রহণের সুযোগ পেয়েছেন। নির্বাচনে কাউন্সিল আসনগুলোতে প্রায় ৬ হাজার পুরুষ ও ১ হাজারের মত নারী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন।

রিয়াদের মেয়র ইবরাহিম আল সুলতান বলেন, সৌদি আরবের রাজনৈতিক জীবনে মেয়েরা অবদান রাখবে। এটা আমাদের অগ্রগতির প্রতীক হয়ে থাকবে। নির্বাচিত কাউন্সিলরদের স্বাগতম।

নির্বাচনে বিভিন্ন দায়িত্বে থাকা কর্মকর্তারা জানান, সৌদি আরবের পৌর নির্বাচনে প্রথমবারের মতো ভোট দিয়েছেন নারীরা। প্রথমবারেই মোট ১ লাখ ৩০ হাজার নারী ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন। এর পাশাপাশি প্রায় সাড়ে ১৩ লাখ পুরুষ তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন।

রক্ষণশীল এই মুসলিম দেশ সৌদি আরবের এই নির্বাচনকে মাইলফলক হিসেবে দেখছেন বিশেষজ্ঞরা।

প্রসঙ্গত, সৌদি আরব মূলত রাজ পরিবার নিয়ন্ত্রিত একটি দেশ। অভিজাত ধর্মীয় নেতাদের সমর্থনে রাজ পরিবারের সদস্যরাই এর পরিচালনার দায়িত্বে রয়েছেন। সেখানে মেয়েদের ঘরের বাইরে চলাফেরা এবং কাজ করার ক্ষেত্রে নানা ধরণের বিধিনিষেধ আছে।

ভোটের প্রচারণা চালানোর সময়ও মহিলা প্রার্থীদেরকে পর্দার অন্তরালে থেকে ভোটারদের সঙ্গে কথা বলতে হয়েছে। অথবা পুরুষ প্রতিনিধির সাহায্যে প্রচারণা চালাতে হয়েছে।

সৌদি আরবে নির্বাচন খুবই বিরল ঘটনা। ১৯৬৫ সাল থেকে ২০০৫ পর্যন্ত দীর্ঘ ৪০ বছরে দেশটিতে কোনো নির্বাচন হয়নি। শনিবারের নির্বাচনটি মধ্যপ্রাচ্যের তেল সমৃদ্ধ দেশটির ইতিহাসে মাত্র তৃতীয় ঘটনা।

সৌদি নারীদের ভোটাধিকার দিয়ে গিয়েছিলেন দেশটির প্রয়াত বাদশাহ আবদুল্লাহ। শুধু ভোটাধিকার নয়, রাজতন্ত্রের কর্মচারী হিসেবেও মেয়েদের গুরুত্ব বেড়েছিল আবদুল্লাহর সময়। গত জানুয়ারিতে মারা যাওয়ার আগে তিনি দেশটির সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারণী পরিষদ শুরা কাউন্সিলে ৩০ জন নারীকে নিয়োগ করেছিলেন।

এই বিভাগের আরো সংবাদ