প্রথমবারের মতো ভোট দিচ্ছে সৌদি নারীরা
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » আন্তর্জাতিক

প্রথমবারের মতো ভোট দিচ্ছে সৌদি নারীরা

saudi Women

ছবি: সংগৃহীত

সৌদি আরবের ইতিহাসে নারী ভোটারদের অংশগ্রহণে আজ শনিবার প্রথমবারের মতো নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

দেশজুড়ে চলমান পৌর নির্বাচনে পুরুষদের পাশাপাশি নারীরাও প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। স্থানীয় সময় সকাল আটটায় ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছে। চলবে বিকেল পাঁচটা পর্যন্ত।

এ নির্বাচনকে সৌদি আরবে নারীদের প্রতি বিধিনিষেধ শিথিল করার পদক্ষেপ হিসেবে দেখা হচ্ছে।

উল্লেখ্, বিশ্বের যে সব দেশে নারীরা কঠোর বিধিনিষেধের মধ্যে বসবাস করেন সৌদি আরবের নারীরা তাদের অন্যতম।

সম্পূর্ণ ইসলামি অনুশাসন মেনে চলা সৌদি আরব হচ্ছে সর্বশেষ দেশ যেখানে কেবলমাত্র পুরুষদের ভোটাধিকার ছিল। দেশটিতে নারীদের গাড়ি চালানো নিষিদ্ধ এবং জনসম্মুখে অবশ্যই নারীদের মাথা থেকে পা পর্যন্ত আবৃত করে চলাফেরা করতে হয়।

খবরে জানানো হয়, সৌদি আরবের পৌরসভা পরিষদের শনিবারের নির্বাচনে ৯৭৮ জন নিবন্ধিত নারী প্রার্থী লড়ছেন। অপরদিকে এ নির্বাচনে প্রায় ছয় হাজার পুরুষ প্রার্থী লড়াই করছেন।। নির্বাচনে নারী প্রার্থীদের প্রচার চালাতে হয়েছে পর্দার আড়াল থেকে বা পুরুষ প্রতিনিধির মাধ্যমে। নির্বাচন কর্তৃপক্ষ জানায়, ভোটার হিসেবে প্রায় এক লাখ ৩০ হাজার নারী নিবন্ধিত হয়েছেন। পুরুষ ভোটারের সংখ্যার তুলনায় তা খুব কম। পুরুষ ভোটার ১৩ লাখ ৫০ হাজার।

সৌদি আরবে নির্বাচন একটি ব্যতিক্রমী ঘটনা। ১৯৬৫ সাল থেকে ২০০৫ পর্যন্ত ৪০ বছর দেশটিতে কোনো নির্বাচন হয়নি। সৌদি ইতিহাসে এ নিয়ে তৃতীয়বারের মতো নির্বাচন হচ্ছে।

দেশটিতে প্রথম নিবন্ধিত নারী ভোটার সালমা আল-রাশেদ। তিনি বলেন, ‘পরিবর্তন একটি বিশাল ব্যাপার। নির্বাচন হলো সেই পন্থা, যার মধ্য দিয়ে আমাদের প্রতিনিধিত্ব করার বিষয়টি নিশ্চিত হয়।’

প্রয়াত বাদশাহ আব্দুল্লাহ তার নেওয়া সংস্কার উদ্যোগে বলেছিলেন, সৌদি আরবের নারীদের সঠিক মতামত ও উপদেশ দেওয়ার মতো যে যোগ্যতা আছে, তা তারা দেখিয়েছেন। গত ৩০ জানুয়ারি এই বাদশাহ মারা যাওয়ার আগে দেশটির সর্বোচ্চ উপদেষ্টা পরিষদ শুরা কাউন্সিলে ৩০ জন নারীকে নিয়োগ দিয়ে যান।

আজ কাউন্সিলের ২ হাজার ১০০ আসনে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এর বাইরে এক হাজার ৫০ আসন পূরণ করা হবে বাদশাহর মনোনীত ব্যক্তিদের দিয়ে। নির্বাচনের ফল শিগগিরই ঘোষণা করা হবে।

সূত্র: বাসস

এই বিভাগের আরো সংবাদ