চীনের গোপন কারাগার-নির্যাতন বন্ধে জাতিসংঘের নির্দেশ
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » আন্তর্জাতিক

চীনের গোপন কারাগার-নির্যাতন বন্ধে জাতিসংঘের নির্দেশ

বন্দিদের ওপর নির্যাতন এবং গোপন কারাগার বন্ধে চীনের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে জাতিসংঘের নির্যাতনবিরোধী সংস্থা। চীনে ভিন্নমতাবলম্বী আইনজীবী ও মানবাধীকার কর্মীদের হয়রানি বন্ধেরও আহ্বান জানিয়েছে সংস্থাটি।

China

নির্যাতন বন্ধের দাবিতে চীনে সমাবেশ।

চীনের মানবাধিকার লঙ্ঘন বিষয়ে ২ দিনের শুনানিতে দেশটির সরকারি কর্মকর্তাদের জিজ্ঞাসাবাদ শেষে এ আহ্বান জানানো হয়েছে।

জাতিংঘের নির্যাতনবিরোধী কনভেনশন অনুসারে মানবাধিকার রক্ষায় উন্নতিকল্পে চীনকে ১ বছর সময় দিয়েছে ওই সংস্থা।

জাতিসংঘের নির্যাতনবিরোধী কমিটির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চীনের বিচারব্যবস্থা নিয়ে করা প্রতিবেদনগুলোতে ধারাবাহিকভাবে নির্যাতন ও দুর্ব্যবহারের বিষয় উঠে আসায় এই কমিটি মারাত্মকভাবে উদ্বিগ্ন।

চীনে নির্যাতনের রেকর্ড মূল্যায়ন শীর্ষক ওই শুনানিতে দেশটির সরকারি কর্মকর্তারা অবশ্য তাদের দেশে রাজনৈতিক বন্দি কিংবা গোপন কারাগার থাকার অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। ফৌজদারি অপরাধের বিচারকার্যে স্বীকারোক্তি আদায়ের জন্য নির্যাতন নিষিদ্ধ করা হয়েছে বলেও দাবি করেছেন চীনা কর্মকর্তা। ২০০৮ সালের পর প্রথমবারের মতো শুনানিটি অনুষ্ঠিত হয়।

১০ জন বিশেষজ্ঞের সমন্বয়ে গঠিত জাতিসংঘের ওই কমিটি বলছে, চলতি বছরের জুলাই পর্যন্ত চীনে ২০০ আইনজীবীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে, যাদের অন্তত ২৫ জন এখনও জেলে রয়েছেন। চীনে পুলিশ হেফাজতে আটক আসামিদের ব্যাপক হারে মৃত্যুর ঘটনায় সতর্ক করে দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

জাতিসংঘের নির্যাতনবিরোধী ওই সংস্থার আহ্বানের পরিপ্রেক্ষিতে আজ বৃহস্পতিবার প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে চীন। এক বিবৃতিতে ‘সাম্প্রতিক বছরগুলোতে চীন আইনের শাসন প্রতিষ্ঠাকে সর্বাধিক গুরুত্ব দিচ্ছে বলে উল্লেখ করছেনে দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র হুয়া চুনইং।

এই বিভাগের আরো সংবাদ