ঢাকাকে হারিয়ে শীর্ষে কুমিল্লা
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » ক্রিকেট

ঢাকাকে হারিয়ে শীর্ষে কুমিল্লা

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) ১৭তম ম্যাচে ঢাকা ডাইনামাইটসকে ১০ রানে হারিয়েছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। কুমিল্লার দেওয়া ১৪২ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে ১৩১ রানে থামে ঢাকার ইনিংস।

Mashrafe

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুতর্জার উল্লাস।

চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে আজ বুধবার দুপুর ২টায় ম্যাচটি শুরু হয়। টস জিতে কুমিল্লাকে ব্যাটিংয়ে আমন্ত্রণ জানান ঢাকার অধিনায়ক কুমার সাঙ্গাকারা। প্রথমে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেটের বিনিময়ে ১৪১ রান করে মাশরাফির দল।

১৪২ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে ইনিংসের ৩.২ ওভারে রান আউট হন ঢাকার উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান সৈকত আলী (৮)। ৬.১ ওভারে সাদমান ইসলামকে (১০) বোল্ড করেন শুভাগত হোম। ১১তম ওভারে রান আউট হন অধিনায়ক সাঙ্গাকারা (৩০)। ১৫.৩ ওভারে আবু হায়দারের বলে মাশরাফির হাতে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরেন নাসির হোসাইন (৩২)।

ইনিংসের ১৬.২ ওভারে মাশরাফির বলে বাউন্ডারি লাইনের কাছে ডলার মাহমুদের হাতে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরেন রায়ান টেন ডেসকট (১১)। ১৮.৩ ওভারে আবু হায়দারের বলে শুভাগত হোমের হাতে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরেন ম্যালকম ওয়ালার (১১)।

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের পক্ষে সর্বোচ্চ ৪৫ রানে অপরাজিত থাকেন আসার জাইদি। এছাড়া লিটন দাস ৩১ রান এবং শুভাগত হোম ২১ রান করেন।

অপরদিকে ঢাকা ডাইনামাইটসের পক্ষে ফরহাদ রেজা ও ইয়াসির শাহ ২টি করে এবং মুস্তাফিজুর রহমান, নাসির হোসাইন এবং মোশাররফ হোসেন প্রত্যেকে একটি করে উইকেট নেন।

বিপিএলের চলতি আসরে এ পর্যন্ত ৬টি ম্যাচ খেলে ৪টিতে জয় এবং ২টিতে পরাজিত হয়ে পয়েন্ট টেবিলের দ্বিতীয় স্থানে উঠেছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। অপরদিকে সমান ম্যাচ খেলে ৩টিতে জয় এবং ৩টিতে পরাজয় নিয়ে পয়েন্ট টেবিলের চতুর্থ স্থানে নেমে গেছে ঢাকা ডাইনামাইটস।

ঢাকা ডাইনামাইটস একাদশ:

সৈকত আলী, সাদমান ইসলাম, কুমার সাঙ্গাকারা (অধিনায়ক), নাসির হোসেন, আবুল হাসান, ফরহাদ রেজা, ম্যালকম ওয়ালার, রায়ান টেন ডেসকট, ইয়াসির শাহ, মোশাররফ হোসেন ও মুস্তাফিজুর রহমান।

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স একাদশ:

লিটন দাস, আহমেদ শেহজাদ, ইমরুল কায়েস, আসার জাইদি, অলক কাপালি, মাশরাফি-বিন মুর্তজা (অধিনায়ক), কুলাসেকারা, শুভাগত হোম, সোয়েব মালেক, ডলার মাহমুদ এবং আবু হায়দার।

এই বিভাগের আরো সংবাদ