আরও ২০০ কোটি টাকা আয়কর পাওয়ার আশা এনবিআরের
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » লিড নিউজ

আরও ২০০ কোটি টাকা আয়কর পাওয়ার আশা এনবিআরের

২০১৫-১৬ করবর্ষে আয়কর রিটার্ন (বিবরণী) আদায় হয়েছে ১ হাজার ৫৩৭ কোটি ৩৮ লাখ টাকা। চলতি করবর্ষে আরও ২০০ কোটি টাকা আদায়ের আশা ব্যক্ত করেছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)।

এনবিআরের হিসাব অনুযায়ী, চলতি করবর্ষে ৮ লাখ ১৫ হাজার ৮৯৪ জন করদাতা তাদের আয়কর বিবরণী জমা দিয়েছেন। এছাড়া সময়মতো আয়কর বিবরণী জমা দিতে না পারায় সময় বাড়ানোর জন্য আবেদন করেছেন ২ লাখ ৭৬ হাজার ১৩৮ জন কর শনাক্তকরণ নম্বর বা টিআইএনধারী।

চলতি বছরে প্রথমবারের মতো দেশজুড়ে শীতকালীন আয়কর মেলার আয়োজন করা হয়। ছবি: মহুবার রহমান

চলতি বছরে প্রথমবারের মতো দেশজুড়ে শীতকালীন আয়কর মেলার আয়োজন করা হয়। ছবি: মহুবার রহমান

অর্থাৎ চলতি বছরে আয়কর দিতে আগ্রহী সবার কাছ থেকে আয়কর রিটার্ন জমা নেওয়া সম্ভব হলে আয়কর বিবরণী জমা দেওয়া ব্যক্তির সংখ্যা হবে মোট ১০ লাখ ৯২ হাজার ১৩২ জন। যা গত করবর্ষের তুলনায় ১১ শতাংশ বেশি। ২০১৪-১৫ করবর্ষে আয়কর রিটার্ন জমা দিয়েছিলেন মোট ৮ লাখ ৩৩ হাজার ৯০২ জন।

এনবিআরের সিনিয়র তথ্য কর্মকর্তা সৈয়দ এ মুমেন অর্থসূচককে বলেন, ঢাকা কর অঞ্চলে করদাতাদের সর্বনিম্ন কর সীমা ৫০০০ টাকা। এখন পর্যন্ত যে সব টিআইএনধারী করদাতা তাদের কর পরিশোধ করেননি, তাদের কাছ থেকে সর্বনিম্ন কর সীমা অনুযায়ী হিসাব করে কমপক্ষে ২০০ কোটি টাকা আদায় হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

কমপক্ষে ২০০ কোটি টাকা আয়কর রিটার্ন আদায় করা সম্ভব হলে চলতি বছরে মোট আয়করের পরিমাণ হবে ১ হাজার ৭৩৭ কোটি টাকা। আর ২০১৪-১৫ করবর্ষে আয়কর জমা পড়েছিল ১ হাজার ৩৯০ কোটি ৩৬ লাখ টাকা। অর্থাৎ গত বছরের তুলনায় চলতি বছরে আয়কর রিটার্ন প্রায় ২৫ শতাংশ বেশি।

প্রসঙ্গত, ২০১৪-১৫ অর্থবছরের আয়কর রিটার্ন দাখিলের সময় শেষ হয়েছে গত ৩০ নভেম্বর। এর আগে ২ মাস সময়সীমা বাড়ালেও এবার তা আর না বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে এনবিআর।

আয়কর অধ্যাদেশ অনুযায়ী, টিআইএনধারীদের আয়কর বিবরণী (আয়কর রিটার্ন) জমা দেওয়া বাধ্যতামূলক। আয়কর বিবরণী না দিলে জেল ও জরিমানার বিধান রয়েছে অধ্যাদেশে।

নির্ধারিত সময়ে আয়কর বিবরণী জমা না দিলে এককালীন ১ হাজার টাকা এবং পরবর্তী প্রতিদিনের জন্য বাড়তি ৫০ টাকা হারে জরিমানার বিধান রয়েছে। তবে যৌক্তিক কারণ দেখিয়ে কেউ সংশ্লিষ্ট কর অঞ্চলের সহকারী কর কমিশনার বরাবর আবেদন করলে নির্ধারিত সময়ের পরও বিবরণী জমা নেয় এনবিআর।

এই বিভাগের আরো সংবাদ