ফেসবুকে ছবি দিয়ে ধরা খুনী স্বামী!
বুধবার, ৩রা জুন, ২০২০ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » টেক

ফেসবুকে ছবি দিয়ে ধরা খুনী স্বামী!

স্ত্রীকে হত্যা করে তার মরদেহের ছবি ফেসবুকে দিয়ে খুনি হয়েছেন স্বামী। ঘটনাটি ঘটেছে ফ্লোরিডায়। আজ বৃহস্পতিবার ফ্লোরিডার এক আদালতে মেদিনাকে দোষী সাব্যস্ত করা হয়। বিবিসি এক খবরে এ তথ্য জানিয়েছে।

এ ঘটনায় ৩৩ বছর বয়সী মেদিনাকে ২৫ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

মেদিনার দাবি, আত্মরক্ষার্থেই তিনি স্ত্রীর ওপর গুলি চালান। ছবি এএফপি

মেদিনার দাবি, আত্মরক্ষার্থেই তিনি স্ত্রীর ওপর গুলি চালান। ছবি এএফপি 

প্রতিবেদনে বলা হয়, ডারেক মেদিনা নামের ওই ব্যক্তি তার ফোনেই স্ত্রীর মরদেহের ছবি তোলেন। এরপর তা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছেড়ে দিন। তিনি আদালতকে বোঝাতে ব্যর্থ হন, স্ত্রীর নির্যাতন থেকে আত্মরক্ষার তাকিদে তার উপর গুলি চালান।

মেদিনা বলেন,  স্ত্রী তাকে ছুরি দিয়ে খুন করার হুমকি দিচ্ছিলেন। আর তখনই তিনি স্ত্রীর ওপর গুলি চালান। তবে আহনজীবীরা বলছেন অন্য কথা। তাদের বক্তব্য, গুলি চালানোর মুহূর্তে স্ত্রী ভয়ে জড়োসড়ো হয়ে মেঝেতেই লুটিয়ে পড়েন।

ফেসবুকে ছবি পোস্ট করে তিনি লেখেন, এ জন্য তাকে জেলে যেতে হতে পারে বা তার মৃতুদণ্ড হতে পারে।

আইনজীবীরা প্রমাণ করেন, ২০১৩ সালের আগস্টে মিয়ামিতে গুলি করে হত্যার এ ঘটনার সময় ২৭ বছরের এই নারী ভয়ে আতঙ্কিত হন।

আদালতে শুনানিতে বলা হয়, মেদিনাকে ত্যাগ করতে চেয়েছিলেন স্ত্রী। আর এ কথা তিনি তার বন্ধুদেরকেও জানিয়েছেন। তাই মান সম্মান থেকে বাঁচতে স্ত্রীকে হত্যা করার হুমকি দিয়েছিলেন  মেদিনা।

মিয়ামির অ্যাটর্নি ক্যাথেরিন জানান, অন্তত ইন্টারনেটে কোনো পরিবারই তার মেয়ের এমন মৃত্যুর ছবি দেখতে চায় না।

অর্থসূচক/শাহীন

এই বিভাগের আরো সংবাদ