রাজন ও রাকিব হত্যা মামলায় রায় আজ
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » অপরাধ ও আইন

রাজন ও রাকিব হত্যা মামলায় রায় আজ

সিলেট শেখ সামিউল আলম রাজন (১৪) ও খুলনার রাকিব (১২) হত্যা মামলার রায় আজ। যথাক্রমে ১৪ ও ১০ কার্যদিবসে বিচার-প্রক্রিয়া শেষে আলোচিত এই দুই মামলার রায় ঘোষণার জন্য আজকের দিনটি নির্ধারণ করেছেন উভয় মহানগরের দায়রা জজ আদালত।

rajon

সামিউল আলম রাজনকে অত্যাচারের ছবি।

সিলেটের সরকারি কৌঁসুলি (পিপি) মিসবাহউদ্দিন সিরাজ জানান, রাজন হত্যা মামলার কার্যক্রম বেলা সাড়ে ১১টায় শুরু হবে। তার আগেই আসামিদের কারাগার থেকে আদালতে হাজির করা হবে।

গত ৮ জুলাই চুরির অপবাদে সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়কের কুমারগাঁও বাসস্ট্যান্ডসংলগ্ন শেখপাড়ায় নির্যাতন করে হত্যা করা হয় সিলেটের জালালাবাদ থানা এলাকার বাদেয়ালি গ্রামের সবজি বিক্রেতা রাজনকে। মরদেহ গুম করার সময় ধরা পড়েন একজন। পরে পুলিশ বাদি হয়ে জালালাবাদ থানায় মামলা করে। ফেসবুকে প্রচারের উদ্দেশ্যে নির্যাতনের ভিডিও চিত্র ধারণ করেন নির্যাতনকারীরা। ১২ জুলাই এই ভিডিও চিত্র নিয়ে দেশের একটি সংবাদমাধ্যমে প্রতিবেদন প্রকাশ করে। এরপর অন্যান্য সংবাদমাধ্যমেও ওই বিষয়ে প্রতিবেদন এবং সম্পাদকীয় ছাপা হয়।

ঘটনার পরপরই পালিয়ে সৌদি আরব চলে গিয়েছিলেন মামলার প্রধান আসামি কামরুল ইসলাম। ইন্টারপোলের মাধ্যমে গত ১৫ অক্টোবর দেশে ফিরিয়ে আনা হয় তাকে। তার উপস্থিতিতে মামলার গুরুত্বপূর্ণ ১১ সাক্ষীর পুনরায় সাক্ষ্যগ্রহণের পর একটানা তিন দিন যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষে আদালত রায়ের জন্য আজকের দিনটি ধার্য করেন।

rakib1

গত ৩ আগস্ট বিকেলে খুলনার টুটপাড়ায় শরীফ মোটরস নামের এক মোটরসাইকেলের গ্যারেজে নির্যাতন করে রাকিবকে হত্যা করা হয়।

গত ৩ আগস্ট বিকেলে খুলনার টুটপাড়ায় শরীফ মোটরস নামের এক মোটরসাইকেলের গ্যারেজে নির্যাতন করে রাকিবকে হত্যা করা হয়। এই হত্যা মামলার যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষে গত রোববার দুপুরে খুলনা মহানগর দায়রা জজ আদালতের ভারপ্রাপ্ত বিচারক দিলরুবা সুলতানা রায় ঘোষণার তারিখ ধার্য করেন। আদালতের মোট ১০ কার্যদিবসে বিচার-প্রক্রিয়া শেষ হয়। মামলা হওয়ার ৯৬ দিন পর এই রায় ঘোষণা করা হচ্ছে। মামলার তিন আসামিই বর্তমানে কারাবন্দী।

রাকিবের বাবা মো. নুরুল আলম জানান, তিনি খুনিদের সর্বোচ্চ শাস্তি চান।

মামলার বাদিপক্ষের আইনজীবী মোমিনুল ইসলাম বলেন, আশা করছি আসামিদের দৃষ্টান্তমূলক সর্বোচ্চ শাস্তি হবে।

এই বিভাগের আরো সংবাদ