আ.লীগকে রাজনৈতিক সংকট নিরসনের তাগিদ কমনওয়েলথ প্রতিনিধিদলের

comon wealth

comon wealthদেশে চলমান রাজনৈতিক সংকট দ্রুত নিরসনের জন্য ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগকে তাগিদ দিয়েছেন বাংলাদেশে সফররত কমনওয়েলথের প্রতিনিধিদল।

বুধবার দুপুরে আওয়ামী লীগ সভাপতির ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের নেতাদের সঙ্গে বৈঠকে এ তাগিদ দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশে সফররত কমনওয়েলথের গণতন্ত্র ও রাজনীতি বিষয়ক উপদেষ্টা মার্টিন ক্যাস্ত্রি।

আগামি ৫ জানুয়ারী দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে রাজনৈতিক পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণে এসেছেন কমনওয়েলথের গণতন্ত্র ও রাজনীতি বিষয়ক উপদেষ্টা মার্টিন ক্যাস্ত্রির নেতৃত্বাধীন কমনওয়েলথের ৩ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল ।

এ সফরে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের সঙ্গে বৈঠকের অংশ হিসেবে দুপুরে আওয়ামী লীগ প্রতিনিধি দলের সঙ্গে বৈঠকে করেন তারা। এর আগে নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে বৈঠক করেন তারা। প্রধান বিরোধীদল বিএনপির সঙ্গেও বৈঠক করার কথা জানান প্রতিনিধি দলের প্রধান মার্টিন ক্যাস্ত্রি।

মার্টিন ক্যাস্ত্রি সাংবাদিকদের বলেন, আমরা মাঠ পর্যায়ে বাংলাদেশের রাজনৈতিক পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করতে এসেছি ঢাকায়। ইতোমধ্যে নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে বৈঠক করেছি। এভাবেধারাবাহিকভাবে রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গেও বৈঠক করবো।

মার্টিন ক্যাস্ত্রি বলেন, বাংলাদেশের চলমান সংকট সমাধানে দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে। আমারা ইতোমধ্যে নির্বাচন কমিশনের সাথে বৈঠক করেছি। আজ আমাদের দ্বিতীয় বৈঠক। আমরা চাই চলমান সমস্যার দ্রুত সমাধান হোক। আওয়ামী লীগ চলমান সমস্যা সমাধানের ব্যাপারে আমাদেরকে আশ্বস্ত করেছে।

কমনওয়েল্থ আগে ঘোষণা দিয়েছিল পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হলে নির্বাচনে পর্যবেক্ষক দল পাঠানো হবে না এমন অবস্থান থেকে আপনারা সরে এসেছেন কি না সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে মার্টিন ক্যাস্ত্রি বলেন, আমরা মাঠে থেকে বর্তমান প্ররিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করব। সকল রাজনৈতিক দলের সাথে বৈঠক করে মহাসচিবের কাছে রিপোর্ট পাঠাবো। এরপর নির্বাচনে পর্যবেক্ষক প্রতিনিধি দল পাঠানোর ব্যাপারে তিনি সিদ্ধান্ত নিবেন।

বিএনপির সাথে বৈঠক করবেন কি না এমন প্রশ্নের জবাবে ক্যাস্ত্রী বলেন, আমরা খুব তাড়তাড়ি বিরোধীদলের সাথে বৈঠক করবো।

ইউরোপিয় ইউনিয়ন রাজনৈতিক পরিস্থিতি শান্ত না হলে নির্বাচনী পর্যবেক্ষক দল পাঠাবে না বলে ইতোমধ্যে জানিয়েছেন। আপনারা নির্বাচন পর্যবেক্ষক প্রতিনিধি দল পাঠাবেন কি না এমন প্রশ্নের জাবাবে তিনি বলেন, আগামি নির্বাচনে পর্যবেক্ষক দল পাঠানোর ব্যাপারে কোনো সিদ্ধান্ত হয় নি। রাজনৈতিক পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করে আমরা কমনওয়েলথের মহাসচিবের কাছে রিপোর্ট দিব। পরিস্থিতি বিবেচনা করে মহাসচিব সিদ্ধান্ত নিবেন।

আমরা ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের কাছে জানতে চেয়েছি বিরোধী দল নির্বাচনে আসছে না কেন? চলমান সংকট সমাধান করে একটি অবাধ, সুষ্ঠুও নিরপেক্ষ নির্বাচন করার তাগিদ দিয়েছি। তারা আমাদের আশ্বস্ত করেছে।

বৈঠক শেষে আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ বলেছেন, তারা আমাদের কাছে নির্বাচনের বিষয়ে জানতে চেয়েছেন। বিরোধী দল নির্বাচনে কেন আসছে না? এ বিষয়ে আমরা আমাদের তৎপরতা তাদের অবগত করেছি। তারা এতে সন্তোষ প্রকাশ করেছে।

এ সময় আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহাবুব-উল-আলম হানিফ বলেন, কমনওয়েল্থের তিন সদস্য বিশিষ্ট প্রতিনিধি দল নির্বাচনের ব্যাপারে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন। বিরোধীদলকে নির্বাচনে আনার ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রীর প্রচেষ্টাকেও প্রশংসা করেছেন। তারা আশা প্রকাশ করেছেন আগামি নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হবে।

এরশাদ নির্বাচন করবেন না বলে ঘোষণা দিয়েছেন এবং মনোনয়ন প্রত্যাহারের আদেশ দিয়েছেন তাহলে আগামি নির্বাচন কি একপেশে হয়ে যাচ্ছে সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে হানিফ বলেন, তারা এখনও নির্বাচনে আসার ব্যাপারে আমরা আশাবাদী। সকলের অংশগ্রহণে আগামি নির্বাচনে সুষ্ঠু হবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

তিনি বলেন, আগামি নির্বাচনে কমনওয়েলথ পর্যবেক্ষক দল পাঠানোর বিষয়ে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। তবে এ বিষয়ে নিশ্চিত করে কিছু বলেন নি।

বৈঠকে আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে উপস্থিত ছিলেন সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ডা. দীপু মনি, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক কর্ণেল (অব.) ফারুক খান, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক আফজাল হোসেন।

এমআইকে/এএস