মর্গে যাওয়ার পথে বেঁচে উঠলেন 'মৃত' !
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » টুকিটাকি

মর্গে যাওয়ার পথে বেঁচে উঠলেন ‘মৃত’ !

হয়তো অনেকে কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ছোটগল্প ‘জীবিত ও মৃত’ পড়ে থাকতে পারেন। আর যারা পড়েছেন তাদের নিশ্চয়ই মনে আছে সেই দৃশ্য। যেখানে চিতা থেকে হঠাৎ বেঁচে উঠেন ‘মৃত’ কাদম্বরী। সম্প্রতি ঠিক এরকমই এক ঘটনা ঘটেছে মুম্বাইতে।

মর্গে লাশ

মর্গে লাশ

গত ১ নভেম্বর মুম্বাই এর বৃহন্মুম্বই এলাকায় প্রকাশ নামে এক ভবঘুরে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন। এরপর ৫০ বছর বয়সী ওই ভবঘুরেকে নিকটস্থ একটি হাসপাতালে ভর্তি করেন পুলিশ। এসময় হাসপাতালে দায়িত্বরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন এবং  তার দেহ ময়নাতদন্তের নির্দেশ দেন।

এরপরই ঘটে লোমহর্ষক ঘটনাটি। মর্গে যাওয়ার পথে হঠাৎ প্রকাশের পেট ওঠানামা শুরু করে।এই ‘ভুতুড়ে’ দৃশ্য দেখে বেজায় ঘাবড়ে যান  হাসপাতাল কর্মচারীরা। তবে এদের মধ্যে একজন সাহস করে প্রকাশের নাকের কাছে হাত রাখেন। তিনি সেখানে গরম নিঃশ্বাসের উপস্থিতি টের পান। তাৎক্ষণিক এই খবর জানানো হয় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে।

পরে তড়িঘড়ি  প্রকাশকে আইসিইউতে ভর্তি করা হয়।এরপর চিকিৎসকদের নিবিড় তত্ত্বাবধানে তিনি বেঁচে উঠেন।বিশ্বকবির গল্পে ‘বেঁচে’ ওঠার পর কাদম্বরীর পরিণতি হয় অত্যন্ত দুঃখের। এখন দেখা যাক প্রকাশের পরিণতি কি হয়।

তবে এ ঘটনা নিয়ে পুলিশ ও হাসাপাতালের চিকিৎসকদের মধ্যে চলছে তুমুল বাকবিতণ্ডা। পুলিশ বলছে, চিকিৎসকের অবহেলার কারণে প্রকাশের এ পরিণতি হয়। আর চিকিৎসকরা বলছেন, পুলিশের তড়িঘড়ির কারণে চটজলদি এই  সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হন তারা।

এই বিভাগের আরো সংবাদ