টাইটানিকের বিস্কুট নিলামে, বিক্রি ১৮ লাখ টাকায়
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » টুকিটাকি

টাইটানিকের বিস্কুট নিলামে, বিক্রি ১৮ লাখ টাকায়

হোয়াইট স্টার লাইনের ব্যবস্থাপনায় ১৯০৯ সালের ৩১ মার্চ একটি জাহাজের নির্মাণ কাজ শুরু করেছিল হারল্যান্ড অ্যান্ড ওল্ফ শিপইয়ার্ড। ১৯১২ সালের ২ এপ্রিলে এই জাহাজের নির্মাণ কাজ শেষ হয়।

১৯১২ সালের ১০ এপ্রিল টাইটানিক নামের ওই জাহাজটি নিউ ইয়র্কের সাউথাম্পটন থেকে যাত্রা শুরু করে। দীর্ঘ যাত্রাকে আনন্দময় করতে সব রকম ব্যবস্থাই ছিল জাহাজটিতে। খাবার ও বিনোদন কোনো কিছুরই কমতি ছিল না। ২২২৪ জন যাত্রী এবং ক্রু নিয়ে চারদিনে প্রায় ৩৭৫ মাইল অতিক্রম করেছিল জাহাজটি। যাত্রা শুরুর চারদিন পর ১৪ এপ্রিল ধ্বংস হয় টাইটানিক।

Titanic

১০৩ বছর আগে টাইটানিক জাহাজের যাত্রীদের জন্য বরাদ্দকৃত স্পিলার্স অ্যান্ড বেকার্সের পাইলট ব্র্যান্ডের একটি বিস্কুট।

১০৩ বছরে বেশ কয়েকবার আলোচনার শীর্ষে উঠেছে ডুবে যাওয়া জাহাজ টাইটানিক। উদ্ধার হয়েছে ওই জাহাজের বিভিন্ন বস্তু; বিভিন্ন সময়ে নিলামে বিক্রি হয়েছ টাইটানিকের অনেক চিহ্ন। জাহাজ ডুবে যাওয়ার কাহিনী নিয়ে সিনেমাও নির্মাণ করেছে হলিউড। ওই সিনেমা নির্মাণের পর পৃথিবীজুড়ে আরও বেশি আলোচিত হয়েছে টাইটানিক।

আবারও বিশ্বজুড়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমের শিরোনামে এসেছে টাইটানিকের নাম। গত বুধবার ইংল্যান্ডের নিলাম ঘরে বিক্রি হয়েছে টাইটানিক জাহাজের যাত্রীদের জন্য বরাদ্দকৃত একটি বিস্কুট। এর মূল্য উঠেছে ২৩ হাজার মার্কিন ডলার (প্রায় ১৮ লাখ ৪০ হাজার টাকা)।

দ্য টেলিগ্রাফের এক প্রতিবেদনে জানানো হয়, জেমস ফেনউইক নামে টাইটানিকের এক যাত্রীকে এই বিস্কুটটি খাওয়ার জন্য দেওয়া হয়েছিল। টাইটানিক যখন ডুবে যাচ্ছিল, তখন নিজেকে বাঁচাতে কার্পেথিয়া নামের একটি জাহাজে উঠেন তিনি। জীবন-মুত্যুর সন্ধিক্ষণে স্পিলার্স অ্যান্ড বেকার্সের পাইলট ব্র্যান্ডের সেই বিস্কুটটি আর খাওয়া হয়নি তার। আবারও বিস্কুটটি তিনি ফেলেও দেননি; দুর্যোগের স্মৃতি হিসেবে সংরক্ষণ করেছিলেন সেটি। ১০৩ বছর পর কোডাক ফিল্মের খামে মোড়ানো বিস্কুটটি সম্পূর্ণ অক্ষত অবস্থায় নিলামে উঠানো হল।

এই বিভাগের আরো সংবাদ