ডিমে কমে ওজন আর ক্যান্সার-ডায়াবেটিস ঝুঁকি!
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » লাইফস্টাইল

ডিমে কমে ওজন আর ক্যান্সার-ডায়াবেটিস ঝুঁকি!

ডিম খেলে কোলেস্টেরল বাড়ে- হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি বাড়ে এমন ধারণা প্রচলিত থাকলেও তা উড়িয়ে দিয়েছেন একদল বিশেষজ্ঞ। বেশি বেশি ডিম খাওয়ার পরামর্শ দিয়ে তারা বলছেন, মাত্র ২টি ডিম নারীর দৈনিক প্রোটিন চাহিদার ২৫ শতাংশ পূরণ করতে পারে। শুধু তাই নয় শর্করা কমিয়ে প্রতিদিন ডিম খেলে মাসে ৩ পাউন্ড পর্যন্ত ওজন কমানো সম্ভব। এছাড়া সপ্তাহে ৪টি ডিম খেলে টাইপ-টু ডায়াবেটিসের ঝুঁকি ৩৭ শতাংশ কমে। আর সপ্তাহে ৬টি ডিম খেলে স্তন ক্যানসারের আশঙ্কা ৪০ শতাংশ কমে।

২টি ডিম নারীর দৈনিক প্রোটিন চাহিদার ২৫ শতাংশ পূরণ করতে পারে। ছবি: সংগৃহিত

২টি ডিম নারীর দৈনিক প্রোটিন চাহিদার ২৫ শতাংশ পূরণ করতে পারে। ছবি: সংগৃহিত

বিশ্ব ডিম দিবস উপলক্ষে আজ ৯ অক্টোবর শুক্রবার রাজধানী ঢাকায় এক অনুষ্ঠানে ফুড সেফটির অ্যাডভাইজার হাসান আহমেদ চৌধুরী বলেন, ডিম অত্যন্ত পুষ্টিকর এবং নিরাপদ খাদ্য। শর্করা কমিয়ে প্রতিদিন ডিম খেলে, মাসে ৩ পাউন্ড পর্যন্ত ওজন কমানো সম্ভব!

শর্করা কমিয়ে প্রতিদিন ডিম খেলে মাসে ৩ পাউন্ড পর্যন্ত ওজন কমানো সম্ভব। ছবি: সংগৃহিত

শর্করা কমিয়ে প্রতিদিন ডিম খেলে মাসে ৩ পাউন্ড পর্যন্ত ওজন কমানো সম্ভব। ছবি: সংগৃহিত

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেটেরিনারি প্যাথলজির প্রফেসর ড. এ এস মাহফুজুল বারী বলেন, ডিমে আছে ভিটামিন এ, ই, বি৬, বি১২, ফোলেট, ফসফরাস, প্রায় সব ধরনের ক্যালসিয়াম, আইরন, জিংক, ম্যাঙ্গানিজ, সেলিনিয়াম, থিয়ামিন, প্রায় সব গুরুত্বপূর্ণ অ্যামিনো এসিড, প্যানথোথেনিক এসিড ইত্যাদি।

সপ্তাহে ৪টি ডিম খেলে টাইপ-টু ডায়াবেটিসের ঝুঁকি ৩৭ শতাংশ কমে। ছবি: সংগৃহিত

সপ্তাহে ৪টি ডিম খেলে টাইপ-টু ডায়াবেটিসের ঝুঁকি ৩৭ শতাংশ কমে। ছবি: সংগৃহিত

স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ডা.মো. বিল্লাল আলম বলেন, ডিম খেলে কোলস্টেরল বাড়ে- হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি বাড়ে এমন ধারণা একেবারেই অমূলক।

শের-ই-বাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ফ্যাকার্টি অব ভেটেরিনারি অ্যান্ড এনিমেল সায়েন্স এর ডিন অধ্যাপক ড. মোফাজ্জল হোসেন বলেন, ডিমে কোলস্টেরল আছে, তবে তা ক্ষতিকর নয়; বরং উপকারী। আধুনিক বিজ্ঞান বলছে- সপ্তাহে ৪টি ডিম খেলে টাইপ-টু ডায়াবেটিসের ঝুঁকি ৩৭ শতাংশ কমে যায়। সপ্তাহে ৬টি ডিম খেলে স্তন ক্যানসারের আশঙ্কা ৪০ শতাংশ কমে।

সপ্তাহে ৬টি ডিম খেলে স্তন ক্যানসারের আশঙ্কা ৪০ শতাংশ কমে। ছবি: সংগৃহিত

সপ্তাহে ৬টি ডিম খেলে স্তন ক্যানসারের আশঙ্কা ৪০ শতাংশ কমে। ছবি: সংগৃহিত

গবেষকরা বলেছেন, লিভার বা যকৃৎ প্রতিনিয়ত প্রচুর পরিমাণে কোলেস্টেরল তৈরি করে। তবে ডিম খেলে লিভারে কম পরিমাণে কোলেস্টেরল তৈরি করে। এক গবেষণায় দেখা গেছে, ৭০ শতাংশ মানুষের ক্ষেত্রে ডিম খারাপ কোলেস্টেরল বৃদ্ধি করে না। এছাড়া ডিম খাওয়ার সাথে হৃদরোগ ও স্ট্রোক এর কোনো সম্পর্ক নেই।

সপ্তাহে ৬টি ডিম খেলে স্তন ক্যানসারের আশঙ্কা ৪০ শতাংশ কমে। ছবি: সংগৃহিত

সপ্তাহে ৬টি ডিম খেলে স্তন ক্যানসারের আশঙ্কা ৪০ শতাংশ কমে। ছবি: সংগৃহিত

মুরগীর ডিমের গুনাগুণ

ডিম সর্বোৎকৃষ্ট মানের প্রোটিন বা আমিষের উৎস। সবার খাদ্য চাহিদা যোগায়। গর্ভবতী মা ও শিশুর জন্য প্রধানত আমিষ ও প্রোটিনের উৎস ডিম। স্মৃতি ও মস্তিস্ক উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ উপাদান কলিন এর উৎসও ডিম। স্বাদে অতুলনীয়। সহজলভ্য ও সাশ্রয়ী মূল্য ডিমের। রোগ প্রতিরোধে সাহায্য করে। ঊয়স জনিত কারণে চোখে কম দেখা, সাময়িক অন্ধত্ব , ম্যাকুলার ডিজেনারেশন প্রতিরোধ করে।

অর্থসূচক/এমএইচ

 

 

 

 

 

 

 

 

 

এই বিভাগের আরো সংবাদ