মাশরাফির জন্মদিন আজ, টুইট আইসিসির
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » ক্রিকেট

মাশরাফির জন্মদিন আজ, টুইট আইসিসির

বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজার ৩২তম জন্মদিন আজ সোমবার। ১৯৮৩ সালের এই দিনে নড়াইলে নানাবাড়ীতে জন্মগ্রহণ করেন তিনি। মাশরাফি জন্মদিনে শুভেচ্ছা জানিয়ে টুইট করেছে বিশ্ব ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি।

টুইটে আইসিসি লিখেছে, হ্যাপি বার্থডে টু ওডিআই ক্যাপ্টেন, মাশরাফি মুর্তজা।

মাশরাফি বিন মুর্তজা

মাশরাফি বিন মুর্তজা

মাশরাফির বাবা গোলাম মুর্তজা পেশায় একজন ব্যবসায়ী এবং মা হামিদা মর্তুজা গৃহিনী। ডাকনাম কৌশিক। এ নামেই এলাকায় সমধিক পরিচিত তিনি।

নব্বইয়ের দশকে নড়াইলের ক্রিকেটার ও সংগঠক শরীফ মোহাম্মদ হোসেন উঠতি তরুণদের যত্ন নিতেন। মাত্র ১১ বছর বয়সে মাশরাফিকে ক্লাব নড়াইল ক্রিকেট ক্লাবে খেলার সুযোগ করে দেন তিনি। ওই সময় থেকেই মাশরাফির বলের সুইং আর গতি নজরে পড়তে শুরু করে।

১৯৯১ সালে মাগুরায় বিকেএসপির প্রতিভা অন্বেষণ ক্যাম্পের বিকেএসপি কোচ বাপ্পির সান্নিধ্যে বোলিংয়ের বেশকিছু মৌলিক বিষয়ের সঙ্গে পরিচিত হন মাশরাফি। পরের বছর জাতীয় কোচ ওসমান খান নড়াইলে এক প্রশিক্ষণ ক্যাম্প চালান। ওই সময় মাশরাফির আমন্ত্রণ আসে খুলনায় খেলার জন্য। শুরুতেই খুলনায় তার গতি ও সুইং হইচই ফেলে দেয়। সেই সূত্রে খুলনা বিভাগীয় অনূর্ধ্ব-১৭ দলে সুযোগ এবং ঢাকায় আসা।

জন্মদিনে আইসিসির টুইট

জন্মদিনে আইসিসির টুইট

পরবর্তীতে সুযোগ পান জাতীয় অনূর্ধ্ব-১৯ দলে। ওই সময় বোলিং কোচ অ্যান্ডি রবার্টসের পরিচর্যায় পাল্টে যান মাশরাফি। অনূর্ধ্ব ১৯ দলে থাকতে থাকতে মাশরাফির দারুন পারফরম্যান্সের কারণে জিম্বাবুয়ে দলের বিরুদ্ধে ‘এ’ দলের খেলায় সুযোগ পান। এ নিয়ে সমালোচনাও কম হয়নি।  কারণ ঢাকার কোনো সিনিয়র ডিভিশন লীগ না খেলেই এতে সুযোগ পান তিনি। তবে সমালোচকদের মোক্ষম জবাব দিতেও সময় নেননি মাশরাফি। সেই সিরিজে এক ম্যাচে চার উইকেট নিয়ে নির্বাচকদের নজর কাড়েন তিনি। এরপর নিউজিল্যান্ড সফরে দুর্দান্ত পারফরম্যান্সে বনে যান ‘নড়াইল এক্সপ্রেস’। এরপর ইনজুরি ছাড়া আর কেউ মাশরাফি বিন মর্তুজাকে আটকাতে পারেনি।

এর পর বাকিটুকু হয়ে থাকবে শুধু ইতিহাস। বর্তমানে তিনি বাংলাদেশের ওয়ানডে ও টি-২০ ক্রিকেট দলের দলনেতার ভূমিকায় রয়েছেন।

মাশরাফির ছয়-সাত বছর বয়সের সময় তার নানার বন্ধু শৌখিন হস্তরেখাবিদ নেপাল সরকার মাশরাফির হাত দেখে বলেছিলেন, এই ছেলে বড় হয় উচ্ছন্নে যাবে অথবা কালজয়ী কোনো ভূমিকা রাখবে। আর মাশরাফি হয়েছেন বাংলাদেশের গর্বই।

মাশরাফির জন্মদিনে পৃথক শুভেচ্ছা জানিয়েছেন সতীর্থ ও জাতীয় টেস্ট দলের অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম, সাকিব আল হাসান. মাহমুদুল্লাহ রিয়াদসহ আরো অনেকে।

এছাড়া প্রিয় খেলোয়াড়ের জন্মদিনকে শুভেচ্ছা জানাতে ভুল করেননি তার ভক্ত সর্মথকরা। তারা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক-টুইটার এবং ইনস্ট্রগ্রামে শুভেচ্ছা জানাচ্ছেন প্রিয় ম্যাশকে। সবার একটাই দোয়া তাদের প্রিয় মাশরাফি যেন বাকি জীবনটুকু বিলিয়ে দেন দেশের জন্য।

আজকের এই খুশির দিনে ক্যাপ্টেন মাশরাফির জন্য অন্যরকম আনন্দই বটে। কারণ আজকের এই দিনে জন্ম নেয় মাশরাফি ও সুমি দম্পত্তির দ্বিতীয় সন্তান সাহেল মুর্তজা। ২০১৪ সালে আজকের এই দিনে ঢাকায় তার ছেলে জন্মগ্রহণ করে।

বৈচিত্রময় ক্রিকেট ক্যারিয়ারে তিনি মাত্র ৩৬টি টেস্ট ম্যাচ খেলেছেন। ইনজুরি বাঁধা হয়ে না দাঁড়ালে হয়তো এখন তিনি টেস্ট দলে সক্রিয় থাকতেন। টেস্ট না খেললেও সীমিত ওভারের খেলায় সামনে থেকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন। জাতীয় দলের হয়ে এখন পর্যন্ত ১৫৭টি একদিনের ম্যাচ ও ৩১টি টি-২০ ম্যাচ খেলেছেন তিনি।

 

এই বিভাগের আরো সংবাদ