টাইটানিকের ‘শেষ’ মেন্যু বিক্রি
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » টুকিটাকি

টাইটানিকের ‘শেষ’ মেন্যু বিক্রি

গ্রিল্‌ড মটন চপ, কাস্টার্ড পুডিং, কর্নড বিফ। আর এর সঙ্গে শেষ পাতে যদি হয় আপেল মেরিং পেস্ট্রি! জিভে জল আসে। জানতে ইচ্ছা করছে নিশ্চয় এই রাজকীয় এই খাবার কোথায় পাবেন? সে অনেকটাই দেরি করে ফেলেছেন। এ জীবনে হয়তো আর শিকে ছিঁড়বে না। লায়নহার্ট নামে এক ব্যক্তি ৮৮ হাজার ডলারে সব খাবারই বেচে দিয়েছেন যে। তাও নিলামে। হবে নাই বা কেন, সে তো আর যে সে খাবার নয়। টাইটানিকের শেষ মধ্যাহ্নভোজের মেনু। নিলাম হয়েছে মেনু কার্ডটিই।

টাইটানিকের 'শেষ' মেন্যু

টাইটানিকের ‘শেষ’ মেন্যু

১৯১২ সালের ১৫ এপ্রিল যে জাহাজটি কয়েক হাজার যাত্রী নিয়ে মাঝ সমুদ্রে ডুবে গিয়েছিল। মারা গিয়েছিলেন ১৫০০ মানুষ। ঠিক তার আগের দিন অর্থাৎ ১৪ এপ্রিল এই খাবারই ছিল যাত্রীদের শেষ মেনু; যা এতো দিন আব্রাহাম লিঙ্কন সলোমন নামে এক ব্যক্তির কাছে সযত্নে রাখা ছিল। আব্রাহামও টাইটানিকের যাত্রী ছিলেন। সে সময়ে ধনী যাত্রীদের জন্য আয়োজন করা বিশেষ ‘মানি বোটে’ রওনা দিয়ে তিনি প্রাণে বাঁচেন। পরে আব্রাহাম মেনুটি দিয়েছিলেন লায়নহার্টকে।

গত ৩০ সেপ্টেম্বর মেনু কার্ডটির নিলাম হল। যার দাম ওঠে ৮৮ হাজার ডলার। কী কী ছিল মেনুতে? মটন চপ, বিফ ছাড়াও মেনুতে ছিল মাছের বিভিন্ন পদ, কয়েক রকম পেস্ট্রি, পুডিং, ফ্রায়েড এন্ড বেক্ডআ‌ জ্যাকেট পটেটো, হ্যাম, চিজসহ আরও অনেক কিছু।

এই বিভাগের আরো সংবাদ