শোলাকিয়ায় সর্ববৃহৎ ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » জাতীয়

শোলাকিয়ায় সর্ববৃহৎ ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

প্রতিবারের মতো এবারও ঈদুল আজহার বড় জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে কিশোরগঞ্জের শোলাকিয়ায়। সেখানে নামাজ আদায়ের লক্ষ্যে সকাল থেকেই দলে দলে মুসল্লিরা মাঠে আসতে শুরু করেন।

শোলাকিয়ায় এবার ১৮৮তম ঈদুল আজহার জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে। সকাল ৯ টায় জামাত শুরু হয়। জামাতে ইমামতি করেন কিশোরগঞ্জ শহরের শামসুদ্দিন ভূইয়া মারকাজ মসজিদের ইমাম মাওলানা হিফজুর রহমান খান। নামাজ শেষে মুসলিম উম্মার শান্তি কামনা করে বিশেষ মোনাজাত ও দোয়া করা হয়।

জেলা প্রশাসন ও ঈদগাহ পরিচালনা কমিটি জামাত আয়োজনের সকল প্রস্তুতি আগেই সম্পন্ন করে রেখেছিলেন। আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি রক্ষায়ও ছিল পর্যাপ্ত ব্যবস্থা।

ঈদুল আজহায় কোরবানির বাধ্যবাধকতা থাকায় সাধারণত দূরের মুসল্লিরা নিজ নিজ এলাকায় ঈদের জামাত আদায় করে থাকেন। সে কারণে শোলাকিয়ায় ঈদুল ফিতরের তুলনায় ঈদুল আজহায় মুসল্লির সংখ্যা কম হয়ে থাকে।

ঈদুল আজহা উপলক্ষে রেলওয়ে কিশোরগঞ্জে দুটি বিশেষ ট্রেনের ব্যবস্থা করেছে। একটি ট্রেন ভৈরব থেকে ছেড়ে আসে সকাল ৬ টায়, কিশোরগঞ্জে পৌঁছে ৮টায়। অন্যটি ময়মনসিংহ থেকে ছেড়ে আসে সকাল পৌনে ৬টায় এবং কিশোরগঞ্জে পৌঁছে সকাল সাড়ে ৮টায়। দুটি ট্রেনই আবার ফিরে যাবে বেলা সাড়ে ১২টায়।

স্থানীয় গবেষকদের ভাষ্যমতে, মসনদ-ই-আলা ঈশাখাঁর ৬ষ্ঠ বংশধর দেওয়ান মান্নান দাদ খান ১৮২৮ সালে কিশোরগঞ্জ জেলা শহরের পূর্ব প্রান্তে নরসুন্দা নদীর তীরে প্রায় ৭ একর জমির উপর এ ঈদগাহ প্রতিষ্ঠা করেন। প্রথম অনুষ্ঠিত জামাতে সোয়া লাখ মুসল্লি¬ অংশগ্রহণ করেন বলে মাঠের নাম হয় ‘সোয়া লাখি মাঠ’। সেখান থেকে সময়ের ধারাবাহিকতায় এবং উচ্চারণের বিবর্তনে বর্তমানে নাম ধারণ করেছে শোলাকিয়া মাঠ হিসেবে।

এই বিভাগের আরো সংবাদ