অর্থমন্ত্রীর সঙ্গে বসবেন না শিক্ষকরা, অবসরের আহ্বান
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » লিড নিউজ

অর্থমন্ত্রীর সঙ্গে বসবেন না শিক্ষকরা, অবসরের আহ্বান

বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ফেডারেশন

বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ফেডারেশন

অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিতের সঙ্গে শিক্ষকেরা কোনো আলোচনায় বসবেন না বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ফেডারেশন। একই সঙ্গে অর্থমন্ত্রীকে স্বেচ্ছায় অবসরে যাওয়ার আহ্বানও জানিয়েছেন সংগঠনটির নেতারা।

আজ রোববার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্লাবে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা জানিয়েছে সংগঠনটির নেতারা। উচ্চ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান সম্পর্কে অর্থমন্ত্রীর দেওয়া বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

পৃথক পে-স্কেল ও বিদ্যমান বেতন বৈষম্য নিরসনের দাবিতে আজ রোববার আবারও পূর্ণদিবস কর্মবিরতি পালন করছেন দেশের ৩৭টি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকেরা। এতে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে কোনো ক্লাস হচ্ছে না। কর্মবিরতি চলবে বিকেল পাঁচটা পর্যন্ত।

ফেডারেশনের সভাপতি ফরিদউদ্দিন আহমেদ বলেন, অর্থমন্ত্রীর সঙ্গে শিক্ষকেরা কোনো আলোচনায় বসবেন না।

প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ করে তিনি বলেন, ‘আপনি উদ্যোগ না নিলে আলোচনা শুরু হবে না। প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে ‘পাবলিকলি’ শুনতে চাই। নইলে আন্দোলন থেকে এক ইঞ্চিও সরব না।’ আলোচনায় অর্থমন্ত্রী থাকলে শিক্ষকেরা ন্যায়বিচার ও সুবিচার পাবেন না।”

এসময় অর্থমন্ত্রীকে স্বেচ্ছায় অবসরে যাওয়ার আহ্বানও জানান তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে ফেডারেশনের মহাসচিব এ এস এম মাকসুদ কামাল বলেন, ‘আমাদের পর্যবেক্ষণ হচ্ছে বয়স্ক অর্থমন্ত্রী দেশের উচ্চশিক্ষাকে ধ্বংস করা এবং শিক্ষাঙ্গনকে অশান্ত করার নীলনকশা বাস্তবায়নে নেমেছেন। আমাদের প্রশ্ন দেশের শিক্ষাব্যবস্থা নিয়ে সাবেক আমলা ও বর্তমান আমলা পক্ষের একজন অর্থমন্ত্রী হয়ে তার পক্ষে বিভ্রান্তিকর তথ্য সংবলিত বক্তব্য দেওয়া কী শোভা পায়? উচ্চ শিক্ষাবিরোধী মনোভাবের পরিচয় দিয়ে অথবা উচ্চশিক্ষাকে ধ্বংস করে তিনি কার স্বার্থ হাসিল করতে চাইছেন?’

এ ব্যাপারে একটি নিরপেক্ষ কমিশন গঠনের দাবি জানিয়ে ফেডারেশনের মহাসচিব আরও বলেন, বাস্তবমুখী ও গঠনমূলক পদক্ষেপ না নিলে ঈদের পরে কঠোর আন্দোলন কর্মসূচি দেওয়া হবে। এ ছাড়া আগামী ১৭ সেপ্টেম্বরও শিক্ষকেরা পূর্বঘোষিত কর্মবিরতি পালন করবেন বলে জানান তিনি।

এই বিভাগের আরো সংবাদ