চাঁদপুরে ৭ বছরের শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগ
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » সর্বশেষ

চাঁদপুরে ৭ বছরের শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগ

চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ উপজেলার সেকদি গ্রামে শিশু রুবিনা আক্তারকে (৭) ধর্ষণের পর গলাটিপে হত্যার অভিযোগে দুই যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

তারা হলেন পূর্ব সেকদি গ্রামের মৃত মিজান মুন্সির ছেলে মো. মাসুম হোসেন ওরফে মিন্টু (২৫) ও টেলু মিয়ার ছেলে মো. জুয়েল (২২)।

ছবিটি প্রতীকী

ছবিটি প্রতীকী

চাঁদপুরের পুলিশ সুপার শামসুন্নাহারের নেতৃত্বে ডিবি ও ফরিদগঞ্জ থানা-পুলিশের একটি দল অভিযান চালিয়ে ৮ সেপ্টেম্বর রাত ১টায় লক্ষ্মীপুর জেলা সদরের হাজির হাট এলাকার একটি ক্লাবঘর থেকে মিন্টুকে এবং ও গতকাল (৯ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাত ৩টায় গাজীপুর জেলার কাপাসিয়া বাসস্ট্যান্ড এলাকায় একটি ঘর থেকে জুয়েলকে গ্রেপ্তার করে।

পুলিশ সুপার শামসুন্নাহার বলেন, শিশু রুবিনাকে ধর্ষণের পর হত্যার সঙ্গে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে গ্রেপ্তারকৃতরা।

ঘটনার বিবরণে জানা যায়, গত ২৬ জুলাই দুপুরে স্কুল থেকে বাড়ি ফেরার পথে তুমুল বৃষ্টির মধ্যে একা পেয়ে জুয়েল ও মিন্টু একটি ঘরে নিয়ে শিশু রুবিনাকে ধর্ষণ করে। এতে শিশুটির অনেক রক্তক্ষরণ শুরু হলে তারা তাকে গলাটিপে হত্যা করে বস্তায় ঢুকিয়ে পার্শ্ববর্তী বিলের একটি ঝোপে লাশটি ফেলে দেয়।

ঘটনার একমাস পর গত ২৫ আগস্ট সকালে রুবিনার মা ফাতেমা বেগমই ওই এলাকার একটি মাছের খামারের কাছে বিলের ঝোপে শিশুটির লাশ দেখতে পায়। পরে খবর পেয়ে পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্ত করে।

জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আশরাফুজ্জামান বলেন, গ্রেপ্তার হওয়া দুই যুবককে আজ বৃহস্পতিবার আদালতে পাঠানো হতে পারে।

এই বিভাগের আরো সংবাদ