প্রতিবন্ধীদের ক্রিকেট টুর্নামেন্ট উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » লিড নিউজ

প্রতিবন্ধীদের ক্রিকেট টুর্নামেন্ট উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো শারীরিক প্রতিবন্ধীদের নিয়ে পাঁচ জাতির আন্তর্জাতিক টি-২০ ক্রিকেট টুর্নামেন্ট উদ্বোধন করেছেন।

প্রতিবন্ধীদের নিয়ে পাঁচ জাতির আন্তর্জাতিক টি-২০ ক্রিকেট টুর্নামেন্ট উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী

প্রতিবন্ধীদের নিয়ে পাঁচ জাতির আন্তর্জাতিক টি-২০ ক্রিকেট টুর্নামেন্ট উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী

বুধবার সকাল ১০টায় মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টুর্নামেন্ট উদ্বোধনের কথা থাকলেও বৃষ্টির কারণে পিছিয়ে তা ১১টায় উদ্বোধন করেন তিনি।  শারীরিক প্রতিবন্ধীদের উৎসাহ দিতেই স্টেডিয়ামে যান প্রধানমন্ত্রী।

শারীরিক প্রতিবন্ধীদের নিয়ে এমন টুর্নামেন্ট আয়োজন করায় আয়োজকদের ধন্যবাদ জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, শারীরিক প্রতিবন্ধীদের নিয়ে এমন টুর্নামেন্ট হওয়ায় আমি খুশি। আমার বিশ্বাস এ টুর্নামেন্টে তারা স্মরণীয় কিছু করবে। প্রতিবন্ধী হওয়াটা কোনো বাঁধা নয়; এটাকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিতে হবে।

বুধবার শারীরিক প্রতিবন্ধীদের নিয়ে পাঁচ জাতির টি-২০ ক্রিকেট টুর্নামেন্ট উদ্বোধন অনুষ্ঠানে খেলোয়াড় ও আয়োজকবৃন্দ

বুধবার শারীরিক প্রতিবন্ধীদের নিয়ে পাঁচ জাতির টি-২০ ক্রিকেট টুর্নামেন্ট উদ্বোধন অনুষ্ঠানে খেলোয়াড় ও আয়োজকবৃন্দ

শেখ হাসিনা বলেন, শারীরিকভাবে কোনো প্রতিবন্ধকতা থাকলেই তাকে সমাজ থেকে বিচ্যুতি করা যাবে না। আমি দেশের মানুষকে অনুরোধ করব, কোনো প্রতিবন্ধীকে কেউ অবহেলা করবেন না, তাদের সুযোগ তৈরি করে দেবেন। তারা সুযোগ পেলে তাদের যোগ্যতার প্রমাণ দিতে পারে। কীভাবে প্রতিবন্ধীদের জন্য আরও সুযোগ সৃষ্টি করা যায়- আমরা তা নিয়ে এরই মধ্যে বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বৃষ্টির কারণে জাকজমকভাবে এ টুর্নামেন্ট উদ্বোধন করা সম্ভব হয়নি। প্রকৃতির ওপর তো কারো হাত নেই। এটাই শেষ নয়, ভবিষ্যতে প্রতিবন্ধীদের নিয়ে আমরা আরও টুর্নামেন্ট আয়োজন করব।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শুরুর আগে কালো মেঘে ঢেকে যায় স্টেডিয়ামের আকাশ

উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শুরুর আগে কালো মেঘে ঢেকে যায় স্টেডিয়ামের আকাশ

এসময় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় ক্রিকেট দলের ওয়ানডে ও টি-২০ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। তিনি টুর্নামেন্ট ও বাংলাদেশ দলের শুভেচ্ছা দূত নির্বাচিত হয়েছেন। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বীরেন শিকদার, উপমন্ত্রী আরিফ খান জয় ও বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মাশরাফি শারীরিক প্রতিবন্ধী ক্রিকেট দলের অধিনায়ক আলম খানের হাতে দলের  নতুন জার্সি তুলে দেন। সেই সঙ্গে তুলে দেন একরাশ স্বপ্ন। এর সঙ্গে যাত্রা হলো দেশের ক্রিকেটের নতুন এক অধ্যায়ের। যার কাণ্ডারি এখন জীবন যুদ্ধ জয় করা আলমরা।

বৃষ্টি উপেক্ষা করেও উদ্বোধনী অনুষ্ঠান দেখতে স্টেডিয়াম গেটে দর্শকদের ভীড়

বৃষ্টি উপেক্ষা করেও উদ্বোধনী অনুষ্ঠান দেখতে স্টেডিয়াম গেটে দর্শকদের ভীড়

বাংলাদেশ ও ইংল্যান্ডের ম্যাচ দিয়ে টুর্নামেন্টে খেলা শুরু হওয়ার কথা থাকলেও বৃষ্টির কারণে আজকের ম্যাচ পরিত্যাক্ত ঘোষণা করা হয়েছে।

বাংলাদেশ ছাড়া এ টুর্নামেন্টের বাকি ৪টি দল হলো- ইংল্যান্ড, ভারত, পাকিস্তান ও আফগানিস্তান। টুর্নামেন্টের বাকি ম্যাচগুলো বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে (বিকেএসপি) অনুষ্ঠিত হবে।

শারীরিক প্রতিবন্ধীরাও যে সমাজে ইতিবাচক ভূমিকা রাখতে পারে সেই বার্তা গোটা বিশ্বের কাছে পৌঁছে দিতে টুর্নামেন্টটি আয়োজন করেছে আন্তর্জাতিক রেড ক্রস কমিটি (আইসিআরসি)।এতে সহায়তা করছে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়, বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) এবং বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান (বিকেএসপি)।

এই বিভাগের আরো সংবাদ