গুজরাট দাঙ্গা: চাকরি গেল মোদিকে অভিযুক্তকারী পুলিশের
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » আন্তর্জাতিক

গুজরাট দাঙ্গা: চাকরি গেল মোদিকে অভিযুক্তকারী পুলিশের

গুজরাট দাঙ্গায় নরেন্দ্র মোদিকে অভিযুক্ত করে চার্জশিট দেওয়া পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা সঞ্জীব ভাটকে বহিষ্কার করেছে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার। ২০১১ সালে মোদির আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে তাকে সাময়িক বহিষ্কার (সাসপেন্ড) করেছিল সুপ্রিম কোর্ট।

IPS officer Sanjiv Bhatt

ভারত পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা সঞ্জীব ভাট। গুজরাট দাঙ্গায় মোদিকে অভিযুক্ত করে প্রতিবেদন দাখিল করেছিলেন তিনি।

আজ শুক্রবার সংবাদ সংস্থার এএফফির প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, গতকাল বৃহস্পতিবার সঞ্জীব ভাটকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে সঞ্জীব ভাট বলেন, ২৭ বছর চাকরি করার পর গতকাল বৃহস্পতিবার চিঠি দিয়ে আমাকে বহিষ্কারের কথা জানানো হয়েছে। আমার বিরুদ্ধে শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগ আনা হয়েছে।

২০০২ সালে গুজরাটের গোধরা স্টেশনে একটি ট্রেনে অগ্নিসংযোগের ঘটনায় অর্ধশতাধিক হিন্দু নিহত হওয়ার পর সেখানে মুসলিমবিরোধী দাঙ্গা শুরু হয়েছিল। গোধরার ট্রেনে আগুন লাগানোর জন্য মুসলমানদের দায়ী করা হলেও পরবর্তী সময়ে তদন্তে দেখা গেছে, উগ্রবাদী হিন্দুরাই মুসলিমবিরোধী দাঙ্গা বাধানোর অজুহাত সৃষ্টির উদ্দেশ্যে ট্রেনটিতে আগুন দিয়েছিল। মুসলিমবিরোধী ওই দাঙ্গায় দুই হাজারেরও বেশি মুসলমান নিহত হয়। সে সময়ে গুজরাট রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন নরেন্দ্র মোদি।

Gujarat

২০০২ সালে গুজরাটের গোধরা স্টেশনে একটি ট্রেনে অগ্নিসংযোগের ঘটনায় অর্ধশতাধিক হিন্দু নিহত হওয়ার পর সেখানে মুসলিমবিরোধী দাঙ্গা শুরু হয়েছিল।

তদন্তের পর সুপ্রিম কোর্টে দেওয়া হলফনামায় সঞ্জীব ভাট বলেছিলেন, ২০০২ সালের মুসলিমবিরোধী ভয়াবহ দাঙ্গার সময় দাঙ্গাবাজ হিন্দুদের না ঠেকাতে পুলিশকে নির্দেশ দিয়েছিলেন গুজরাট রাজ্যের তৎকালীন মুখ্যমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। ২০০২ সালের ২৭ ফেব্রুয়ারি গোধরা কাণ্ডের পর নরেন্দ্র মোদি আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে উচ্চ পর্যায়ের এক বৈঠকে পুলিশ কর্মকর্তাদের নির্দেশ দেন, হিন্দুরা মুসলমানদের প্রতি যেন তাদের ক্ষোভ মেটাতে পারে, পুলিশকে সে ব্যবস্থা করে দিতে হবে।

সুপ্রিম কোর্টে দায়ের করা আর্জিতে গুজরাট দাঙ্গা তদন্তে সর্বোচ্চ আদালতের নির্দেশে গঠিত স্পেশাল ইনভেস্টিগেশন টিম বা এসআইটির সন্দেহজনক ভূমিকা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন সঞ্জীব ভাট।

এই বিভাগের আরো সংবাদ