মেয়েকে অবহেলার আশঙ্কায় ৩ ছেলেকে খুন
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » টুকিটাকি

মেয়েকে অবহেলার আশঙ্কায় ৩ ছেলেকে খুন

একমাত্র মেয়ের জন্য তিন ছেলেকে খুন করেছে যুক্তরাষ্ট্রের ওহিও অঙ্গরাজ্যের বেলফন্টেইনের বাসিন্দা মা ব্রিটানি পিলকিংটন (২৩)। পুত্রস্নেহে অন্ধ স্বামী জোসেফ পিলকিংটন (৩৮) মেয়েকে অবহেলা করতে পারেন এই আশঙ্কায় তিনি এক বছর ধরে পর পর তিন ছেলেকে খুন করেন।

 ব্রিটানি পিলকিংটন

ব্রিটানি পিলকিংটন

গত মঙ্গলবার নিজের ৩ মাসের ছেলের অসুস্থতার কথা জানিয়ে স্থানীয় স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ফোন করে সাহায্য চান ব্রিটানি। তিনি জানান, হঠাৎ তার ছেলে অজ্ঞান হয়ে পড়েছে। কিছু ক্ষণের মধ্যেই বাড়িতে পৌঁছে যান স্বাস্থ্যকর্মীরা। শিশুটিকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পর মৃত ঘোষণা করা হয়। এই খবর পেয়ে বাড়িতে হাজির হয় পুলিশ।

ঘটনার বিস্তারিত বিবরণ শোনার পর সন্দেহ হওয়ায় গোয়েন্দারা জেরা করেন ব্রিটানিকে। আর তখনই নিজের অপরাধের কথা খুলে বলেন তিনি।

আদালতে লোগান কাউন্টির কৌঁসুলি উইলিয়াম গসলি জানান, ব্রিটানি স্বীকার করেছেন, ২০১৪ সালের জুলাইয়ে তিন মাসের নিয়াল, চলতি বছরের এপ্রিলে চার বছরের গ্যাভিন এবং এবার তিন মাসের নোয়াকে একে একে নিজে হাতে খুন করেছেন। তিন শিশুপুত্রকেই কম্বল চাপা দিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছেন ব্রিটানি। তবে এর জন্য তার মনে কোনও রকম অনুশোচনা দেখা যায়নি।

আইনজীবী গসলির দাবি, ‘বাবার ভালোবাসা থেকে বঞ্চিত মেয়েকে রক্ষা করার কথা মাথায় রেখেই এই মর্মান্তিক হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে ব্রিটানি।’

ব্রিটানির স্বামী জোসেফ পিলকিংটন মেরিসভিলের এক কারখানার কর্মী। এর আগে দুই ছেলের মৃত্যুর সময়ও তিনি কর্মস্থলে ছিলেন।

তিনি জানান, এর আগে নিয়াল ও গ্যাভিনের মৃত্যু রহস্যজনক হওয়ায় তা নিয়ে তদন্ত চলাকালীন নোয়ার জন্ম হয়। সেই সময় নোয়া ও তার বোন হেইলির কাছ থেকে মা ব্রিটানিকে আলাদা করে দেয় আমেরিকার শিশু পরিষেবা বিভাগ। কিন্তু পরবর্তীতে দুই শিশুর মৃত্যুতে সন্দেহজনক কোনও কারণ খুঁজে না পাওয়ায় ব্রিটানিকে নিজের ছেলেমেয়ের কাছে ফেরত পাঠিয়ে দেয় আদালত।

এই বিভাগের আরো সংবাদ