রাজন হত্যার চার্জশিট ৭২ ঘণ্টায়: আইনমন্ত্রী
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » লিড নিউজ

রাজন হত্যার চার্জশিট ৭২ ঘণ্টায়: আইনমন্ত্রী

সিলেটে নির্যাতন করে শিশু সামিউল আলম রাজন হত্যার চার্জশিট ৭২ ঘণ্টার মধ্যে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।

আজ বুধবার রাজধানীর হোটেল সোনারগাঁয়ে ‘রেজিস্ট্রেশন ম্যানুয়েল, ২০১৪’ এর মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে একথা বলেন তিনি।

anisul

আইনমন্ত্রী আনিসুুল হক

আইনমন্ত্রী বলেন, ৭২ ঘণ্টার মধ্যে রাজন হত্যার চার্জশিট দেওয়া হবে। মামলার একজন আসামি দেশের বাইরে থাকায় মামলার চর্জশিট দেওয়ায় বা বিচার কাজ চলায় কোনো অসুবিধা হবে না।

গত ৮ জুলাই বুধবার সকাল ৭টা থেকে ১১টা পর্যন্ত সিলেটে নির্যাতন করে হত্যা করা হয় শিশু সামিউল আলম রাজনকে। ওই দিন দুপুর ১টার দিকে মাইক্রোবাসে তার মরদেহ গুম করার চেষ্টাকালে নগরীর কুমারগাঁও এলাকায় গাড়িসহ মুহিত নামে একজনকে আটক করে এলাকাবাসী। পরে রাজনের বাবা আজিজুর রহমান ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে ছেলের মরদেহ শনাক্ত করেন। রাজনের মরদেহে ৬৪টি আঘাতের চিহ্ন রয়েছে বলে ময়নাতদন্ত প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে। ওই ঘটনায় করা মামলার আসামি মুহিতের ভাই কামরুল সৌদি আরবে পালিয়ে যাওয়ার পর সেখানে আটক হয়। মুহিতের স্ত্রী লিপি বেগম ও দুই প্রত্যক্ষদর্শীসহ এই মামলায় এখন পর্যন্ত নয়জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

Rajon

প্রচুর নির্যাতনের পর মাটিতে পড়ে আছে রাজনের দেহ।

গত ২৩ জুলাই আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছিলেন, তিন-চারদিনের মধ্যে রাজন হত্যা মামলার অভিযোগপত্র দেওয়া হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে রাজন হত্যার তড়িৎ বিচার ও আসামিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলেছি, আমাকে তিনি আশস্ত করেছেন, আগামী তিন-চারদিনের মধ্যে এই মামলার অভিযোগপত্র দাখিল করা হবে। এরপর দ্রুতই বিচারকাজ শুরু করে তা নিষ্পত্তি করা হবে।

আইনমন্ত্রীর ঘোষণার পর প্রায় তিন সপ্তাহ পার হলেও এখন পর্যন্ত এ মামলার চার্জশিট দেওয়া হয়নি। এর পরিপ্রেক্ষিতে আজ বুধবার সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে নতুন করে ৭২ ঘণ্টার মধ্যে রাজন হত্যা মামলার অভিযোগপত্র (চার্জশিট) দেওয়া হবে বলে জানান আইনমন্ত্রী।

এর আগে ‘রেজিস্ট্রেশন ম্যানুয়েল, ২০১৪’ এর মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে আইনমন্ত্রী বলেন, ম্যানুয়েল হালানাগাদ করে নতুন সংস্করণ প্রকাশনার উদ্যোগ একটি সময়োপযোগী ও সঠিক উদ্যোগ। রেজিস্ট্রেশন বিভাগীয় মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তাসহ পেশাজীবী মহলের জন্য এবং অবাধ তথ্য প্রবাহের এই যুগে রেজিস্ট্রেশন ম্যানুয়েল এর নতুন সংস্করণটি রেজিস্ট্রেশন বিভাগের সংশ্লিষ্ট সকলের দায়িত্ব পালনের ক্ষেত্রে গুরুত্বপর্ণ সহায়ক গ্রন্থ হিসেবে বিবেচিত হবে।

আইন সচিব (লেজিসলেটিভ ও ড্রাফট) মো. শহীদুল হকের পরিচালনায় এই অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন আইন সচিব (আইন ও বিচার) এ.এস.এম. জহিরুল হক, নিবন্ধন পরিদপ্তরের মহাপরির্শক খান আবদুল মান্নান প্রমুখ।

এই বিভাগের আরো সংবাদ