প্রতারণা-জালিয়াতির বেসরকারি মামলা থাকছে না দুদকে
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » লিড নিউজ

প্রতারণা-জালিয়াতির বেসরকারি মামলা থাকছে না দুদকে

দুনী‌তি দমন ক‌মিশন (দুদক) আইন থেকে প্রতারণা ও জা‌লিয়া‌তির বেসরকারি মামলাগুলো বাদ দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। এই সংক্রান্ত বেসরকারি মামলার ভার পুলিশের কাছে দিয়ে দুদক (সং‌শোধন) আইন ২০১৫ এর খসড়ায় নীতিগত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা।

Cabinet Meeting

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মন্ত্রিসভার ৭২তম বৈঠক।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোশাররাফ হোসাইন ভূঞয়া জানান, আজ সোমবার স‌চিবালয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মন্ত্রিভার ৭২তম সভায় এই অনুমোদন দেওয়া হয়।

তিনি আরও জানান, সরকা‌রি সম্প‌ত্তি এবং সরকা‌রি কর্মকতা-কর্মচারী ও ব্যাংক কর্মকর্তা-কর্মচারীদের জালিয়াতি ও প্রতারণা সংক্রান্ত মামলাগুলো দুদকের আওতায় থাকবে।

সভা শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব জানান, ২০১০ সালে দুদক আইন সংশোধন হয়েছিল। পার্লামেন্ট এবং আইন বিচার বিভাগীয় কমিটিতে যাচাইয়ের বাছাই পর ২০১৩ সালে এটি আইনে পরিণত হয়। পরবর্তীতে প্রতারণা ও জালিয়াতির মামলা নিয়ে বাস্তবসম্মত অসুবিধা দেখা যায়। কয়েক হাজার মামলার জট সৃষ্টি হওয়ায় এর নিস্পত্তিতে বিলম্ব হচ্ছে। এগুলো দুদকের সিডিউলে থাকায় মামলা নিচ্ছে না পুলিশ। তাই সংশ্লিষ্টদের মতামত নিয়ে আইন সংশোধনের জন্য কেবিনেটে পাঠানো হয়। মন্ত্রিসভা এর নীতিগত অনুমোদন দিয়েছে।

তিনি আরও জানান, সরকারি সম্পত্তি, সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারী ও ব্যাংক কর্মকর্তা-কর্মচারীদের প্রতারণা ও জালিয়াতি সংক্রান্ত মামলার বিচার হবে দুদক আইনে। অন্য প্রতারণা ও জালিয়াতি মামলার বিচার পুলিশের মাধ্যমে চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে করা হবে। দুদকে বিদ্যমান মামলাগুলো বিচার কার্য চলমান অবস্থায় চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে এবং তদন্ত পর্যায়ের মামলাগুলো থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোশাররাফ হোসাইন ভূঞয়া জানান, আজ মন্ত্রিসভায় জাতীয় পুষ্টিনীতি, ২০১৫ এর খসড়ার অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এছাড়া মানি লন্ডারিং মামলার জটিলতা নিরসনে আইন সংশোধনের কাজ চলছে।

এই বিভাগের আরো সংবাদ