নারায়ণগঞ্জে বাস থামিয়ে ব্যবসায়ীকে গুলি করে হত্যা
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » জাতীয়

নারায়ণগঞ্জে বাস থামিয়ে ব্যবসায়ীকে গুলি করে হত্যা

নারায়ণগঞ্জে সড়কে বোমা ফাটিয়ে বাস থামিয়ে নুরুল ইসলাম (৪২) নামে এক ব্যবসায়ীকে গুলি চালিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। ফতুল্লায় ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংক রোডে গতকাল সোমবার রাত পৌনে ১০টার দিকে এই ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছে পুলিশ। বাসের অন্য যাত্রীরা নিরাপদে আছেন।

narayongonj

গুগল মানচিত্রে নারায়ণগঞ্জের একাংশ।

পুলিশ জানায়, নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার বক্তাবলী প্রসন্ন নগর এলাকার হানিফ হাজীর ছেলে নুরুল ইসলাম। ফতুল্লার রেলস্টেশন এলাকায় ভাড়া থাকতেন তিনি। ঢাকার হাতিরপুলের মোতালেব প্লাজায় তার পপুলার ইলেকট্রনিক্স নামে মোবাইল ফোনের দোকান রয়েছে।

নারায়ণগঞ্জের সহকারী পুলিশ সুপার মোহাম্মদ শরফুদ্দিন জানান, ঢাকা থেকে উৎসব পরিবহনের একটি বাসে নারায়ণগঞ্জ ফিরছিলেন নুরুল। রাত পৌনে ১০টার দিকে লিংক রোডের মাহমুদপুর এলাকায় সামাদ বানু সিএনজি স্টেশনের সামনে ওই বাসটি আটকানো হয়। সেখানে উঠে গুলি চালিয়ে হত্যা করা হয় নুরুল ইসলামকে। কী কারণে এই হত্যাকাণ্ড ঘটেছে, তা জানা যায়নি। বাসের অন্য কোনো যাত্রী হামলার শিকার না হওয়ায় এটা স্পষ্ট যে, দুর্বৃত্তরা নুরুল ইসলামকে লক্ষ্য করেই এই হামলা চালিয়েছিল।

প্রত্যক্ষদর্শী এবং ওই বাসের যাত্রী মো. লিটু জানান, প্রথমে হাতবোমার বিস্ফোরণ ঘটিয়ে বাসের গতিরোধ করে দুর্বৃত্তরা। এসময় কয়েকজন বাসে উঠে নুরুলের বুকে গুলি করে তার সঙ্গে থাকা একটি ব্যাগ ছিনিয়ে নেমে যায়। নুরুলকে শহরের খানপুরে অবস্থিত ৩০০ শয্যা হাসপাতালে নিয়ে যান বাসচালক। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডা. সোহেল রানা বলেন, গুলিতে ঘটনাস্থলেই প্রাণ হারান ওই ব্যবসায়ী। লাশ মর্গে পাঠানো হয়েছে।

জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) মোখলেছুর রহমান জানান, ঘাতকদের শনাক্ত করে তাদের গ্রেপ্তারে অভিযান শুরু করেছে পুলিশ।

প্রসঙ্গত, ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংক রোডেই গত বছর কাউন্সিলর নজরুল ইসলাম ও আইনজীবী চন্দন সরকারসহ সাতজনকে তুলে নিয়ে হত্যা করা হয়েছিল। তার আগে এই সড়ক থেকেই পরিবেশ আইনজীবী সৈয়দা রিজওয়ানা হাসানের স্বামী এ.বি. সিদ্দিককে অপহরণ করা হয়েছিল। পরে ছেড়ে দেওয়া হয় তাকে।

এই বিভাগের আরো সংবাদ