লামায় পাহাড়ধসে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৭
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » লিড নিউজ

লামায় পাহাড়ধসে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৭

বান্দরবানের লামা উপজেলা সদরে পাহাড়ধসে নিহতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে সাতে। গতকাল শুক্রবার দিনগত রাত আড়াইটার পাহাড় ধসের এ ঘটনা ঘটে।

Lamaনিহতরা হলেন- সাজ্জাদ (৫), ফুতু (১০), আমেনা বেগম (৩৫), রোজিনা আক্তার (৩৪), বশির (৭০), আরাফাত (১৫), বশির (৭০) ও ফাতেমা আক্তার (৮)।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা খালেদ জানান,  পাহাড় ধসের পর মাটিচাপা পড়া অবস্থায় চারজনের লাশ উদ্ধার করা হয়। তারা হলেন- সাজ্জাদ, ফুতু, আমেনা ও রোজিনা।

আহত অবস্থায় আরাফাত (১৬) ও দুলু মিঞা (৭০) উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়। তবে পথেই মৃত্যু হয়আরাফাতের।

ধসের পর নিখোঁজ ছিলেন বশির ও ফাতেমা। বিকালে তাদের লাশ মাটির নিচ থেকে উদ্ধার হয়।

উপজেলা প্রশাসন, ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয়রা প্রথমে উদ্ধারকাজ শুরু করে। তবে ভারী যন্ত্রপাতি না থাকায় কাজ ব্যাহত হচ্ছিল।

স্থানীয়রা জানান, লামা উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্র বা হাসপাতাল এলাকার বরিশাল পাড়ায় হঠাৎ পাহাড় থেকে মাটি ধসে তিনটি বাড়িতে পড়ে।

এদিকে, পাহাড়ি ঢলে ও নদীর পানি বেড়ে যাওয়ায় লামা উপজেলা সদরের বেশিরভাগ এলাকা তিন থেকে চার ফুট পানির নিচে তলিয়ে গেছে। লামা থানা, উপজেলা পরিষদ, হাসপাতালসহ সবকিছু পানিতে তলিয়ে গেছে। পুলিশ, প্রশাসন ও চিকিৎসকসহ সবাই বিপর্যস্ত অবস্থায় রয়েছে।

লামা হাসপাতাল এলাকার বাসিন্দা খগেশ প্রতি চন্দ্র জানান, গতকাল শুক্রবার রাত পর্যন্ত লামা উপজেলা সদরে কোনো পানি ছিল না। রাত ১০টা থেকে ১১টার মধ্যে হঠাৎ পাহাড়ি ঢলের পানি এসে উপজেলা শহরটি ডুবে যায়। মানুষ ঘুম থেকে উঠে কেউ দোতলা বাড়িতে ও কেউ পাহাড়ে গিয়ে খোলা আকাশের নিচে আশ্রয় নিয়েছে।

এই বিভাগের আরো সংবাদ