জাতীয় শোক দিবসে ৪০ দিনের কর্মসূচি আওয়ামী লীগের
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » লিড নিউজ

জাতীয় শোক দিবসে ৪০ দিনের কর্মসূচি আওয়ামী লীগের

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪০তম শাহাদাৎবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে ৪০ দিনব্যাপী কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়েছে।

ছবি সংগৃহীত

ছবি সংগৃহীত

আওয়ামী লীগের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব কর্মসূচির কথা জানিয়ে বলা হয়, দল এবং সহযোগী-ভ্রাতৃপ্রতিম ও সমমনা সংগঠনগুলোর উদ্যোগে আগামী ১ আগস্ট থেকে ৯ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত এসব কর্মসূচি পালিত হবে।

শোকের মাস আগস্টের প্রথম প্রহর ১ আগস্ট রাত ১২টা ১ মিনিটে ধানমণ্ডি ৩২ নম্বরের বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘর অভিমুখে আলোর মিছিলের মধ্য দিয়ে এ কর্মসূচির সূচনা হবে। ওইদিন দুপুর ১২টায় দলের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদ, উপদেষ্টা পরিষদ, জেলা শাখা এবং সহযোগী-ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনের নেতারা টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে শ্রদ্ধার্ঘ্য অর্পণ, দোয়া ও মোনাজাতে অংশ নেবেন।

বিকেল ৪টায় বঙ্গবন্ধু ভবন প্রাঙ্গণে কৃষক লীগের রক্তদান কর্মসূচি ও আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা।

১৫ আগস্টের দিনের কর্মসূচিতে রয়েছে ওইদিন সূর্যোদয় ক্ষনে বঙ্গবন্ধু ভবন, কেন্দ্রীয় কার্যালয়সহ দলের সবস্তরের কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা অর্ধনমিতকরণ ও কালো পতাকা উত্তোলন, সকাল ৬টা ৪৫ মিনিটে বঙ্গবন্ধু ভবন প্রাঙ্গণে জাতির জনকের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন, সকাল সাড়ে ৭টায় বনানী কবরস্থানে ১৫ আগস্টের শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন, মাজার জিয়ারত, ফাতেহা পাঠ, মোনাজাত ও মিলাদ মাহফিল, সকাল ১০টায় টুঙ্গিপাড়ায় জাতির পিতার সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন, ফাতেহা পাঠ, মিলাদ ও দোয়া মাহফিল, বাদ জোহর দেশের সব মসজিদে দোয়া ও মিলাদ মাহফিল, মন্দির, প্যাগোডা, গির্জা ও অন্যান্য উপাসনালয়ে বিশেষ প্রার্থনা, দুপুরে অসচ্ছল দুস্থ মানুষদের মাঝে খাবার বিতরণ, বাদ আসর মহিলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে বঙ্গবন্ধু ভবন প্রাঙ্গণে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল এবং ১৬ আগস্ট বিকেল ৪টায় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আলোচনা সভা।

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য এবং সংসদ উপনেতা সৈয়দা সাজেদা চৌধুরীর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গুরুত্বপূর্ণ ভাষন দিবেন।

এর আগে ৫ আগস্ট শেখ কামালের জন্মদিন উপলক্ষে সকাল ৮টায় ধানমণ্ডি আবাহনী ক্লাব প্রাঙ্গণ ও সকাল ৯টায় বনানী কবরস্থানে শ্রদ্ধার্ঘ্য অর্পণ, মিলাদ ও দোয়া মাহফিল এবং বেলা ১১টায় বঙ্গবন্ধু ভবন প্রাঙ্গণে স্বেচ্ছাসেবক লীগের উদ্যোগে আলোচনা সভা, দোয়া ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে।

৮ আগস্ট বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের জন্মদিন উপলক্ষে ওইদিন সকাল সাড়ে ৮টায় বনানী কবরস্থানে শ্রদ্ধার্ঘ্য অর্পণ, কোরআনখানি, মিলাদ ও দোয়া মাহফিল, বাদ জোহর বঙ্গবন্ধু ভবন প্রাঙ্গণে মহিলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে মিলাদ মাহফিল এবং বাদ আসর বঙ্গবন্ধু এভিনিউর কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে মিলাদ, দোয়া মাহফিল ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে। এ উপলক্ষে ৮ আগস্ট যুবলীগ ও ৯ আগস্ট ছাত্রলীগ আলোচনা সভা করবে।

২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার বার্ষিকী উপলক্ষে ওইদিন বিকেল ৪টায় বঙ্গবন্ধু এভিনিউর আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে স্থাপিত অস্থায়ী শহীদ বেদিতে শ্রদ্ধার্ঘ্য অর্পণ, দোয়া ও মিলাদ মাহফিল এবং আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে। এ উপলক্ষে যুবলীগ ও যুব মহিলা লীগ আলাদা আলোচনা সভা করবে। কর্মসূচির অংশ হিসেবে ১২ আগস্ট সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত বঙ্গবন্ধু ভবন প্রাঙ্গণে দেশের বরেণ্য চিত্রশিল্পীদের অংশগ্রহণে ‘রঙতুলিতে শোকগাথা’ শীর্ষক অনুষ্ঠান হবে। এ ছাড়া ৩ আগস্ট ও ৪ সেপ্টেম্বর তাঁতী লীগ, ৪ আগস্ট ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন, ১১ আগস্ট স্বেচ্ছাসেবক লীগ, ১৩ আগস্ট যুব মহিলা লীগ, ১৭ ও ৩০ আগস্ট (অথবা ৯ সেপ্টেম্বর) ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ, ১৮ আগস্ট জাতীয় শ্রমিক লীগ, ২০ আগস্ট বঙ্গবন্ধু কৃষিবিদ পরিষদ, ২২ আগস্ট কৃষক লীগ, ২৪ আগস্ট ও ৩ সেপ্টেম্বর আওয়ামী আইনজীবী পরিষদ, ২৫ আগস্ট মহিলা শ্রমিক লীগ, ২৬ আগস্ট স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ, ৩১ আগস্ট ও ৮ সেপ্টেম্বর ছাত্রলীগ এবং ৭ সেপ্টেম্বর যুব মহিলা লীগ আলাদা আলাদা আলোচনা সভা করবে।

দলের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম এক বিবৃতিতে ১৫ আগস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪০তম শাহাদাত বার্ষিকী, জাতীয় শোক দিবস যথাযোগ্য মর্যাদা ও ভাবগম্ভীর পরিবেশে দেশবাসীকে সাথে নিয়ে পালন করার জন্য আওয়ামী লীগ, সহযোগী, ভ্রাতৃপ্রতিম, সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠন এবং সংস্থাসমূহের সকল স্তরের নেতা-কর্মী, সমর্থক, শুভানুধ্যায়ীদের প্রতি উদাত্ত আহ্বান জানিয়েছেন।

একইসাথে তিনি আওয়ামী লীগের সকল জেলা, মহানগর, উপজেলা, পৌর, ইউনিয়ন, ওয়ার্ডসহ সমস্ত শাখার নেতৃবৃন্দকে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ কর্মসূচি গ্রহণ করে দিবসটি স্মরণ ও পালন করার জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন।

সূত্র: বাসস

এই বিভাগের আরো সংবাদ