সেকেন্ডেই মিথ্যাবাদী চেনার পাঁচ কৌশল
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » লাইফস্টাইল

সেকেন্ডেই মিথ্যাবাদী চেনার পাঁচ কৌশল

আপনি জেনে নিশ্চয়ই হতবাক হবেন যে, ৮০ শতাংশেরও বেশি মিথ্যা ধরা পড়ে না। অথচ আপনি দৈনন্দিন জীবনে কত জনের সঙ্গেই না উঠাবসা করেন। আর এদের কমবেশি সবাই মিথ্যা বলে। ফলে জীবনের প্রতি পদে পদে আপনার প্রতারিত হওয়ার আশঙ্কা থাকে। সেই প্রতারণার কবল থেকে বাঁচার জন্য আপনাকে অবশ্যই কৌশলী হতে হবে; আয়ত্ত করতে হবে কিছু কৌশল। এরকম কিছু কৌশল তুলে ধরে সম্প্রতি এক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে সাইকোলজি টুডে ডটকম। যা কেউ মিথ্যা না সত্য বলছে- তা তখনই নির্ণয়ে সাহায্য করবে।

এক সহপাঠী মিথ্যুক প্রমাণিত হওয়ায় তার উপর ক্ষেপেছেন সহপাঠীরা।

এক সহপাঠী মিথ্যুক প্রমাণিত হওয়ায় তার উপর ক্ষেপেছেন সহপাঠীরা।

১. নিরপেক্ষ প্রশ্ন করুন: কিছু মৌলিক প্রশ্ন করে কেউ সত্য না মিথ্যা বলছে তা নির্ণয় করার চেষ্টা করুন। যেমন, কেউ সত্য বললে তিনি কী রকম আচরণ করেন তা জানতে চান। তারা কি দৃঢ়ভাবে দাঁড়িয়ে থাকে না কি কোনো একদিকে তাকিয়ে সত্য বলে? তাকে উত্তর দেওয়ার সময় অভয় দিন। যেন তিনি স্বতস্ফূর্তভাবে উত্তর দিতে পারেন।

২. শরীরী ভাষার দিকে দৃষ্টি রাখুন: কেউ সত্য না মিথ্যা বলছে তা জানতে তার শরীরী ভাষার দিকে দৃষ্টি রাখুন। মিথ্যা বলার সময় শরীরে কোনো প্রাঞ্জলতা থাকে না। গোটা শরীর তার সাবলীলতা হারায়। হাত পায়ের আঙুলে শক্তি থাকে না। কাঁধ কিছুটা কুচকে যায়।

৩. মুখপানে চান: কারও মুখভঙ্গি দেখলে বোঝা যাবে সে সত্য না মিথ্যা বলছে। মিথ্যা বলার সময় মুখমণ্ডল তথা চেহারায় স্বাভাবিকতা থাকে না। মিথ্যা বলার সময় অনেকের মুখ কালচে রূপ ধারণ করে। কারও নাখে পরিবর্তন আসে। কেউ ঠোঁট কামড়ে ধরে। কারও আবার কপালে ভাঁজ পড়ে। কেউ আবার চোখে চোখ রেখে কথা বলতে পারে না।

৪. বাক্য গঠনের দিকে খেয়াল রাখুন: কেউ সত্য না মিথ্যা বলছে- তা জানতে তার কথা বলার সুর খেয়াল করুন। মিথ্যা বলার সময় কথার সুরে বেশ পরিবর্তন আসে। মিথ্যা বলায় তারা হয় খুব দ্রুত অথবা আস্তে আস্তে কথা বলে। স্বর হয় উচ্চভঙ্গির নতুবা নিম্নভঙ্গির। বাক্যগুলো কঠিন হয়ে পড়ে। কারণ ওই সময় তারা ব্রেনকে দ্রুত কাজ করাতে চায়।

৫. অন্যকে দোষারোপ করে: কেউ যখন মিথ্যা বলে তখন তারা অন্যকে দিয়ে গল্পটা শুরু করে। নিজের দোষ আরেকজনের উপর চাপানোর চেষ্টা করে। প্রয়োজনে অন্য সম্পর্কে ইনিয়ে-বিনিয়ে কথা বলে।

এই বিভাগের আরো সংবাদ