স্বর্ণের ভরি কমতে পারে দুই থেকে আড়াই হাজার টাকা
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » সর্বশেষ

স্বর্ণের ভরি কমতে পারে দুই থেকে আড়াই হাজার টাকা

আন্তর্জাতিক বাজারে স্বর্ণের দাম নিম্নমুখী হওয়ায় দেশের বাজারেও এর প্রভাব পড়তে পারে। আগামী কয়েকদিনের মধ্যে ভরি প্রতি স্বর্ণের দাম দুই হাজার থেকে আড়াই হাজার কমতে পারে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

gold-wearing-woman

ছবি সংগৃহীত

বাংলাদেশ জুয়েলারি সমিতির (বাজুস) একজন সদস্য জানান, আগামীকাল বৃহস্পতিবার প্রথম দফায় স্বর্ণের দাম কমতে পারে। এরপর আগামী এক সপ্তাহের ব্যবধানে আবারও স্বর্ণের দাম কমার সম্ভাবনা রয়েছে।

সপ্তাহের শুরুতে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, বিশ্ববাজারে স্বর্ণের দাম এখন নিম্নমুখী। গত ৫ বছরে এটি সর্বনিম্ন পর্যায়ে পৌঁছেছে।

বাজুসের সাধারণ সম্পাদক এনামুল হক খান বলেন, স্থানীয় বাজারে স্বর্ণের দাম পুনঃনির্ধারণ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। দাম নির্ধারণের জন্য স্বর্ণ ব্যবসায়ীদের সঙ্গে আলোচনা করা হবে।

তিনি জানান, বিশ্ববাজারে স্বর্ণের দামের এই নিম্নমুখী প্রবণতা দেশীয় বাজারে খুব বেশি প্রভাব ফেলবে না।

বাংলাদেশ জুয়েলারি ম্যানুফ্যাকচারার অ্যান্ড এক্সপোর্টার্স এসোসিয়েশনে সভাপতি আনোয়ার হোসাইন বলেন, কোনো দেশই স্বর্ণের বাজার এককভাবে নিয়ন্ত্রণ করতে পারে না। এতে অবশ্যই আন্তর্জাতিক বাজারের প্রভাব থাকে। আন্তর্জাতিক বাজারের সঙ্গে মিল রেখে দেশের বাজারে স্বর্ণের দামের ভারসাম্য করা হবে।

তিনি আরও বলেন, আমাদের দেশের স্বর্ণের বাজার মূলত বৈধ পথে আমদানিকৃত স্বর্ণের দামের উপর নির্ভর করে।

বায়তুল মোকাররম মার্কেটের একজন ব্যবসায়ী ফারুক আহমেদ বলেন, আজ বুধবার থেকে স্বর্ণের দাম নিম্নমুখী হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। ফলে উচ্চমূল্যে ক্রয় করা স্বর্ণ কমদামে বিক্রয় করতে হবে।

বাজুসের তথ্য অনুযায়ী, গতকাল মঙ্গলবার পর্যন্ত ২২ ক্যারেটের প্রতি গ্রাম স্বর্ণের দাম ছিল ৩,৮১৭ টাকা (প্রতি ভরি ৪৪ হাজার ৫০৬ টাকা)। এছাড়া ২১ ক্যারেটের স্বর্ণ প্রতি গ্রাম ৩,৬৩৭ টাকা, ১৮ ক্যারেটের স্বর্ণ ৩,০৬৭ টাকা এবং সনাতন স্বর্ণ ২,০৬৫ টাকায় বিক্রয় হয়েছে।

এই বিভাগের আরো সংবাদ