৫৫ মিনিটেই পরিষ্কার কাবা প্রাঙ্গণ!
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » লিড নিউজ

৫৫ মিনিটেই পরিষ্কার কাবা প্রাঙ্গণ!

পবিত্র কাবা শরীফ প্রাঙ্গণ পরিষ্কার করতে সময় লাগে মাত্রা ৫৫ মিনিট। দ্রুততার সঙ্গে কাবা শরীফ প্রাঙ্গণ পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করতে অত্যাধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহার হয় বলে জানিয়েছে পবিত্র মসজিদ পরিচ্ছন্নতার দায়িত্বে নিয়োজিত কয়েকজন কর্মকর্তা।

Grand Mosque Clean

কাবা শরীফ প্রাঙ্গণ পরিষ্কারের কাজ করছেন দুজন পরিচ্ছন্নতাকর্মী।

সৌদি আরবের সংবাদমাধ্যম সৌদি গ্যাজেটে গতাকল রোববার প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে আরও জানানো হয়, পবিত্র রমজান মাস উপলক্ষে ওমরাহ পালনকারীদের সুবিধার্থে প্রতিদিন মাগরিবের নামাজের পর কাবা শরীফ প্রাঙ্গণ পরিষ্কার করা হয়। পরিচ্ছন্নতার দায়িত্বে নিয়োজিত কর্মীরা অত্যাধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহার করে দ্রুততার সঙ্গে এই পরিচ্ছন্নতার কাজ করেন।

কাবা শরীফ প্রাঙ্গণ পরিচ্ছন্নতা বিভাগের পক্ষ থেকে জানানো হয়, ৩ লাখ ৮৮ হাজার ৩৭৫ বর্গকিলোমিটার জায়গায় বিস্তৃত পবিত্র কাবা শরীফ প্রাঙ্গণ। এর ১৭ হাজার ৫৪০ বর্গকিলোমিটার এলাকায় রয়েছে মাতাফ বা তওয়াফ করার স্থান। এই মাতাফ পরিষ্কার করতে সময় লাগে মাত্র ২০ মিনিট। অর্থাৎ, প্রতি বর্গকিলোমিটার জায়গা পরিষ্কার করতে মাত্র ১৩ সেকেন্ড সময় ব্যয় করতে হয় পরিচ্ছন্নতাকর্মীদের।

Grand Mosque

হজের সময়ে কাবা শরীফ প্রাঙ্গণ।

প্রতিবেদনে জানানো হয়, কাবা শরীফ প্রাঙ্গণের প্রতি ৫ হাজার বর্গকিলোমিটার জায়গা পরিষ্কারের জন্য ৪০০ লিটার পানি ব্যবহার করা হয়। অর্থাৎ, প্রতি লিটার পানি দিয়ে ১২ দশমিক ৫ বর্গকিলোমিটার স্থান পরিষ্কার করা সম্ভব। রমজানে কাবা শরীফ প্রাঙ্গণ ও মসজিদুল হারামে অবস্থানকারীদের জন্য দৈনিক ৯৮ টন পানি সরবারাহ করা হয়।

এতে আরও জানানো হয়, কাবা শরীফের মেঝে পরিষ্কারের জন্য রয়েছে একটি বিশেষ গাড়ি। ২৪৫ লিটার বর্জ্য বহনে সক্ষম এই গাড়িটি মসজিদে নববীর পরিচ্ছন্নতার কাজেও ব্যবহার করা হয়।

প্রসঙ্গত, সৌদি বাদশার তত্ত্বাবধায়নে বছরে মাত্র একবার পরিষ্কার করা হয় কাবা শরীফ।

এই বিভাগের আরো সংবাদ