ব্লক মার্কেটে ১৬ কোম্পানির শেয়ার কেনা-বেচা
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » পুঁজিবাজার

ব্লক মার্কেটে ১৬ কোম্পানির শেয়ার কেনা-বেচা

Logo

কয়েকটি কোম্পানির লোগো

সোমবার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) ব্লক মার্কেটে বিপুল পরিমাণ শেয়ার কেনা-বেচা হয়েছে। এদিন এই মার্কেটে ১৬ কোম্পানির ৪০ লাখ শেয়ার কেনাবেচা হয়। এর আর্থিক মূল্য ৫০ কোটি ৪৬ লাখ টাকা। এদিন ডিএসইতে ৩৮০ কোটি ৫১ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। এর ১৩ শতাংশ হয় ব্লক মার্কেটে।

সোমবার ব্লক মার্কেটে টাকার অংকে সবচেয়ে বেশি কেনাবেচা হয়েছে গ্ল্যাক্সো স্মিথক্লাইনের। একটি হাওলায় ৫০ হাজার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। শেয়ারের দাম ছিল ২০০০ টাকা। ব্লকে গ্ল্যাক্সোর লেনদেনের পরিমাণ ১০ কোটি টাকা।

দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৭ কোটি ৮৭ লাখ টাকা মূল্যের শেয়ার কেনা-বেচা হয় বিএটিবিসির। ব্লক মার্কেটে এ কোম্পানির ২৬ হাজার ৫০০ শেয়ার কেনা-বেচা হয়েছে। চারটি হাওলায় নিষ্পন্ন হয়েছে এর লেনদেন। শেয়ারের দাম ছিল ২৯৭০ টাকা।

ব্লক মার্কেটে বার্জার পেইন্টসের ৫০ হাজার শেয়ার কেনা-বেচা হয়। মাত্র একটি হাওলায় নিষ্পন্ন হয়েছে এর লেনদেন। শেয়ারের দাম ছিল ১৫৬৫ টাকা। মোট লেনদেনের পরিমাণ ৭ কোটি ৮২ লাখ টাকা।

৫০০ টাকা দরে এসিআইয়ের ৫৯০০ শেয়ার, ২২৬ টাকা দরে এসিআই ফর্মুলেশনের ১ লাখ ৭৫ হাজার শেয়ার, ৬৩ টাকা ২০ পয়সা দরে বেঙ্গলউইন্ডসরের ২ লাখ শেয়ার, ৮৪ টাকা দরে ডিবিএইচের ৫০ হাজার শেয়ার, ৭০ টাকা দরে ডেসকোর ৭১ হাজার ৫০০ শেয়ার, ১২ টাকা ২০ পয়সা দরে ফাস ফিন্যান্সের ২২ লাখ ২৫ হাজার শেয়ার, ৩২৮ টাকা দরে গ্রামীণফোনের ৮৫ হাজার শেয়ার কেনা-বেচা হয়েছে। বাকী কোম্পানিগুলোর মধ্যে হাইডেলবার্গ সিমেন্টের ২১ হাজার শেয়ার ৫৬০ টাকা দরে, লিন্ডেবিডির ২৯ হাজার শেয়ার ৯৩০ টাকা দরে, অলিম্পিকের ৭৪৬৫ শেয়ার ২২৮ টাকা দরে, রেনেটার ২১ হাজার শেয়ার ৯৬০ টাকা দরে, সাউথইস্ট ব্যাংকের ৮৫ হাজার শেয়ার ১৬ টাকা ৪০ পয়সা দরে এবং স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালসের ৫৮ হাজার শেয়ার ২৫৪ টাকা দরে ব্লক মার্কেটে কেনা-বেচা হয়েছে। এক থেকে তিনটি হাওলায় লেনদেন হয়েছে এসব কোম্পানির শেয়ার।

সম্প্রতি এক কার্যদিবসে এতগুলো কোম্পানির শেয়ারের লেনদেন হয়নি। বিশ্লেষকদের মতে, জুন ক্লোজিং (ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের অর্ধবার্ষিক হিসাব সমাপণী) এগিয়ে আসায় ব্লক মার্কেটে শেয়ার লেনদেন বেড়ে থাকতে পারে।এসব প্রতিষ্ঠান ৩০ জুনে সমাপ্ত অর্ধবার্ষিক প্রতিবেদনে মুনাফা দেখানোর জন্য এ সময় সাধারণত একটু বেশি পরিমাণে শেয়ার বিক্রি করে থাকে।

ব্লক মার্কেট হচ্ছে শেয়ার লেনদেনের বিশেষ ব্যবস্থা। এ বাজারে পাবলিক মার্কেটের মত উন্মুক্ত দর প্রস্তাব করা হয় না। বরং ক্রেতা-বিক্রেতা আলোচনার মাধ্যমে দর-দাম ঠিক করে শেয়ার কেনা-বেচা করে থাকে। তবে পাবলিক মার্কেটের মতো ব্লক মার্কেটেও ব্রোকারের মাধ্যমে লেনদেনটি নিষ্পন্ন করতে হয়।

এই বিভাগের আরো সংবাদ